Home /News /west-bardhaman /
INTTUC|| দীর্ঘদিন চুক্তির মেয়াদ শেষ হওয়ায় চলছিল বিক্ষোভ, শ্রমিকদের দাবি মানল কারখানা কর্তৃপক্ষ

INTTUC|| দীর্ঘদিন চুক্তির মেয়াদ শেষ হওয়ায় চলছিল বিক্ষোভ, শ্রমিকদের দাবি মানল কারখানা কর্তৃপক্ষ

title=

Latest Bangla News: শ্রমিকরা দাবি তুলেছিলেন, তাদের বেতন বৃদ্ধির। দাবি জানিয়েছিলেন তাদের প্রাপ্য নানান অধিকারের। অবশেষে সেই সমস্ত দাবিতে সীলমোহর দিল কারখানা কর্তৃপক্ষ।

  • Share this:

    #পানাগড়: দীর্ঘদিন ধরে চুক্তির মেয়াদ শেষ হওয়ার পরেও নতুন করে চুক্তি স্বাক্ষরিত হচ্ছিল না। যা নিয়ে ক্ষোভ জমেছিল কর্মরত শ্রমিকদের মনে। কারখানা কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে একাধিক অভাব-অভিযোগের কথা তুলে ধরেছিলেন তারা। দাবি তুলেছিলেন, তাদের বেতন বৃদ্ধির। দাবি জানিয়েছিলেন তাদের প্রাপ্য নানা অধিকারের। অবশেষে সেই সমস্ত দাবিতে শীলমোহর দিল কারখানা কর্তৃপক্ষ। নতুন করে স্বাক্ষরিত হল চুক্তি। যেখানে শ্রমিকদের দাবি বাস্তবায়িত হবে। শ্রমিকদের দাবি মেনে বৃদ্ধি হবে বেতন।

    তা ছাড়াও পিএফ, ইএসআই এর মত আরও একাধিক সুযোগ তাদের দেওয়া হবে। স্বাভাবিকভাবেই কারখানা কর্তৃপক্ষের এই সিদ্ধান্তে খুশির জোয়ার কর্মরত শ্রমিকদের মধ্যে। অনেকেই বলছেন, তাদের আন্দোলন সফল হয়েছে। পাশাপাশি তৃণমূল শ্রমিক সংগঠনের জেলা সভাপতিকেও ধন্যবাদ জানাচ্ছেন তারা। কারণ তাদের হয়ে কারখানা কর্তৃপক্ষের সামনে দাবিগুলি তুলে ধরেছিলেন আইএনটিটিইউসি জেলা সভাপতি অভিজিৎ ঘটক।

    উল্লেখ্য, পানাগড় স্টেশন সংলগ্ন এলাকায় একটি বেসরকারি কারখানা রয়েছে। যেখানে মূলত রেলের স্লিপার তৈরি করা হয়। ওই কারখানায় কর্মরত শ্রমিকদের অভিযোগ ছিল, তাদের চুক্তির মেয়াদ শেষ হয়ে গিয়েছে। কিন্তু নতুন করে কোনও চুক্তি কারখানা কর্তৃপক্ষ এখনও করেনি। ফলে তাদের বেতন বৃদ্ধি হয়নি। পাশাপাশি অনেক সুযোগ-সুবিধা তারা পাচ্ছেন না। তা নিয়ে বিগত কয়েক মাসে সরব হয়েছে শ্রমিক মহল। তারপরেই কারখানা কর্তৃপক্ষ নতুন করে চুক্তি স্বাক্ষর করল শ্রমিকদের সঙ্গে।

    এ বিষয়ে অভিজিৎ ঘটক জানিয়েছেন, জেলার দায়িত্ব পাওয়ার পর কারখানার শ্রমিকরা তাকে তাদের অভাব-অভিযোগের কথা জানিয়েছিলেন। নতুন চুক্তিতে শ্রমিকদের বেতন বৃদ্ধি সহ একাধিক দাবি নিয়ে কারখানা কর্তৃপক্ষের সঙ্গে নতুনভাবে চুক্তি করা হয়েছে। সেই চুক্তি কারখানা কর্তৃপক্ষ মেনে নিয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি। Nayan Ghosh

    Published by:Shubhagata Dey
    First published:

    Tags: West Bardhaman

    পরবর্তী খবর