Rabindranath Tagore: ২২ শে শ্রাবণ রবিঠাকুরের প্রয়াণের খবর পেয়ে এভাবেই শ্রদ্ধা জানিয়েছিলেন কাজী নজরুল

রবিঠাকুরের প্রয়াণের খবর পেয়ে, ঠিক এইভাবেই তাঁকে শ্রদ্ধা জানিয়েছিলেন কবি কাজী নজরুল ইসলাম ৷

News18 Bangla
Updated:Aug 07, 2018 05:50 PM IST
Rabindranath Tagore: ২২ শে শ্রাবণ রবিঠাকুরের প্রয়াণের খবর পেয়ে এভাবেই শ্রদ্ধা জানিয়েছিলেন কাজী নজরুল
News18 Bangla
Updated:Aug 07, 2018 05:50 PM IST

#কলকাতা: 'দুপুরের রবি পড়িয়াছে ঢলে অস্তপারে কোলে/বাংলার কবি শ্যাম বাংলার হৃদয়ের ছবি তুমি চলে যাবে বলে/শ্রাবণের মেঘ ছুটে এলো দলে দলে।'- কাজী নজরুল ইসলাম

রবিঠাকুরের প্রয়াণের খবর পেয়ে, ঠিক এইভাবেই তাঁকে শ্রদ্ধা জানিয়েছিলেন কবি কাজী নজরুল ইসলাম ৷

আজ বাইশে শ্রাবণ। বাঙালির প্রাণের কবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ৭৭তম মহাপ্রয়াণ দিবস। বাংলা সাহিত্যের এই প্রাণপুরুষ ১৩৪৮ সনের ২২ শ্রাবণ পরলোকগমন করেন।

আরও পড়ুন 

জুলাই মাসে, এমনই এক বৃষ্টির দিনে রাণুকে চিঠিতে রবি ঠাকুর লিখলেন...

পৃথিবী ছেড়ে না-ফেরার দেশে চলে গেলেও অসামান্য রচনা ও সাহিত্যকর্মের মাধ্যমে আজও বেঁচে আছেন বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর। তিনি এখনও দুই বাংলার মানুষের প্রেরণার এক অন্তহীন উৎস। কলকাতার রবীন্দ্রনাথের হাত ধরে বাঙালির সাহিত্য ও সংস্কৃতি বিশ্বজনীন হয়ে ওঠে। ১৯১৩ সালে প্রথম বাঙালি এবং এশীয় হিসেবে তিনি সাহিত্যে নোবেল পুরস্কার অর্জন করেন। গীতাঞ্জলি কাব্যগ্রন্থের জন্য নোবেল এনেছিলেন তিনি।

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর একাধারে কবি, নাট্যকার, কথাশিল্পী, চিত্রশিল্পী, গীতিকার, সুরকার, সংগীত পরিচালক, ছোট গল্পকার ও ভাষাবিদ। বাংলা সাহিত্য-সংস্কৃতির এমন কোনো দিক নেই যেখানে এই কীর্তিমানের ছোঁয়া পড়েনি। আশি বছরের জীবন সাধনায় বাংলা সাহিত্যকে বিশ্বদরবারে বিশেষ মর্যাদার আসনে আসীন করে গিয়েছেন তিনি। কবিতা দিয়ে সাহিত্যচর্চার শুরু এবং শেষ হলেও তার হাতেই বাংলা ভাষায় প্রথম সার্থক ছোট গল্পের সৃষ্টি হয়েছে। তিনিই আবার বাংলা উপন্যাসকে আধুনিক রূপ দেন। শুধু সৃজনশীল সাহিত্য রচনা নয়, অর্থনীতি, সমাজ, রাষ্ট্র নিয়ে তার ভাবনাও তাকে সম্মানের আসনে পৌঁছে দিয়েছে । মানুষের মুক্তির দর্শন ছিল তার চেতনাজুড়ে। রবীন্দ্রনাথই একমাত্র কবি যিনি দুটি দেশের জাতীয় সংগীতের রচয়িতা। ৭১-এর মহান মুক্তিযুদ্ধে তার গান ও কবিতা আমাদের প্রেরণার উৎস হয়ে হয়েছিল। বাংলাদেশ স্বাধীনতা লাভের পর তার রচিত 'আমার সোনার বাংলা' গানটিকে জাতীয় সংগীতের মর্যাদা দেওয়া হয়। তারই 'জনগণমন-অধিনায়কও জয় হে' গানটি ভারতের জাতীয় সংগীত। প্রয়াণ দিবসে আজ দেশে ও দেশের বাইরে বাংলাভাষীরা বিশ্বকবিকে স্মরণ করছে গভীর শ্রদ্ধা ও কৃতজ্ঞতায়।

First published: 03:10:21 PM Aug 07, 2018
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर