Home /News /uncategorized /
কংগ্রেসের দুই দাপুটে নেতার আগাম জামিনের আবেদন মঞ্জুর করল রায়গঞ্জ আদালত

কংগ্রেসের দুই দাপুটে নেতার আগাম জামিনের আবেদন মঞ্জুর করল রায়গঞ্জ আদালত

মারধর, শ্লীলতাহানি, লাইসেন্সপ্রাপ্ত রিভালবার থেকে গুলি চালানো সহ একাধিক মামলায় অভিযুক্ত কংগ্রেসের দুই দাপুটে নেতা

  • Share this:
    #রায়গঞ্জ: মারধর, শ্লীলতাহানি, লাইসেন্সপ্রাপ্ত রিভালবার থেকে গুলি চালানো সহ একাধিক মামলায় অভিযুক্ত কংগ্রেসের দুই দাপুটে নেতা সন্দিপ বিশ্বাস ও তুষার গুহর আগাম জামিনের আবেদন মঞ্জুর করল রায়গঞ্জ আদালত।গত ১৫ মার্চ রাত ১১.৩০ মিঃ নাগাদ বীরনগর প্রাইমারি স্কুলের সামনে তৃণমূল কংগ্রেসের একটি রক্তদান শিবিরের ফ্লেক্স লাগানোর কাজ করছিলেন জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের সম্পাদক তপন নাগ, দ্বাদশ শ্রেণীর এক ছাত্র প্রিয়ঙ্কর ঘোষ, ২১ নম্বর ওয়ার্ডের মহিলা নেত্রী ইন্দিরা সিংহ সহ আরও কয়েকজন।
    সেই সময় বীরনগরের ওই রাস্তা দিয়ে দ্রুত গতিতে গাড়ি করে আসছিলেন সন্দিপ বিশ্বাস ও তুষার গুহ। অভিযোগ, সেই সময় তৃণমূল কর্মীদের নিজের ওয়ার্ডে ফ্লেক্স ও হোর্ডিং লাগাতে দেখে গাড়ি থেকে নেমে অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করতে শুরু করেন তাঁরা।থানায় অভিযোগকারী যুবক প্রিয়ঙ্কর জানান, আমরা রক্তদান শিবিরের আয়োজন করার কাজ করছিলাম। সেই সময় কাউন্সিলার ও তুষার গুহ গাড়ি থেকে নেমে আমাদেরকে অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করতে শুরু করে। আমি প্রতিবাদ করার জন্য এগিয়ে গেলে আমার জামার কলার ধরে চড়, থাপ্পর, ঘুষি মারতে শুরু করে ওয়ার্ড কাউন্সিলার সন্দিপ বিশ্বাস।
    পাশাপাশি সেখানে উপস্থিত ওয়ার্ড তৃণমূল কংগ্রেসের মহিলা নেত্রী ইন্দ্রানী সিংহকেও গালিগালাজ করা হয়। সেখানে উপস্থিত অন্যান্য মহিলাদের শাড়ি টেনে ছিঁড়েও দেন সন্দিপ বাবু। তুষার গুহ ও সন্দিপ বিশ্বাস দুইজনই আমাকে প্রাণে মেরে ফেলার উদ্দেশ্য নিয়ে বৈধ রিভালবার থেকে গুলিও চালায়। গুলি ও আমাদের চিৎকারের শব্দে বেশকিছু এলাকাবাসী ঘটনাস্থলে হাজির হলে ওই এলাকা থেকে চলে যান তাঁরা। ঘটনার বিবরণ দিয়ে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে বলে জানান তৃণমূল নেতা তপন নাগের অনুগামি প্রিয়ঙ্কর।
    First published:

    Tags: Congress Leader, Raigunj

    পরবর্তী খবর