দু'বছরেরও বেশি সময় ধরে বন্ধ সিউড়ির বড় ঘড়ি, শতাব্দী প্রাচীন ঘড়িটি সারাতে উদ্যোগী হয়েছে প্রশাসন

Bangla Editor | News18 Bangla | 12:15:30 PM IST Feb 12, 2019

দু'বছরেরও বেশি সময় ধরে বন্ধ সিউড়ির বড় ঘড়ি। সিউড়ি ট্রেজারি অফিসের ওপরে বসানো ঘড়িটি শুধু সময় জানান দিত না, স্থানীয়দের  আবেগের সঙ্গেও জড়িয়ে গিয়েছিল। সেই আবেগকে সম্মান দিতেই শতাব্দী প্রাচীন ঘড়িটি সারাতে উদ্যোগী হয়েছে বীরভূম জেলা  প্রশাসন। তখন ১৯০২ সাল। লন্ডন থেকে ওয়েস্ট সিস্টেমে চলা এই দ্বিমুখী ঘড়িটি কিনে আনেন বীরভূমের হেতমপুরের রাজা মহিমা নিরঞ্জন চক্রবর্তী। উপহার দেন বীরভূমের সে সময়ের কালেকটরকে। দু'বছর পর ঘড়িটি বসানো হয় সিউড়ি ট্রেজারি অফিসের ওপরে। তখন থেকেই সিউড়িবাসীর কাছে এটা বড় ঘড়ি নামে পরিচিত। সেসময় এই ঘড়ির ঘণ্টার আওয়াজ নাকি দশ কিলোমিটার দূর থেকেও শোনা যেত। সিউড়ির আদালত থেকে অফিস কাছারি, এই ঘড়ির আওয়াজেই খোলা ও বন্ধ হত। পরবর্তীকালে বড় ঘড়ির কাটা দেখে হাতঘড়ির সময় মেলাতেন পথচলতি মানুষ।

লেটেস্ট ভিডিও