দার্জিলিঙে বড়দিনের ছুটির আকর্ষণ বাড়িয়ে ফের যাত্রা শুরু টয় ট্রেনের

দার্জিলিঙে বড়দিনের ছুটির আকর্ষণ বাড়িয়ে ফের যাত্রা শুরু টয় ট্রেনের

Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Dec 15, 2017 05:55 PM IST
দার্জিলিঙে বড়দিনের ছুটির আকর্ষণ বাড়িয়ে ফের যাত্রা শুরু টয় ট্রেনের
File Photo
Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Dec 15, 2017 05:55 PM IST

#দার্জিলিং: ছন্দে ফেরা পাহাড় ফের শুনল কু ঝিকঝিক। আক্ষরিক অর্থেই রাজকীয় প্রত্যাবর্তন আয়রন লেডির । প্রায় ছ মাস পর ফের পাহাড়ে পাকদন্ডি বেয়ে পথ চলা শুরু করল হেরিটেজ টয় ট্রেন। বর্ষশেষের উৎসবের মরশুমে ফের এনজেপি-দার্জিলিং টয়ট্রেন পরিষেবা চালুর সিদ্ধান্ত নেয় দার্জিলিং হিমালয়ান রেলওয়ে।

সেই কু-ঝিকঝিক শব্দ। ধীর লয়ে, হেলে-দুলে , গড়িয়ে-গড়িয়ে , পাহাড়ের পর পাহাড় ডিঙিয়ে অনন্ত সময় ধরে ঘরবাড়ি, নীল আকাশ দেখতে দেখতে কুইন অফ হিলসে পৌঁছে যাওয়া। দার্জিলিঙ মানে অনেক স্মৃতির সঙ্গে আস্টেপৃষ্ঠে জড়িয়ে টয়ট্রেন। প্রায় ছমাস পর ফের পাহাড়ের পাকদন্ডী পেয়ে হেরিটেজ ট্রেন।

৮ জুন

রাজ্য মন্ত্রিসভার বৈঠকের দিন থেকেই টয়ট্রেন চলাচলে সমস্যা শুরু হয়।

৯ জুন

Loading...

শুরু হয় বনধ । সম্পূর্ণভাবে বন্ধ হয়ে যায় টয়ট্রেন। অশান্তির আঁচ এসে পড়ে হেরিটেজ ট্রেনের উপরও। হেরিটেজ কামরা জুড়ে বনধের সমর্থনে পোস্টার পড়ে। আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয় সোনাদা, গয়াবাড়ি স্টেশনে। রক্ষা পায়নি কার্শিয়ঙে টয়ট্রেনের শতাব্দী প্রাচীন সদর দফতরও। টয়ট্রেনের হেরিটেজ সংস্কৃতি নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করে। দুর্গাপুজোর সময় থেকেই বদলায় পরিস্থিতি। ট্র্যাক মেরামতির কাজ শুরু হয়।

২৮ অক্টোবর

দার্জিলিং থেকে ঘুম পর্যন্ত ছোটে টয়ট্রেন। তখনও লাইনের বেশ কয়েকটি জায়গা ক্ষতিগ্রস্থ ছিল। অবশেষে সব বাধা কাটিয়ে শুক্রবার থেকে পাহাড়ে পথে আয়রন লেডি। প্রচার না থাকায় প্রথমদিন এনজেপি থেকে কোনও যাত্রী ছিল না । দুটি হনিমুন কাপল ওঠে শিলিগুড়ি জংশন থেকে । ভিন রাজ্য থেকে পাহাড়ে বেড়াতে এসে এই উপরি পাওনায় দ্বিগুণ রোম্যান্স।

বর্ষশেষের উৎসবের মরশুমে পর্যটক আকর্ষণ বাড়াতে প্রতিদিন চলবে এনজেপি-দার্জিলিং টয়ট্রেন। আজও অনেকের কাছে দার্জিলিং মানে সিনেমার পর্দায় দেখা টয়ট্রেনের অমোঘ আকর্ষণ। এদিন থেকে ফের শ্বেতশুভ্র কাঞ্চনজঙ্ঘা দেখা যাবে কু-ঝিকঝিক আওয়াজে মুখরিত স্বপ্নের টয় ট্রেন সফরে।

First published: 05:55:25 PM Dec 15, 2017
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर