পূজারাকে দেখেই শিখেছি বড় ইনিংস কীভাবে খেলতে হয় : বিরাট

ষষ্ঠ ডাবল সেঞ্চুরি করার পর বিসিসিআই টিভির সাক্ষাৎকারে চেতেশ্বর পূজারার মুখোমুখি হয়েছিলেন কোহলি।

Siddhartha Sarkar | News18 Bangla
Updated:Dec 04, 2017 08:47 AM IST
পূজারাকে দেখেই শিখেছি বড় ইনিংস কীভাবে খেলতে হয় : বিরাট
Photo: PTI
Siddhartha Sarkar | News18 Bangla
Updated:Dec 04, 2017 08:47 AM IST

#নয়াদিল্লি: কোটলায় দ্বিতীয় দিনেও শাসক ভারত। রেকর্ডভাঙা ২৪৩ বিরাটের ব্যাটে। ক্যাপ্টেন হিসেবে ডাবল সেঞ্চুরিতে টপকালেন লারাকে। ছুঁলেন সচিন-বীরুকে। ৪০৫ রানে পিছিয়ে ফলো-অন আতঙ্কে শ্রীলঙ্কা।

এতদিন কোটলার আক্ষেপ ছিল, সারা বিশ্ব শাসন করে এলেও রাজধানীতে চুপ থাকে বিরাটের ব্যাট। তবে রেকর্ডভাঙা ডাবলের জন্য নিজের পাড়াকেই বেছে নিলেন কোহলি। আর অধিনায়কের চওড়া ব্যাটে ভর করেই টেস্টের দ্বিতীয় দিন থেকেই রাজধানীতে জয়ের গন্ধে তেজিয়ান ভারত। উল্টোদিকে ম্যাচের ৩ দিন বাকি থাকতেই চেনা স্ক্রিপ্টে হার বাঁচানোর লড়াইয়ে লঙ্কা। ৭ উইকেটে ৫৩৬-এর পাহাড়ে চড়ে এদিন ডিক্লেয়ার করল বিরাটের ভারত। যার মধ্যে অধিনায়ক একাই ২৪৩। কোহলির ইনিংস আর রেকর্ডের ভাঙাচোরা ইদানিং সমার্থক হয়ে দাঁড়িয়েছে। রবিবারও ব্যতিক্রম নয়। ডাবল সেঞ্চুরির হিসেবে লারাকে টপকে গেলেন অধিনায়ক বিরাট। একইসঙ্গে হাফডজন ডাবলের মালিক হয়ে ছুঁয়ে ফেললেন সচিন, সেহওয়াগকে। আরেকটা দ্বিশতরানই ভারতীয়দের মধ্যে সবার আগে পৌঁছে যাবেন দিল্লির ডানহাতি।

f644796f129b4893811bc13c3dd3bec6-f644796f129b4893811bc13c3dd3bec6-0

রবিবার কোটলায় টেস্টে তাঁর ষষ্ঠ ডাবল সেঞ্চুরি করার পর বিসিসিআই টিভির সাক্ষাৎকারে চেতেশ্বর পূজারার মুখোমুখি হয়েছিলেন কোহলি। পূজারা প্রথমেই জানতে চান, কী ভাবে টানা এ রকম ইনিংস খেলা সম্ভব হচ্ছে ? জবাবে কোহলি বলেন, ‘‘আমি এখন সব সময় বড় ইনিংস খেলার লক্ষ্য নিয়ে নামি। যেটা আমি তোমাকে দেখে শিখেছি। আরও শিখেছি কী ভাবে মনঃসংযোগ ঠিক রাখতে হয়। কী ভাবে বড় ইনিংস খেলতে হয়।’’

4f71164a2c0b4eb784c98c4b46a1ee30-4f71164a2c0b4eb784c98c4b46a1ee30-0

Loading...

শোনা মাত্রই কোহলিকে থামিয়ে দিয়ে পূজারা বলেন, ‘‘ অনেক ধন্যবাদ এ কথা বলার জন্য।’’ কোহলি সঙ্গে সঙ্গে বলে ওঠেন, ‘‘ না, না ধন্যবাদের কিছু নেই। পূজারার মনঃসংযোগ, পূজারার বড় ইনিংস খেলার মানসিকতা আমাকে উদ্বুদ্ধ করে। টিমের জন্য খেলে যেতে হয় বলে ক্লান্তও লাগে না।’’

কোহলির ইনিংসের পাশাপাশি এদিনও ৬৫ করে টাচে থাকার ইঙ্গিত দিল রোহিতের ব্যাট। তবে আফ্রিকান সাফারির আগে শাস্ত্রীদের ড্রেসিংরুমে অস্বস্তি বাড়িয়ে রাখল রাহানের বিভীষিকা ফর্ম। লঙ্কার গ্রাফ অবশ্য ইডেন টেস্টের পর থেকেই পড়তির দিকে। এদিনও শামির প্রথম বলে ঋদ্ধির হাতে জমা পড়লেন করুণারত্নে। ধনঞ্জয়কে তুলে নিল ইশান্তের পেস। আর দিলরুয়ান পেরেরাকে ৪২ রানে ফিরিয়ে দিলেন জাডেজা। সময় সময় এত দুর্বল ব্যাটিং দেখে করুণা হওয়া স্বাভাবিক। দিনের শেষে ম্যাথিউজের নামের পাশে ৫৭ আর চান্দিমলের ২৫। এখনও ৪০৫ রানে পিছিয়ে থাকা লঙ্কার লড়াইটা আরও কঠিন হয়ে যাবে দুই মুর্তি বিদায় নিলেই।

First published: 08:42:18 AM Dec 04, 2017
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर