উদয়নের বিরুদ্ধে কী কী প্রমাণ পেয়েছে পুলিশ?

উদয়নের বিরুদ্ধে কী কী প্রমাণ পেয়েছে পুলিশ?
  • Share this:

#বাঁকুড়া: আইনের ফাঁক গলে উদয়নের বেরনোর পথ বন্ধ করতে উদ্যোগী তদন্তকারীরা। তথ্যপ্রমাণ বলছে, উদয়নই আকাঙ্খার খুনি। কিন্তু, তাকে খুন করতে দেখেনি কেউই। তাই, সাইকো কিলারকে গোপন জবানবন্দি দেওয়ানোর জন্য উদ্যোগী তদন্তকারীরা। আগামিকালই আদালতে এই আবেদন জানানো হবে। আকাঙ্খা খুনের তদন্তে যা অন্যতম হাতিয়ার।

আকাঙ্খা হত্যা রহস্যের পুরোটাই তদন্তকারীদের সামনে পরিষ্কার। পারিপার্শ্বিক তথ্যপ্রমাণ বলছে, উদয়নই খুনি। তার বিরুদ্ধে আদালতে একাধিক প্রমাণ তুলে ধরবে পুলিশ।

উদয়নের বিরুদ্ধে কী কী প্রমাণ?

- সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ প্রমাণ হতে চলেছে উদয়নের ল্যাপটপ

- এছাড়া আকাঙ্খাকে দেওয়া জাল নিয়োগপত্র

- বাবা-মায়ের জাল পাসপোর্ট ও ডেথ সার্টিফিকেট

- আকাঙ্খা সেজে হোয়াটসঅ্যাপ থেকে উদয়নের পাঠানো মেসেজ

- উদয়নের নিজের মোবাইলের কল ডিটেইলস রেকর্ড

- ব্যাঙ্ক থেকে টাকা সরানোর নানা প্রমাণও পুলিশের হাতে

তবে এই মামলায় উদয়নের গোপন জবানবন্দিই অন্যতম হাতিয়ার।

কেন গোপন জবানবন্দি?      

- যদিও পুলিশের কাছে উদয়ন জবানবন্দি দিয়েছে

- আদালতে প্রমাণ হিসেবে তা গ্রহণযোগ্য নয়

- শুধুমাত্র যে জবানবন্দি থেকে পুলিশ কোনও তথ্য বা প্রমাণ সংগ্রহ করছে তাই আদালতে গ্রাহ্য হবে

- এক্ষেত্রে উদয়নের বক্তব্যে বেদি খুঁড়ে কঙ্কাল উদ্ধারের অংশই শুধুমাত্র গুরুত্বপূর্ণ

- যদিও আকাঙ্খাকে খুনের কোনও প্রত্যক্ষদর্শী নেই

- সেই ফাঁক গলে আইনের হাত থেকে এই সাইকো কিলার বেরিয়ে যাবে না তো?

- সেই রাস্তা বন্ধ করতেই উদয়নের গোপন জবানবন্দি জরুরি

- দণ্ডবিধির ১৬৪ ধারা অনুসারে বিচারকের কাছে দেওয়া এই গোপন জবানবন্দিই মামলার রায় নির্ধারণ করতে পারে

কীভাবে আকাঙ্খা হত্যারহস্যের জাল গোটাল পুলিশ?

যাবতীয় তথ্য-প্রমাণে উদয়নের বিরুদ্ধে তথ্য-প্রমাণ লোপাটের অভিযোগ প্রমাণিত। এখন ডিএনএ রিপোর্ট ও এই গোপন জবানবন্দি দিয়েই তার বিরুদ্ধে খুনের অভিযোগ প্রমাণ করতে চায় পুলিশ।

First published: 08:51:49 AM Feb 15, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर