ইউপিএ চেয়ারপার্সনও কি রাহুল? ২০১৯-এর প্রস্তুতির লক্ষ্যে জল্পনা তুঙ্গে

Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Dec 19, 2017 07:43 PM IST
ইউপিএ চেয়ারপার্সনও কি রাহুল? ২০১৯-এর প্রস্তুতির লক্ষ্যে জল্পনা তুঙ্গে
The further elevation would mean that Rahul would now have to deal with allies directly. File image of Rahul with Sonia Gandhi. (PTI Photo)
Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Dec 19, 2017 07:43 PM IST

#নয়াদিল্লি: গুজরাত ভোটে কংগ্রেসের ফলাফল নতুন প্রশ্ন তুলে দিল। লোকসভা ভোটে বিজেপি বিরোধিতায় ইতিমধ্যেই ইউপিএ থ্রি-র সলতে পাকানো শুরু হয়েছে। সেক্ষেত্রে জোটের চেয়ারপার্সন কে হবেন তা নিয়েই প্রশ্ন উঠে গিয়েছে। দলীয় সংবিধান মেনে ইউপিএ চেয়ারপার্সনের পদও কি রাহুলের হাতেই যেতে চলেছে? সেক্ষেত্রে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়-সহ অন্যান্য বড় শরিকরা কি রাহুলকে স্বীকৃতি দেবেন? এই জল্পনাই এখন বড় হয়ে উঠেছে দিল্লির রাজনীতিতে।

স্থানীয় রাজনৈতিক দলগুলিকে একজোট করে বিজেপিকে টেক্কা দেওয়া। কংগ্রেস এই মডেলে প্রথম সাফল্য পায় বিহার বিধানসভা নির্বাচনে। লালু-নীতীশদের একমঞ্চে এনে প্রাথমিক ভাবে বিজেপিকে কুপোকাৎ করেছিলেন রাহুল গান্ধি। গুজরাতের ফল খতিয়ে দেখে সেই জোটের তাগিদ আরও বেশি করে অনুভব করছে হাতশিবির।

ইউপিএ ৩-র তোড়জোড়

- ২০১৯ সালে লোকসভা নির্বাচনের আগে ইউপিএ ৩-র সলতে পাকানো শুরু হয়েছে

- কাটাছেঁড়ায় দেখা গিয়েছে অন্তত ১৩ আসনে জয়ের জন্য প্রয়োজনীয় ভোট কেটে নিয়েছে একদা ইউপিএ শরিক এনসিপি

Loading...

- এনসিপি-র সঙ্গে কংগ্রেসের জোট থাকলে ওই ১৩ আসন কংগ্রেসের ঝুলিতে আসত

- গুজরাতের ফলাফল সম্পূর্ণ অন্যরকম হত

দলীয় সংবিধান অনুযায়ী, কংগ্রেস সভাপতিই ইউপিএ চেয়ারপার্সন হন। যেমন ছিলেন সোনিয়া গান্ধি। এবার কি দলের সভাপতি হিসেবে ইউপিএ প্রধানের দায়িত্ব রাহুলের কাঁধেই আসছে? কিন্তু, বিহারে মহাজোটের সাফল্য, গুজরাতে কড়া টক্কর দেওয়া ছাড়া তেমন বড়সড় ট্রফি আর নেই কংগ্রেস সভাপতির ঝুলিতে। সেক্ষেত্রে ইউপিএ-র অন্যান্য শরিকরা কি তাঁর নেতৃত্ব মানতে রাজি হবেন? এখন এই প্রশ্নই কংগ্রেস হাইকম্যান্ডের মাথাব্যথা ৷

একসময় ইউপিএ-র বড় শরিক ছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। জাতীয় স্তরে বিজেপি বিরোধিতার প্রধান মুখ তিনিও। গুজরাতে কংগ্রেসের সাফল্যে অভিনন্দন জানিয়েছেন মমতা। কিন্তু, জাতীয় স্তরে জোটের কাণ্ডারী হওয়ার মতো এখনও রাহুল হয়ে ওঠেননি বলেই মত তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রীর।

ইউপিএ-র সঙ্গে জড়িয়ে ছিল সারা দেশের বিভিন্ন অংশের রাজনৈতিক দল। কিন্তু, মোদি বিরোধিতার সুরে রাহুলের সঙ্গে কি সুর মেলাবেন লালুপ্রসাদ যাদব, অখিলেশ সিং যাদব ও মায়াবতীরা? ২০১৯ সালে লোকসভা নির্বাচনের আগে সাধারণ প্রোগ্রামে ভর করে দানা বাঁধতে পারবে বিজেপি বিরোধী জোট? প্রশ্ন থাকছেই।

First published: 07:43:17 PM Dec 19, 2017
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर