লেটেস্ট প্রসেসর, 120Hz রিফ্রেশ রেট ডিসপ্লে-সহ আগামী সপ্তাহে লঞ্চ হবে Mi 11 আর Mi 11 Pro

লেটেস্ট প্রসেসর, 120Hz রিফ্রেশ রেট ডিসপ্লে-সহ আগামী সপ্তাহে লঞ্চ হবে Mi 11 আর Mi 11 Pro
Tech Summit 2020-তে শাওমি তাঁদের পরবর্তী ফ্ল্যাগশিপ ফোন Mi 11 এবং Mi 11 Pro-কে লঞ্চ করতে পারে

Tech Summit 2020-তে শাওমি তাঁদের পরবর্তী ফ্ল্যাগশিপ ফোন Mi 11 এবং Mi 11 Pro-কে লঞ্চ করতে পারে

  • Share this:

    শাওমি (Xiaomi) তাঁদের পরবর্তী ফ্ল্যাগশিপ ফোন Mi 11 এবং Mi 11 Pro-এর ওপর কাজ শুরু করে দিয়েছে। কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন Tech Summit 2020-তে শাওমি তাঁদের এই ফ্ল্যাগশিপ ফোনগুলিকে লঞ্চ করতে পারে। ডিসেম্বর মাসের প্রথম সপ্তাহে এই টেক সামিটের অনুষ্ঠিত হবে। এই ইভেন্টে কোয়ালকম, চিপ তৈরির দিগ্গজ কোম্পানি তাদের শীর্ষ স্তরের চিপসেট - স্ন্যাপড্রাগন ৮৭৫ কে সামনে আনবে। সেই সঙ্গে এই ইভেন্টে অনেক নেক্সট জেনরেশনের ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোনও লঞ্চ করা হবে, যার মধ্যে রয়েছে শাওমির এমআই ১১ সিরিজও।

    শাওমির আসন্ন দুটি ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোন Mi 11 এবং Mi 11 Pro এখনও অফিশিয়াল হয়নি, তবে এই ফোন দুটিকে নিয়ে প্রচুর গুজব এবং রিপোর্টও প্রকাশিত হয়েছে। কিছু দিন আগেই, XDA ডেভেলপার একটি রিপোর্টে টিপস্টার Digital Chat Station-এর রিপোর্ট শেয়ার করেছিল যাতে ফোনের বেশ কয়েকটি নতুন তথ্য প্রকাশ করেছে। টিপস্টার অনুযায়ী, Mi 11 Pro-তে থাকবে QHD+ রেজোলিউশন প্যানেল ডিসপ্লে।

    টিপস্টার জানিয়েছেন, Xiaomi Mi 11 Pro ফোনে হোল পাঞ্চ ও কার্ভড এজ যুক্ত কোয়াডএইচডি প্লাস ডিসপ্লে ব্যবহার করা হবে। ফোনের ডিসপ্লের রিফ্রেশ রেট হবে ১২০ হার্টজ। উল্লেখযোগ্য, Oppo Find X2 আর OnePlus 8 Pro-তে ডিসপ্লের রিফ্রেশ রেট ১২০ হার্টজ। Mi 11 Pro-তে কিছু ফিচার্স MIUI 12 বিটা কোডও সাপোর্ট করবে। এতে MEMC, SDR-to-HDR আপম্যাপিং আর AI অ্যাপস্কেলিংও রয়েছে।


    পূর্বে কিছু রিপোর্টে দাবি করা হয়েছিল, Mi 11 ফোনটির পিছনে কোয়াড ক্যামেরা সেটআপ দেওয়া হতে পারে। যার মধ্যে থাকবে ৫০ মেগাপিক্সেলের প্রাইমারি ক্যামেরা দেওয়া হবে। সঙ্গে থাকতে পারে ১২ মেগাপিক্সেলের টেলিফটো সেন্সর। জানা গিয়েছে যে Mi 11 Pro-এর ক্যামেরা সামনের অবজেক্টকে সহজেই ডিটেক্ট করতে সক্ষম হবে।

    গিকবেঞ্চে RMX2194 মডেল নাম্বারযুক্ত Mi 11 ফোনটিকে কোয়ালকমের স্ন্যাপড্রাগন ৮৭৫ চিপসেট, এবং ৬ জিবি র‌্যামের সাথে অর্ন্তভুক্ত করা হয়েছিল। এটি অন্য র‌্যাম ভ্যারিয়েন্টেও উপলব্ধ হবে এবং Mi 11 সিরিজের দুটি ফোনেই একই চিপসেট থাকবে বলে অনুমান করা যায়। গিকবেঞ্চ থেকেও এও জানা গেছে যে, ফোনদুটি অ্যান্ড্রয়েডের লেটেস্ট ১১ ভার্সনে চলবে।

    গিকবেঞ্চে Mi 11 সিঙ্গেল কোর টেস্টে ১১০৫ পয়েন্ট এবং মাল্টি কোর টেস্টে ৩৫১২ পয়েন্ট স্কোর করেছিল। শোনা যাচ্ছে যে, Mi 11 ফোনটিতে ১১০ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট থাকতে পারে। আর অন্যদিকো Mi 11 Pro-তে ১২০ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্টের সঙ্গে আসতে পারে।

    Published by:Ananya Chakraborty
    First published: