corona virus btn
corona virus btn
Loading

ফের আউশগ্রামে ছড়াল উত্তেজনা, থানায় আগুন ধরাল বিক্ষোভকারীরা

ফের আউশগ্রামে ছড়াল উত্তেজনা, থানায় আগুন ধরাল বিক্ষোভকারীরা

বিক্ষোভকারীরা ক্ষোভে আগুন ধরিয়ে দেয় থানায় ৷

  • Share this:

#বর্ধমান: ফের জনতা-পুলিশ সংঘর্ষে উত্তাল আউশগ্রাম ৷ শুক্রবারের পর শনিবার জমি দখলকে কেন্দ্র করে নতুন করে উত্তেজনা ছড়ায় আউশগ্রামে ৷ বিক্ষোভকারীরা ক্ষোভে আগুন ধরিয়ে দেয় থানায় ৷ একইসঙ্গে বিক্ষোভকারীদের বিরুদ্ধে পুলিশকে ব্যাপক মারধর করারও অভিযোগ উঠেছে ৷

সরকারি স্কুলের জমি দখলকে কেন্দ্র করে পুলিশ-জনতা সংঘর্ষে উত্তাল বর্ধমানের আউশগ্রাম। স্কুলের জমিতে বেআইনি নির্মাণের প্রতিবাদ করায় পড়ুয়া ও শিক্ষিকাদের মারধর করার অভিযোগ ওঠে পুলিশের বিরুদ্ধে। পাল্টা পুলিশকে মারে ক্ষুব্ধ জনতা। এদিন ফের ওই একই ঘটনায় সরকারি স্কুলের জমি দখলে ‘পুলিশি মদত’-এর অভিযোগে থানা ভাঙচুর চালায় উত্তেজিত জনতা ৷ গতকাল পড়ুয়া ও শিক্ষিকাদের অবস্থান তুলতে পুলিশি মারের প্রতিবাদে পাল্টা পুলিশকে এদিন ব্যাপক মারধর করে জনতা ৷ ক্ষোভ মেটাতে থানার সামনে অস্থায়ী কাঠামোয় আগুনও ধরিয়ে দেন বিক্ষোভকারীরা ৷

শনিবার সকাল থেকে ফের আউশগ্রাম স্কুলের সামনে জড়ো হতে শুরু করেন অভিভাবক এবং স্থানীয় বাসিন্দারা। স্কুলের সামনেই হয় প্রতিবাদ সভা। তারপর অদূরে আউশগ্রাম থানা ঘেরাও করে উত্তেজিত জনতা। ইট-পাথর-লাঠি নিয়ে চড়াও হয় থানায়। বেধড়ক মারধর করা হয় পুলিশ কর্মীদের। পুলিশ ভ্যান, মোটরবাইক ভাঙচুড় করে বিক্ষুব্ধরা। থানার সামনে অস্থায়ী কাঠামোয় আগুনও ধরিয়ে দেওয়া হয়। জনতার বেধড়ক মারে অচৈতন্য হয়ে পড়েন কয়েকজন পুলিশকর্মী। আতঙ্কে সংবাদমাধ্যমের ক্যামেরার সামনেই কেঁদে ফেলেন এক পুলিশকর্মী।

আক্রান্ত এসআই দীপক কুমারের দাবি, ‘প্রায় ২-৩ হাজার লোক একসঙ্গে হামলা চালায় ৷ থানার দরজা বন্ধ করতে গিয়েও পারিনি ৷ মারমুখী জনতা ধাক্কা মেরে ফেলে দেয় ৷ থানার অন্য পুলিশকর্মীদেরও মারধর করা হয় ৷ পুলিশকর্মীরা ভয়ে লুকিয়ে পড়েন ৷ থানার আবসাব ভেঙে গুঁড়িয়ে দেয় হামলাকারীরা ৷’

পুলিশ-জনতা খণ্ডযুদ্ধে আহত আউশগ্রাম থানার আইসি সহ বেশ কয়েকজন পুলিশকর্মী। পরিস্থিতি মোকাবিলায় আশপাশের থানা থেকে বিশাল পুলিশ বাহিনী মোতায়েন করা হয়। নামানো হয় র‍্যাফও। ঘটনাস্থলে পৌঁছন খোদ পুলিশ সুপার। থানায় হামলার পর থেকে আউশগ্রাম কার্যত পুরুষশূন্য। অঘোষিত বনধের চেহারা নিয়েছে আউশগ্রাম বাজার। পুলিশ সূত্রে খবর, হামলায় এলাকার বহু দুষ্কৃতীর পাশাপাশি জড়িত বহিরাগতরাও। ঘটনা খতিয়ে দেখতে আউশগ্রামের দিকে রওনা হয়েছেন বর্ধমান জেলার জেলাশাসক ৷

আউশগ্রাম উচ্চ বিদ্যালয়ের জমিতে বেআইনি নির্মাণের অভিযোগ ওঠে এক সিভিক ভলান্টিয়ারের বিরুদ্ধে। এই নিয়ে পুলিশ ও প্রশাসনের কাছে অভিযোগও জানান গ্রামবাসীরা। তাতে কোনও লাভ না হওয়ায় শুক্রবার আউশগ্রাম থানায় ডেপুটেশন দিতে যায় স্কুলের শিক্ষক ও পড়ুয়ারা। সেই সময় তাদের ব্যাপক মারধর করা হয় বলে অভিযোগ। আহত হন বেশ কয়েকজন পড়ুয়া। কয়েকজন শিক্ষককে আটকও করে রাখা হয় বলে অভিযোগ।

ঘটনার প্রতিবাদে গুসকরা-ইলামবাজার রোড অবরোধ করে উত্তেজিত জনতা। অবরোধ তুলতে গিয়ে পুলিশ লাঠিচার্জ করলে পরিস্থিতি অগ্নিগর্ভ হয়ে ওঠে। কার্যত পুলিশ জনতা খণ্ডযুদ্ধ বেধে যায়। জনতার রোষের সামনে পড়ে তখনকার মত পিছু হটতে হয় পুলিশকে।

First published: January 28, 2017, 5:43 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर