জানুন কোন ক্রিপ্টোকারেন্সি পকেট ভরাবে

ক্রিপ্টোকারেন্সিতে এখন ব্যাপক আগ্রহ দেখাচ্ছেন বিনিয়োগকারীরা। 

চিন, বাংলাদেশ, রাশিয়ার মতো অনেক দেশে এটি নিষিদ্ধ। 

ভারত ক্রিপ্টোকে ব্যান না-করলেও আইনি স্বীকৃতিও দেয়নি। 

ক্রিপ্টোর বাজার মূলধন ইতিমধ্যেই ট্রিলিয়ন মার্কিন ডলারে পৌঁছেছে।

পলিগন, ইথেরিয়াম, ক্লাসিক, ডজকয়েন ক্রিপ্টোজগতে সাড়া ফেলে দিয়েছে।

বিটকয়েনই প্রথম ক্রিপ্টোকারেন্সি, যা সারা বিশ্বে ক্রিপ্টো আন্দোলন শুরু করেছিল।

ইথেরিয়াম ওপেন সোর্স ক্রিপ্টো, লেনদেন বিটকয়েনের চেয়েও দ্রুত।

দৈনন্দিন সব চেয়ে বেশি লেনদেন করা ক্রিপ্টোকারেন্সি বিনান্স কয়েন।

টিথার ক্রিপ্টো স্থিতিশীল, এর দর ওঠানামা করে না। 

এই মুহূর্তে ভারতে সোলানা ক্রিপ্টোকারেন্সির দাম ১৫ হাজার ৫৩০ টাকা।

ফ্লেক্সিবল নেটওয়ার্ক ও দ্রুত লেনদেনে কার্ডানোর জনপ্রিয়তা বাড়়ছে। 

আরও স্টোরিজের জন্য ক্লিক করুন

ক্লিক করুন