Football World Cup 2018

নৃশংসভাবে খুন তৃণমূলের অঞ্চল সভাপতি, কুপিয়ে-উপড়ে নেওয়া হল চোখ

Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Dec 13, 2017 06:01 PM IST
নৃশংসভাবে খুন তৃণমূলের অঞ্চল সভাপতি, কুপিয়ে-উপড়ে নেওয়া হল চোখ
Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Dec 13, 2017 06:01 PM IST

 #কেশিয়াড়ি: পশ্চিম মেদিনীপুরের কেশিয়াড়িতে নৃশংসভাবে খুন তৃণমূল অঞ্চল সভাপতি। কুপিয়ে খুনের পর উপড়ে নেওয়া হয় তাঁর চোখ। আজ সকালে পায়ে তিরবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার হয় ঝাড়েশ্বর সাঁতরার দেহ। এরপরই উত্তেজনা ছড়ায় এলাকায়। বিজেপির বিরুদ্ধে খুনের অভিযোগ এনে দফায় দফায় পথ অবরোধ করেন তৃণমূল কর্মীরা। অভিযুক্তদের গ্রেফতারের দাবিতে থানা ঘেরাও করে চলে বিক্ষোভ। যদিও অভিযোগ অস্বীকার করেছে বিজেপি।

কেশিয়াড়ির ডাডরা গ্রামের বাসিন্দা মৃত্যুঞ্জয় ওরফে ঝাড়েশ্বর সাঁতরা স্থানীয় ৬ নম্বর অঞ্চল তৃণমূলের সভাপতি ছিলেন। মঙ্গলবার রাতে দলীয় বৈঠকে অংশ নিতে নচিপুরে যান তিনি। সেখান থেকে রাত আটটা নাগাদ বাইকে করে বাড়ি ফিরছিলেন ঝাড়েশ্বর। অভিযোগ,

ভসরাঘাটে ঢোকার সময় তাঁর ওপর চড়াও হয় সশস্ত্র দুষ্কৃতীর দল। তাঁকে লক্ষ করে তির ছোড়া হয়। পায়ে তির লাগায় বাইক থেকে পড়ে যান তিনি। মাথায় ধারালো অস্ত্র দিয়ে একাধিকবার কোপানো হয়। এরপর তাঁর চোখ উপড়ে নেওয়া হয় বলে অভিযোগ। খুনের পর রাস্তার ধারে ফেলে দেওয়া হয় দেহ।

সকালে দেহ উদ্ধারের পরই উত্তেজনা ছড়ায় এলাকায়। বিজেপির বিরুদ্ধে খুনের অভিযোগ এনে দফায় দফায় চলে রাস্তা অবরোধ।

দোষীদের অবিলম্বে গ্রেফতারের দাবিতে কেশিয়াড়ি থানা ঘেরাও করেন তৃণমূল কর্মীরা। পুলিশের সঙ্গে ধস্তাধস্তি বাধে বিক্ষোভকারীদের।

এরপর কেশিয়াড়ি বাসস্ট্যান্ডের সামনে বিজেপির পতাকা পুড়িয়ে বিক্ষোভ দেখান তৃণমূল কর্মীরা। যদিও খুনের অভিযোগ অস্বীকার করেছে বিজেপি নেতৃত্ব। তাদের দাবি, তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের জেরেই এই ঘটনা। উত্তেজনা থাকায় এলাকায় মোতায়েন রয়েছে পুলিশ।

First published: 05:58:00 PM Dec 13, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर