আর্থিক দুর্নীতির অভিযোগে দেশপ্রাণ কলেজ অধ্যক্ষের বাড়ি ঘেরাও করে বিক্ষোভ পড়ুয়াদের

Bangla Editor | News18 Bangla | 12:21:15 PM IST May 12, 2021

আর্থিক দুর্নীতির অভিযোগে দেশপ্রান কলেজ অধ্যক্ষের বাড়ি ঘেরাও করে বিক্ষোভ পড়ুয়াদের কাঁথি, পূর্ব মেদিনীপুর:  চাকুরি স্থায়ীকরনের নামে ভয় দেখিয়ে টাকা তোলা এবং কলেজের গৃহনির্মানে দুর্নীতির অভিযোগ তুলে দোষীদের শাস্তির দাবিতে কলেজের অধ্যক্ষের বাড়ি ঘেরাও করে পড়ুয়ারা। চাঞ্চল্যকর ঘটনা পূর্ব মেদিনীপুর জেলার কাঁথি দেশপ্রাণ মহাবিদ্যালয়ের। এই কলেজের অধ্যক্ষ সুবিকাশ জানা বেশ কিছুদিন ধরে কলেজ যাচ্ছেন না। এর ফলে কলেজ পরিচালন কমিটির বিরুদ্ধে ওঠা একাধিক আর্থিক তছরূপ কান্ডের কোন তদন্ত হচ্ছে না। এই অভিযোগ তুলে কাঁথি পৌরসভার ১৭নং ওয়ার্ডের রাখাল চন্দ্র বিদ্যাপীঠের পিছনে অধ্যক্ষের বাড়ির সামনে ধর্ণায় বসলো তৃণমূল ছাত্র পরিষদ। শাসক দলের পক্ষ থেকে ঘেরাও করে তার বাড়ির সামনে বিক্ষোভ দেখানো হয় । নজিরবিহীনভাবে এই প্রথম পূর্ব মেদিনীপুরের কোন কলেজের অধ্যক্ষের বাড়ির সামনে দুর্নীতির অভিযোগ তুলে তৃণমূল ছাত্র পরিষদ অবস্থান বিক্ষোভ করল। তৃণমূল ছাত্র পরিষদের অভিযোগ কলেজের অতিথি অধ্যাপকদের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি পার্মানেন্ট স্টেট এডেড কলেজ টিচার করেছেন সম্পূর্ণ ফ্রি-তে, কিন্তু দেশপ্রাণ মহাবিদ্যালয়ের অধ্যক্ষ এবং নন টিচিং স্টাফ হেডক্লার্ক নন্দদুলাল বারিকের যোগসাজশে এই অধ্যাপকদের কাছ থেকে প্রায় ১ কোটি টাকা বেআইনিভাবে নিয়োগপত্র দেওয়ার নাম করে নেওয়া হয়েছে। তৃনমূলের ছাত্র সংগঠনের অভিযোগ যদি কোন টিচার না দেয় তাদের নিয়োগপত্র দেওয়া হবে না এবং বিকাশ ভবনে কাগজপত্র পাঠানো হবে না প্রমুখ নানা ভাবে মানসিক চাপ দেওয়া হয়েছে। আন্দোলনকারীদের দাবি এছাড়াও কলেজে বিল্ডিং সংক্রান্ত টেন্ডারের বিশাল দুর্নীতি হয়েছে, নিম্নমানের সিমেন্ট ব্যাবহার করা হয়েছে কলেজের বিল্ডিং নির্মানে। তাই যে সমস্ত স্টেট এডেড কলেজ টিচারদের কাছ থেকে টাকা নেওয়া হয়েছে, তাদের টাকা ফেরতের এবং কলেজ টেন্ডারের স্বচ্ছতা আনতে তৃণমূল ছাত্র পরিষদ অধ্যক্ষের বাড়ির সামনে আজকে ধরনা দিয়েছেল গত ১৮ জানুয়ারি দেশপ্রাণ তৃণমূল ছাত্র পরিষদের পক্ষ থেকে এই বিষয়ে মুখ্যমন্ত্রী, শিক্ষা মন্ত্রী, এন্টি কোরাপশান, জেলাশাসক, মহকুমা শাসক, বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য, এবং কাঁথি তিন নম্বর ব্লকের বিডিওর কাছে লিখিতভাবে অভিযোগ জানিয়েছে তৃণমূল ছাত্র পরিষদ। পূর্ব মেদিনীপুর জেলার তৃনমূল ছাত্র পরিষদ সাধারণ সম্পাদক শেখ সাজিদ বলেন " শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক্ষা নেওয়া জন্য। ওই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কোটি কোটি টাকা দুনীতি করছেন। কলেজের অতিথি অধ্যাপকদের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি পার্মানেন্ট স্টেট এডেড কলেজ টিচার নিয়োগ করেছেন সম্পূর্ণ ফ্রি-তে। কিন্তু অধ্যক্ষ এই অথিতি অধ্যাপকদের ভয় দেখিয়ে চাকুরি স্থায়ীকরণ  ও কলেজের উন্নয়ন কোটি কোটি টাকা আত্মসাত করেছেন। এই দুনীতি ঘটনার কলেজের তৎকালীন পরিচালনার কমিটির সভাপতি দিব্যেন্দু অধিকারীও দায় এড়াতে পারেন না।" আজ এই বিক্ষোভে উপস্থিত ছিল তৃণমূল ছাত্র পরিষদের রাজ্য কমিটির সদস্য আবেদ আলী খান, জেলার সহ-সভাপতি তারাশঙ্কর পন্ডা, সাধারণ সম্পাদক শেখ সাজিদ ও অয়ন জানা, দেশপ্রাণ মহাবিদ্যালয় টিএমসিপি ইউনিট সভাপতি নিমাই দাস, কন্টাই পিকে কলেজ ইউনিট সভাপতি শেখ ইমরান সহ পাঁচ শতাধিক ছাত্র- উপস্থিত ছিলো। খবর পেয়ে কাঁথির পুলিশ এসে আশ্বাস দিলে এই অবস্থান বিক্ষোভ উঠে যায়। এই বিষয়ে দেশপ্রাণ মহাবিদ্যালয় এর অধ্যক্ষ সুবিকাশ জানার কোন প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

লেটেস্ট ভিডিও