Home /News /west-midnapore /
West Midnapore News: মেদিনীপুর শহরে ছিনতাইবাজের অস্ত্রের কোপে গুরুতর জখম যুবক, ভর্তি মেডিক্যালে

West Midnapore News: মেদিনীপুর শহরে ছিনতাইবাজের অস্ত্রের কোপে গুরুতর জখম যুবক, ভর্তি মেডিক্যালে

title=

এলোপাতাড়ি ধারাল অস্ত্রের কোপে বছর ২০'র ওই যুবক গুরুতর আহত অবস্থায় মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে ভর্তি।

  • Share this:

    #পশ্চিম মেদিনীপুর: এবার শান্তির শহর মেদিনীপুরেও দুষ্কৃতী হামলার অভিযোগ। পশ্চিম মেদিনীপুরের জেলা শহর মেদিনীপুরের সিপাইবাজার সংলগ্ন গির্জা এলাকায় (২ নং ওয়ার্ড) এক যুবকের উপর হামলা হয় বলে অভিযোগ। এলোপাতাড়ি ধারালো অস্ত্রের কোপে বছর ২০'র ওই যুবক গুরুতর আহত অবস্থায় মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে ভর্তি। যুবকের নাম মির্জা রাজ।

    আহত যুবক ও তাঁর পরিবারের দাবি, রবিবার রাত্রি ১১ টা নাগাদ সাইকেলে চেপে ওষুধ নিয়ে ফেরার পথে, রাজের উপর হামলা চালায় স্থানীয় এক দুষ্কৃতী। টাকা চেয়ে হামলা চালানো হয় বলে অভিযোগ। তা না দেওয়ায়, গলায় থাকা সোনার চেন ছিনিয়ে নেওয়ার অভিযোগ ওঠে। তারপর-ই ধস্তাধস্তি শুরু হলে, ওই দুষ্কৃতী ভোজালি বা ছুরি জাতীয় ধারালো অস্ত্র দিয়ে রাজকে আক্রমণ করে বলে অভিযোগ। তারপরই ওই দুষ্কৃতী পালিয়ে যায়। গুরুতর জখম অবস্থায় উদ্ধার করে রাজ-কে ভর্তি করা হয়েছে মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে।

    আরও পড়ুন - দেশ ব্যাপী প্লাস্টিক ব্যাগ ব্যান, মেদিনীপুর শহরে পুরসভার পলিথিনের বিরুদ্ধে অভিযান

    জানা গেছে, রাজের পরিবারের তরফে আজাদ নামে সিপাই বাজার কশাইপাড়া এলাকার এক যুবকের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে কোতওয়ালী থানায়। তবে, সে পলাতক বলে জানা গেছে পুলিশ সূত্রে। তার খোঁজে তল্লাশি চালাচ্ছে কোতওয়ালী থানা। আহত যুবকের বাড়িও সিপাই বাজার গির্জা সংলগ্ন (বেলতলা) এলাকায় বলে জানা গেছে। তার পরিবারের অভিযোগ, রাজের গলায় থাকা সোনার চেন ছিনিয়ে নিয়ে চলে গেছে দুষ্কৃতী।

    যদিও, ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। প্রাথমিক অনুমান, অভিযুক্ত যুবক (আজাদ), রাজের পূর্বপরিচিত। সেক্ষেত্রে, পুরানো কোনও শত্রুতা'র বিষয় ছিল কিনা তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে পুলিশের তরফে। তবে, আহত রাজের পরিবারের অভিযোগ, আজাদ এলাকার একজন দুষ্কৃতী। টাকা ও সোনার চেন ছিনতাইয়ের জন্য-ই হামলা চালিয়েছে। এদিকে, ধারাবাহিকভাবে খড়্গপুরে এই ধরনের ঘটনা ঘটলেও, মেদিনীপুর শহরে হঠাৎ করে এই ধরনের ঘটনা ঘটায় চিন্তিত শহরবাসী।

    Partha Mukherjee

    Published by:Ananya Chakraborty
    First published:

    Tags: Midnapore

    পরবর্তী খবর