বাবা সবজি বিক্রেতা, তাই স্কুল ভর্তি নেবে না মেধাবী ছাত্রীর

স্কুল ভর্তিতেও এবার জাতপাত ৷ নীচুজাতের ছাত্রী, তাই স্কুলে ভর্তি নিতে আপত্তি স্কুল কর্তৃপক্ষের ৷

Akash Misra | News18 Bangla
Updated:Apr 22, 2017 11:42 AM IST
বাবা সবজি বিক্রেতা, তাই স্কুল ভর্তি নেবে না মেধাবী ছাত্রীর
Akash Misra | News18 Bangla
Updated:Apr 22, 2017 11:42 AM IST

#বাউড়িয়া: স্কুল ভর্তিতেও এবার জাতপাত ৷ নীচুজাতের ছাত্রী, তাই স্কুলে ভর্তি নিতে আপত্তি স্কুল কর্তৃপক্ষের ৷ ঘটনাটি ঘটেছে, হাওড়া জেলার বাউড়িয়া স্কুলে ৷

বাউড়িয়ার বাসিন্দা অর্পিতা রায় ২০১১-১২ সালে ক্লাস এইট পাশ করে ৷ অর্পিতার বাবা উত্তম রায় সবজি বিক্রেতা ৷ অর্থনৈতিক অনটন থাকায় ক্লাস এইটে পড়াশুনো ছেড়ে দিতে বাধ্য হয় অর্পিতা ৷ তবে ভাইয়ের পড়াশুনো কষ্টের মধ্যে দিয়েই চলতে থাকে ৷ অর্পিতার ভাই এবার মাধ্যমিক দেবে৷ সংসারেও কিছুটা শ্রীবৃদ্ধি ঘটেছে ৷ তাই বাবা উত্তম রায় চান, তাঁর মেধাবী মেয়ে অর্পিতা যেন ফের পড়াশুনো করে ৷ ফের স্কুলে ভর্তি হয় ৷

তবে এই চাওয়াটাই যে তাঁদের কপালে অপমান ডেকে আনবে তা ভাবতেই পারেনি অর্পিতার পরিবার ৷ মেয়েকে নিয়ে বাউড়ি গার্লস হাইস্কুলে পৌঁছয় বাবা উত্তম রায় ৷ প্রধান শিক্ষককে মেয়েকে ভর্তি করার কথা জানালে, প্রধান শিক্ষিকা নাকি বলেন, নীচু জাতের মেয়ে পড়াশুনো করে করবে কি? তার চাইতে বিয়ে দিয়ে দিন !

অর্পিতার বাবা উত্তম রায়ের অভিযোগ, শুধু এই ধরণের মন্তব্যই নয় ৷ নানা বাহানায় স্কুল নাকচ করেছে অর্পিতার ভর্তির ব্যাপারে ৷ এমনকী, অন্য স্কুলেও অর্পিতা ভর্তি হতে পারছে না ৷ কারণ, বাউড়িয়া স্কুল থেকে টিসি জুটছে না ! অপমানিত হয়ে সেদিনই বিডিও, এসডিও, এসডিপিও, পুলিশ সুপার ও জেলাশাসককে চিঠি দেন ৷ তবে স্কুল কর্তৃপক্ষ উত্তম রায়ের এই অভিযোগকে ভ্রান্ত বলে দাবী করেছে ৷

Loading...

First published: 11:42:07 AM Apr 22, 2017
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर