প্রযুক্তি

corona virus btn
corona virus btn
Loading

সাসপেন্ড হয়ে গিয়েছে Facebook ও Twitter অ্যাকাউন্ট? এইভাবে করে নিন আবার অ্যাক্টিভেট

সাসপেন্ড হয়ে গিয়েছে Facebook ও Twitter অ্যাকাউন্ট? এইভাবে করে নিন আবার অ্যাক্টিভেট

বন্ধ হয়ে গিয়েছে Facebook ও Twitter অ্যাকাউন্ট? কী করবেন দেখে নিন

  • Share this:

#নায়াদিল্লি: মাইক্রোব্লগিং সাইট ট্যুইটার আর সোশ্যাল মিডিয়া জায়েন্ট ফেসবুকে নিয়ে প্রায় দিন খবর আসে যে কোম্পানি কিছু ব্যবহারকারীদের অ্যাকাউন্ট সাসপেন্ড করে দিয়েছে। এরই মধ্যে US Election-কে নিয়ে ট্যুইটার আর ফেসবুকে যে সব ভুল ও বিভ্রান্তিকর তথ্য আর খবর ছড়ানো জন্য বেশ কয়েকটি অ্যাকাউন্ট স্থগিত করা হয়েছে। অনেক সময় আমরা এটা বোঝা যায় না যে ট্যুইটার আর ফেসবুকের মতো প্লাটফর্ম ব্যবহারকারীদের অ্যাকাউন্ট ঠিক কি কারণে স্থগিত করা হয়েছে ? সেই সঙ্গে অনেক বার মনে এমনও প্রশ্ন ওঠে যে যদি কখনও ফেসবুক আর ট্যুইটার অ্যাকাউন্ট স্থগিত হয় যায় তো কি করা উচিত...

ট্যুইটারের Help page থেকে জানা গিয়েছে যে ব্যবহারকারীদের সুরক্ষিত নিরাপদ পরিবেশ দেওয়ার জন্য ট্যুইটার বেশ কয়েকটি পলিসি বানিয়েছে। যদি এই নিয়মগুলি অনুসরণ না করা হয়, ট্যুইটার যে কারও অ্যাকাউন্ট স্থগিত করতে পারে।

Spam হলে ...

ট্যুইটার দ্বারা স্থগিত করা বেশিরভাগ অ্যাকাউন্টগুলিই স্প্যাম। সোজা কথায় ট্যুইটার এ জাতীয় অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেয়, যা ভুয়ো এবং অন্যান্য ব্যবহারকারীর সুরক্ষার জন্য ক্ষতিকারক হয়ে উঠতে পারে।

হ্যাক হওয়া অ্যাকাউন্টও স্থগিত করা হতে পারে

ট্যুইটারের নীতি এবং নিয়ম অনুসারে, কোনও সাধারণ অ্যাকাউন্ট হ্যাক হওয়ার সন্দেহ সাসপেন্ড করা যেতে পারে। এমন অ্যাকাউন্ট ব্যবহারকারীর সুরক্ষার জন্য স্থগিত করা হয়। তবে, যদি অ্যাকাউন্টের মালিক চান, তবে তিনি সুরক্ষা প্রক্রিয়াটি পুরো করে অ্যাকাউন্টটি রিকভার করতে পারবেন।

আপত্তিকর ট্যুইট এবং আচরণ

আপত্তিজনক বা বিভ্রান্তিকর কিছু ট্যুইট করলে আপনার অ্যাকাউন্ট স্থগিত করতে পারে ট্যুইটার। আপনার কোনও ট্যুইটে যদি অনান্য ইউজাররা অভিযোগ করেন, আহলে রিভিউয়ের পরে আপনার অ্যাকাউন্ট বন্ধ করা হতে পারে। কোনও ইউজারকে হুমকি দিলে, আপত্তিজনক ভাষা বললে, বা সংবেদনশীল / ব্যক্তিগত ছবি এবং তথ্য ট্যুইটারে শেয়ার করলে ট্যুইটার আপনার অ্যাকাউন্টটি বন্ধ করতে পারে।

স্থগিত করা অ্যাকাউন্টটি কি আবার সক্রিয় করা যায়?

আপনি নিজেই আপনার অ্যাকাউন্ট অ্যাক্টিভেট করতে পারেন - অ্যাকাউন্টে login করার পর আপনাকে যদি ফোন নাম্বার বা ইমেল আইডি কোনফর্ম করতে বলে, তাহলে স্ক্রিনে দেওয়া ইন্সট্রাকশনগুলিকে ফলো করে নিজের অ্যাকাউন্ট unsuspend করতে পারেন।

যদি আপনার কাছে আপনার আকাউন্ট লক হওয়ার মেসেজ আসে তাহলে কি করবেন?

আপনার অ্যাকাউন্ট কোনও স্প্যাম বা আপত্তিজনক আচরণের রিপোর্টের কারণে সাময়িকভাবে Disable করা হতে পারে। উদাহরণস্বরূপ, আপনি নির্ধারিত সময় পর্যন্ত কোনও ট্যুইট পোস্ট করতে পারবেন না। বা এম্ন হয়ে পারে যে আপনার থেকে আপনার সম্পর্কে কিছু তথ্য যাচাই করতে বলা হতে পারে।

Appeal File করুন

আপনি আপনার স্থগিত অ্যাকাউন্টটিকে আবার শুরু করতে পারেন, আর যদি উপরে দেওয়া পদ্ধতির কোনওটিই কাজ না করে, তাহলে এর জন্য আপনাকে আবেদন করতে হবে। ট্যুইটারের পেজে দেওয়া লিঙ্কটিতে গিয়ে, আপনাকে একটি আবেদন ফর্ম ভরতে হবে আরও পদ্ধতি অনুসরণ করতে হবে। আপনার প্রোফাইল থেকে আপত্তিজনক ট্যুইটগুলি সরানোর পর ট্যুইটার আপনার অ্যাকাউন্টটি ফের চালু করে দেবে।

ফেসবুক অ্যাকাউন্ট Disable হলে কি করবেন?

আপনার যদি মনে হয় যে আপনার অ্যাকাউন্টটি ভুল বশত Disable হয়েছে তো আপনাকে একটি ফর্ম ভরতে হবে। তারপর Review Request করতে হবে। ফেসবুক বলেছে, 'মনে রাখবেন যে কিছু ক্ষেত্রে এটি সম্ভব যে আমরা আপনার অ্যাকাউন্টটি Disable করার আগে কোনও সতর্কতা জারি করি না'। ফেসবুক আরও বলেছে যে, তাঁরা এমন কোনও অ্যাকাউন্ট রিস্টোর করে না যার ফেসবুক কমিউনিটি স্ট্যান্ডার্ডের মারাত্মক লঙ্ঘনের কারণে Disable করা হয়েছে।

Published by: Ananya Chakraborty
First published: November 4, 2020, 1:47 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर