মৃত মায়ের সঙ্গে এক ঘরে দেড় মাস কাটালেন মেয়ে!

News18 Bangla
Updated:Feb 18, 2019 03:28 PM IST
মৃত মায়ের সঙ্গে এক ঘরে দেড় মাস কাটালেন মেয়ে!
photo source collected
News18 Bangla
Updated:Feb 18, 2019 03:28 PM IST

#বিদেশ: কলকাতার সেই ঘটনা মনে আছে তো? মৃত দেহকে আগলে দিনের পর দিন অপেক্ষা করেছিল ছেলে। ঠিক তেমন ঘটনাই ঘটল ভারজিনিয়ায়। দেড় মাসের বেশি এ ভাবেই তাঁর মায়ের মৃতদেহটি রেখে দিয়েছিলেন ভার্জিনিয়ার জো-হুইটনি আউটল্যান্ড। মায়ের সঙ্গে একই ঘরে পোষ্য নিয়ে থেকেছেন মেয়ে। চেয়ারে আধশোয়া অবস্থায় বসে এক বৃদ্ধা। প্রাণহীন দেহ আপাদমস্তক কম্বলে মোড়া। তীব্র পচা গন্ধ ভেসে আসছে দেহ থেকে। ঘরের ভিতরে উঁকি মেরে এই দৃশ্য দেখে ছিটকে আসেন পুলিশকর্মীরা।

মায়ের মৃত্যুর ঘটনা আড়াল করার চেষ্টা করায় মঙ্গলবার গ্রেফতার হয়েছেন ৫৫ বছরের হুইটনিকে। তিনি স্বীকার করেছেন, ডিসেম্বরের শেষে মারা যান তাঁর মা রোজ়মেরি। তার পরে দেহটি ৫৪টি কম্বলে মুড়ে তিনি রেখে দিয়েছিলেন দেড় মাসের বেশি।

পুরো বিষয়টাই সামনে আসত না যদি না ভদ্র মহিলার ভাইপো তাঁর খোঁজ করতে যেতেন। যোগাযোগ না করতে পেরে বাধ্য হয়ে পাইনস্ট্রিটের বাড়ির জানলা বেয়ে উঠে ঘরে ঢুকে ওই দৃশ্য দেখেন তাঁর ভাইপো। ওই বাড়িতে পরিচারিকা ও মেয়ের সঙ্গে থাকতেন রোজ়ম্যারি। কী ভাবে মৃত্যু হয় তাঁর? হুইটনি বলেছেন, ‘এক দিন সকালে উঠে মা শ্বাস নিতে পারছিলেন না। কিছু করার আগেই মা নেতিয়ে পড়েন। আমি প্রাণদায়ী সিপিআর দেওয়ার চেষ্টা করি। কিন্তু তা কাজ করেনি।’ মেয়ের কথায়, ‘আমি আমার মাকে পৃথিবীতে সব চেয়ে বেশি ভালবাসতাম। আমার অত্যন্ত কাছের মানুষ ছিলেন। মা মারা যাওয়ার পর থেকে প্রতিটা রাত আমি তাঁর সঙ্গে কাটিয়েছি। ওঁর প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে আমি দেহটা কম্বলে ঢেকে রাখি।’ মেয়েকে গ্রেফতার করা হলেও ওই বাড়ি থেকে সুস্থ অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে তাঁর কুকুর ও বিড়াল ছানাটিকে।

আরও ভিডিও দেখুন--->

First published: 03:28:15 PM Feb 18, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर