ডেবরায় করোনা আক্রান্ত রোগীর খোলা মাঠে তাঁবু খাটিয়ে রাত্রিবাস আইআইটির সিকিউরিটির

Bangla Editor | News18 Bangla | 08:15:27 AM IST May 22, 2021

ডেবরায় করোনা আক্রান্ত রোগীর খোলা মাঠে তাঁবু খাটিয়ে রাত্রীবাস আই আই টির সিকিউরিটির।পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার ডেবরা ব্লকের ডুঁয়া ১০/২ অঞ্চলের ঘোলাই গ্রামে সঞ্জিত ভট্টাচার্য নামে এক ব্যাক্তির করোনা পজিটিভ ধরা পড়ে গত ১২ ই মে। তারপর থেকে বাড়ির কাছেই ত্রিপল দিয়ে তাঁবু খাটিয়েই দিন রাত কাটাচ্ছে ওই আক্রান্ত ব্যাক্তি। খড়্গপুরে আই আই টিতে সিকিউরিটির কাজ করে সঞ্জিত।ছুটির পর  পুনরায় কাজে যোগ দিতে গেলে তাকে করোনা টেস্ট করে কাজে যোগ দেওয়ার কথা বলা হয়৷ আর তাতেই তার রিপোর্ট পজিটিভ আসে। রিপোর্ট পজিটিভ আসার পরেই তিনি সোজা বাড়ী চলে আসেন।।এবং বাড়ির পাশের মাঠে তাঁবু খাটিয়ে থাকেন। তীব্র গরম, ঝড় বৃষ্টি সব উপেক্ষা করেই তাকে থাকতে হচ্ছে তাঁবুতে। তাকে জিজ্ঞাসা করলে তিনি বলেন ১০ দিন হয়েই গেলো। কিছু হোলো না।আমি তো আশা কর্মীদের স্কুলে থাকার কথা বলেছিলাম,পঞ্চায়েতকেও জানিয়েছি,কোনো উত্তর পাইনি।বাড়ীতে অনেক লোক,বৃদ্ধা মা রয়েছেন,কচিকাচারা রয়েছেন। তাই আমি ত্রিপল টাঙিয়ে মাঠের ধারে আছি। যদিও এই পরিস্থিতিতে ডেবরা সেফ হোমে বেড খালি থাকলেও যেতে রাজি হননি সঞ্জিত ভট্টাচার্য। অপরদিকে এই ঘটনা নিয়ে এলাকার পঞ্চায়েত তথা ডুঁয়া ১০/২ অঞ্চলের উপ প্রধান দুলি হাঁসদা জানান আমরা সমস্ত রকমের সহযোগিতা করেছি। যেই সময় ওর পজিটিভ ধরা পড়ে।সেই সময় হাসপাতালে বেড ছিল না। আমরা সব সময় খোঁজ খবর নিয়েছি। অপরদিকে সঞ্জিত ভট্টাচার্যের স্ত্রী রুপালী ভট্টাচার্যের দাবী উনি সুস্থ আছেন,আমাদের কোনো অসুবিধা নেই,আমরা খাওয়ার দাওয়ার সব দিচ্ছি। আমাদের মনে হয় এই পরিবেশেই উনি সুস্থ হয়ে উঠবেন। অপরদিকে ডেবরা পঞ্চায়েত সমিতির কর্মাধ্যক্ষ প্রদীপ কর জানান ডেবরার বিধায়ক তথা মন্ত্রী হুমায়ুন কবীরের উদ্যোগে ওই পরিবারকে ত্রিপল,চাল,ডাল,লুঙ্গি,গামছা, মাস্ক,স্যানিটাইজার দিয়ে এসেছি। আমরা সব সময় নজর রেখেছি৷

লেটেস্ট ভিডিও