Home » Tag » Dilip Ghosh
Dilip Ghosh

Dilip Ghosh র সব খবর

    দিলীপ ঘোষ (Dilip Ghosh)৷ বাংলার উত্তপ্ত রাজনীতি হোক বা ভোটের আবহ, জনসংযোগ হোক বা প্রচার কিংবা নিউটাউনে প্রাতঃভ্রমণ, চর্চা কিংবা বিতর্ক- রাজনৈতিক উত্থানপতনে জনপ্রিয় নাম দিলীপ ঘোষ (Dilip Ghosh)৷ রাজনৈতিক গ্রাফের বিচারে তাঁর উত্থানই হয়েছে৷ ভারতীয় জনতা পার্টির রাজ্য সভাপতি থেকে সর্বভারতীয় সহ সভাপতি, এ তো প্রোমোশনই৷ হিসাব মতো গেরুয়া শিবিরে নাড্ডার পরেই তিনি৷ জন্ম মেদিনীপুরে৷ একদম নির্বাচন কমিশনের রিপোর্ট অনুযায়ী বিচার করলে তাঁর শিক্ষাগত যোগ্যতা স্নাতক৷ রাজনীতিতে হাতেখড়ি ১৯৮৪-এ৷ রাষ্ট্রীয় সেবক সঙ্ঘের সদস্য পদ দিয়ে৷ প্রথম থেকেই তিনি ভারতীয় জনতা পার্টির সক্রিয় কর্মী৷ একনিষ্ঠও বটে৷ তবে ২০০৭ পর্যন্ত আন্দামানে থেকে কাজ করেছেন৷ ২০১৬ সালে খড়গপুর সদর থেকে বিধানসভা নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা এবং বিধায়ক হিসাবে নির্বাচন৷ সেই সময় তাঁর বিপরীত ছিলেন জ্ঞান সিং সোহনপাল৷ ২০১৯-এ মেদিনীপুর লোকসভা কেন্দ্র থেকে জয়ী হন দিলীপ৷

    তিনি যে দলের একনিষ্ঠ কর্মী এবং সমর্থক সে প্রমাণ একাধিকবার দিয়েছেন দিলীপ৷ জেপি নাড্ডার নিরাপত্তায় গাফিলতির অভিযোগ তুলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে চিঠি লিখেছিলেন প্রাক্তন রাজ্য সভাপতি৷ ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের কাছে৷

    সম্প্রতি রাজ্যের বাড়তে থাকা করোনা পরিস্থিতিতে একাধিকবার সচেতনতা প্রচার করেছেন দিলীপ৷ শুধু নিয়ম আরোপ করে কিছু হবে না, প্রয়োজন সচেতনতা৷ প্রতি সপ্তাহান্তে নিউটাউনে প্রাতঃভ্রমণে বের হন বিজেপির সর্বভারতীয় সহ সভাপতি৷ সেই ভ্রমণে হোক বা চায়ে পে চর্চায়- বারবার তিনি বলেছেন সরকারের পক্ষে সবকিছু সম্ভব না,যদি মানুষ সচেতন না হন তাহলে দেশ থেকে অতিমারি কখনওই যাবে না৷

    রাজনৈতিক মতপার্থক্যের ঊর্ধ্বে উঠে একাধিকবার সৌজন্য দেখিয়েছেন তিনি৷ তৃণমূল কংগ্রেসের প্রাক্তন বিধায়ক প্রদীপ সরকারের মা মারা যাওয়ার পর শ্রাদ্ধানুষ্ঠানেও এসেছিলেন তিনি৷ খড়্গপুরে এসে আন্তরিকতার ফ্রেমে দেখা দিয়েছেন বিজেপির সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি৷

    কথায় বলে, শাসন করা তারই সাজে, সোহাগ করে যে৷ দিলীপের (Dilip Ghosh) বকুনিও খেয়েছে দলের লোকেরা৷ কলকাতা পুরসভা নির্বাচনে খারাপ ফলের জন্য মানসিকভাবে প্রস্তুত ছিলেন তাঁরা৷ তবে তার জন্য শুধু তৃণমূলের বিরুদ্ধে ভোটে অনিয়মের অভিযোগ নয়, বিজেপি-র সাংগঠনিক দুর্বলতাকেই দায়ী করেছেন বিজেপি-র প্রাক্তন রাজ্য সভাপতি৷ ইকো পার্কে মর্নিং ওয়াক করতে গিয়ে দিলীপ ঘোষ (Dilip Ghosh) বলেন, ‘কলকাতা বা তার আশপাশের এলাকায় লোকসভা, বিধানসভা নির্বাচনেও আমরা ভাল কিছু করতে পারিনি৷ কারণ এই এলাকায় আমাদের সংগঠন খুবই দুর্বল৷ ফলে পুরভোটে বিরাট সাফল্য পাব, এ রকম আমরা কেউই ভাবিনি৷ আশাও করিনি খুব ভাল কিছু হবে৷’

    নতুন রাজ্য সভাপতি নির্বাচিত হওয়ার পর সকান্ত মজুমদারও একাধিকবার অগ্রজ দিলীপ ঘোষের প্রশংসা করেছেন৷ জানিয়েছেন প্রাক্তন রাজ্যসভাপতির পদাঙ্ক অনুসরণ করেই তিনি নিজের দায়িত্ব পালন করবেন৷ সাংবাদিক সম্মেলনে দিলীপের পাশে বসেই বলেছিলেন, দিলীপবাবু যোগ্যতম ছিলেন৷ তবে দলের শীর্ষ নেতৃত্বের সিদ্ধান্তও মানতে হবে৷ শীর্ষ নেতাদের সিদ্ধান্ত মেনেছেন দিলীপও৷ শুরু থেকে জীবনের মধ্যবেলায় এসেও তিনি গেরুয়া শিবিরের প্রতিই একনিষ্ঠ৷