করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে তৎপর পূর্ব মেদিনীপুরের জেলা প্রশাসন থেকে বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা

Bangla Digital Desk | News18 Bangla | 08:27:06 PM IST Apr 26, 2021

করোনা সংক্রমণ রোধে উচ্চ পর্যায়ের বৈঠক হলদিয়ায় পূর্ব মেদিনীপুর জেলার শিল্প নগরী হলদিয়া। হলদি নদীর তীরে হলদিয়া ভবনে রাজ্যের শ্রম দপ্তরের সচিব করোনা ভাইরাস সংক্রান্ত অফিসার উচ্চ পর্যায়ে কোভিড ১৯ বৈঠক করেন। হলদিয়া ভবনে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের শ্রম দপ্তরের সচিব করোনাভাইরাস সংক্রান্ত অফিসার বরুণ রায়। এছাড়া উপস্থিত ছিলেন পূর্ব মেদিনীপুর জেলা শাসক স্মিতা পান্ডে, পুলিশ সুপার এবং জেলার মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক এছাড়া উপস্থিত ছিলেন পূর্ব মেদিনীপুর জেলার ব্লক স্বাস্থ্য আধিকারিক গন। উপস্থিত ছিলেন হলদিয়া উন্নয়ন পর্ষদ সিএমও সহ বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ। নোডল অফিসার বলেন করোনা ভাইরাস নিয়ে আতঙ্কিত হওয়া দরকার নেই। সরকার যথোপযুক্ত ব্যবস্থা নিয়েছেন মানুষকে সুরক্ষিত রাখার জন্য পূর্ব মেদিনীপুর জেলায় সরকারি হাসপাতাল প্রায় ৩০০ বেড প্রস্তুত করা হয়েছে। সংক্রামিত হলে তাদেরকে বাড়িতেই থাকতে হবে। আশা কর্মী রিলেটেড যারা আছেন তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করে হোম আইসোলেশন এ থাকার পরামর্শ দিলেন। পূর্ব মেদিনীপুর জেলায় কোভিড ১৯ প্রথম পর্যায়ে ভ্যাকসিন আকাল পড়েছে। তবে খুব শীঘ্রই এই সমস্যা মিটে যাবে। প্রথম খোঁজ যারা  নিয়েছিলেন তাদের দ্বিতীয়  ডোজ নেওয়ার কাজ চলছে। চলতি মাসের প্রথমে  সেই সমস্যা মিটে যাবে বলেও তিনি বললেন। আগামী দিনে পূর্ব মেদিনীপুর জেলার পঞ্চায়েত স্বাস্থ্য দপ্তর আশা কর্মীদের নিয়ে কোভিড ১৯ কে কাটি উঠেছিলেন ঠিক সেভাবেই দ্বিতীয় ঢেউয়ের মোকাবেলার জন্য সবরকম ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন। আজকের হলদিয়া ভবনে জেলার সচিব আধিকারিকদের নিয়ে বিশেষ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। করোনা ভাইরাস সংক্রমণ রোধে সচেতনতা বার্তা বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংস্থারপূর্ব মেদিনীপুর:– করোনা ভাইরাস মারনঘাতি বিধ্বংসী মহামাহারির চরিত্র নিয়ে দ্রুতবেগে ধেয়ে আসছে। এই সময় চিন্তার ও আশঙ্কার কারন হয়ে দাঁড়িয়েছে,-  মাস্ক, শারীরিক দুরত্ব, হাতশুদ্ধি সহ সুরক্ষা ও স্বাস্থ্যবিধি মান‍্যতায় বৃহত্তম অংশ মানুষের চরম উদাসীনতা ও অবহেলা। এই অবস্থায় গন‌ সচেতনতায় ব‍্যাপক ও অভিনব প্রচার নিয়ে পথে নামল কোলাঘাটের একটি স্বেচ্ছা সেবী প্রতিষ্ঠান।  গ্রামে মাইকে করে সুরক্ষা বিধি প্রচার শুরু করা হয়েছে। বাড়ির বাইরে বেরিয়ে যারা অন‍্যমনস্কতায় মাস্ক আনতে ভুলে যাবেন, তাদের সাম্মানিক মূল‍্য এক-টাকার বিনিময়ে মাস্ক তুলে দিয়ে হাত স‍্যানিটাইজের ব‍্যবস্থা করা হচ্ছে। প্রচার গাড়ি থেকে ছাড়াও কোলাঘাটে সোম- শুক্র'র বড়মাপের হাটে ক‍্যাম্পের মাধ‍্যমে সুরক্ষা বিধির প্রচার ও এইরূপ মাস্ক, স‍্যানিটাইজের ব‍্যবস্থা করা হয়েছে বলে আয়োজকদের পক্ষে অভিজিত সামন্ত জানান। অভিজিত বাবু আরো বলেন," এই মহামারি প্রতিরোধে একমাত্র হাতিয়ার হল জন সচেতনতা ও সতর্কতা অবলম্বন। যা  নিয়ে আমরা গত প্রায় এক বছর সীমিত সামর্থ্যের মধ‍্যেই নানা ভাবে সমাজ ও মানুষের পাশে থাকার চেষ্টা করেছি‌।  আগামি দিনেও তা অব‍্যাহত থাকবে। অন্যদিকে করোনা সচেতনতায় উদ্যোগী ভূমিকা নিল শহীদ মাতঙ্গিনী ব্লকের নোনাকুড়ি গ্রাম। নোনাকুড়ি গ্রামের বার্ষিক কালীপুজো উপলক্ষ্যে করোনা সচেতনতার জন্য মাস্ক বিলি করছেন বল্লুক-১ গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান শরতচন্দ্র মেট্যা সহ নোনাকুড়ি গ্রামকমিটি ও পুজো কমিটির সদস্যরা।

লেটেস্ট ভিডিও