হোম /খবর /পশ্চিম বর্ধমান /
আসানসোলের শিক্ষকের সঙ্গে প্রেম বাংলাদেশি তরুণীর, পরের কাণ্ড এককথায় মারাত্মক

Crime: আসানসোলের শিক্ষকের সঙ্গে প্রেম বাংলাদেশি তরুণীর, পরের কাণ্ড এককথায় মারাত্মক

শুরু হয়েছে ঘটনার তদন্ত।

শুরু হয়েছে ঘটনার তদন্ত।

Crime: নিরুপায় ওই তরুণী অভিযোগ দায়ের করেন নিজের দেশের দূতাবাসে

  • Hyperlocal
  • Last Updated :
  • Share this:

দুর্গাপুর: বিশ্বাসের ফল হল ভয়ঙ্কর। বিদেশ থেকে পড়তে এসে শিকার হলেন এক বাংলাদেশি তরুণী। অভিযোগ, বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ এবং আসানসোল মহিলা থানায় অভিযোগ জানিয়েও কোনও লাভ হয়নি তাঁর। শেষমেষ নিরুপায় ওই তরুণী অভিযোগ দায়ের করেন নিজের দেশের দূতাবাসে। তারপর শুরু হয়েছে ঘটনার তদন্ত। ঘটনার বিবরণ জানতে হাজির হয়েছিলেন মহিলা কমিশনের সদস্যরা।

অভিযোগ, আসানসোলের কাজী নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী ওই বাংলাদেশি তরুণীর সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয় এক অধ্যাপক বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে বেশ কয়েক মাস ধরে তাঁর সঙ্গে সহবাস করেছেন। তারপর ঘটনার অভিযোগ জানান বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের কাছে। অভিযোগ জানান, আসানসোল মহিলা থানাতেও। তবে অভিযোগের ভিত্তিতে কোনও সুরাহা হয়নি বলে অভিযোগ বাংলাদেশী ওই তরুণীর।

 

জানা গিয়েছে, বাংলাদেশ থেকে আসা ওই তরুণী কাজী নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি হন। বিশ্ববিদ্যালয়ের পিজি বিভাগের প্রথম বর্ষের ছাত্রী তিনি। তাঁর সঙ্গে প্রনয়ের সম্পর্ক তৈরি হয় বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলার এক অধ্যাপকের। তারপরে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ওই অধ্যাপক তরুণীর সঙ্গে বেশ কয়েক মাস সহবাস করেছেন বলে অভিযোগ। কিন্তু পরে ওই তরুণীর সঙ্গে তিনি দূরত্ব বাড়িয়ে দেন বলে অভিযোগ। প্রতারণার শিকার হয়েছেন বুঝতে পেরে তরুণী প্রথমে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ এবং স্থানীয় প্রশাসনের সাহায্য চান। কিন্তু তাতেও কোনও লাভ হয়নি।

পরেই অন্য পদক্ষেপ করেন বাংলাদেশের এই তরুণী। ঘটনার বিচার পেতে বাংলাদেশের ওই তরুণী যান নিজের দেশের দূতাবাসের কাছে। বাংলাদেশের দূতাবাসে অভিযোগ জানান পোস্ট গ্রেজুয়েশন এর প্রথম বর্ষের ওই ছাত্রী। এরপরেই নড়েচড়ে বসে প্রশাসন। জানা গিয়েছে, গত ১০ এপ্রিল দুর্গাপুর মহিলা থানায় এই বিষয়ে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়। অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে ওই বাংলার অধ্যাপকের নামে।

আরও পড়ুন, দেশের ৮ ব্যাঙ্কের লাইসেন্স বাতিল করল RBI, আপনার অ্যাকাউন্ট এখানে নেই তো

আরও পড়ুন, চ্যাট-কল লিস্ট, সব রহস্য কি প্রবীরের মোবাইলে লুকিয়ে, উত্তর খুঁজছে CBI

লিখিত অভিযোগ দায়ের করার পর ওই ছাত্রীর মেডিক্যাল পরীক্ষাও করা হয়েছে। এদিন শনিবার মহিলা কমিশনের প্রতিনিধিরা ওই তরুণীর সঙ্গে দেখা করেন ঘটনার বিবরণ জানতে। দুর্গাপুরে ওই ছাত্রীর বর্তমান বাসস্থানে ঘটনা জানতে এসেছিলেন মহিলা কমিশনের প্রতিনিধিরা।

Nayan Ghosh

Published by:Suvam Mukherjee
First published:

Tags: Crime