হোম /খবর /প্রযুক্তি /
প্রথমবার গাড়ি কিনছেন? মাথায় রাখুন এই বিষয়গুলি!

প্রথমবার গাড়ি কিনছেন? মাথায় রাখুন এই বিষয়গুলি!

আসুন দেখে নেওয়া যাক, প্রথমবার গাড়ি কিনতে গেলে, কী কী বিষয় মাথায় রাখা দরকার!

  • Last Updated :
  • Share this:

#নয়াদিল্লি: এই উৎসবের মরশুমে একাধিক চোখধাঁধানো অফার নিয়ে হাজির হয়েছে গাড়িপ্রস্তুতকারী সংস্থাগুলি। আর এই সময়টায় অনেকেই বাড়িতে নতুন অতিথি নিয়ে আসতে চান। কিনতে চান তাঁদের পছন্দের গাড়ি। তবে যাঁরা প্রথমবার গাড়ি কিনছেন, তাঁদের জন্য বিষয়টা একটু চাপের। বাজেট থেকে শুরু করে নানা পরিকল্পনা করতে হয় তাঁদের। আসুন দেখে নেওয়া যাক, প্রথমবার গাড়ি কিনতে গেলে, কী কী বিষয় মাথায় রাখা দরকার!

বাজেট ও ফিনান্সিংসবার আগে নিজের বাজেট নিয়ে নিশ্চিত হন। তা হলে কম সময় লাগবে। বাজেটের মধ্যেই নির্দিষ্ট সংখ্যক মডেল বেছে নিন। এ জন্য একাধিক গাড়ি দেখারও প্রয়োজন পড়বে না। গাড়ি কিনতে গিয়ে নগদ টাকা মিটিয়ে দিলে সব চেয়ে ভালো হয়। তবে এককালীন এত টাকাও একটা বড় ব্যাপার! তাই এখানেই ফিনান্সের প্রয়োজনীয়তা রয়েছে। ভালো করে খতিয়ে দেখে ফিনান্স অপশনগুলি বেছে নিন। গাড়ির সমস্ত অফারও খুঁটিয়ে দেখুন।

কেন কিনছেন গাড়ি?গাড়ি কেনার কি প্রয়োজন? এই বিষয়টিকে সবার আগে চিহ্নিত করতে হবে। আপনার রোজকার প্রয়োজনে, অফিস যেতে কতটা পথ ট্র্যাভেল করতে হচ্ছে আপনাকে কিংবা শুধু অ্যাডভেঞ্চার করার জন্য গাড়ি কিনছেন কি না- সেই বিষয়টি ভালো করে দেখে নিন। তার পর মাইলেজ অনুযায়ী বাজেটের মধ্যে কয়েকটি মডেল বেছে নিন।

যথাযথ রিসার্চএকবার বাজেট ঠিক হয়ে গেলে, আপনার পছন্দের গাড়ির জন্য ভালো করে রিসার্চ ওয়ার্ক সেরে ফেলুন। অনলাইনে-অফলাইনে সর্বত্র গাড়িটির নানা ফিচার নিয়ে পড়াশোনা করে ফেলুন। প্রয়োজনে স্থানীয় কোনও ডিলারসশিপের সঙ্গে কথা বলে নিন।

ফিনান্সগাড়ি কেনার জন্য নিজের কাছে যদি পর্যাপ্ত নগদ টাকা না থাকে, তা হলে অনেকই ফিনান্সের পথে হাঁটেন। এ ক্ষেত্রে বহু ব্যাঙ্ক, থার্ড পার্টি ক্রেডিট এজেন্সি নানা ধরনের ফিনান্স অপশন ও লোনের পরিষেবা দেন। তাই গাড়ি কেনার জন্য ফিনান্সিংয়ের বিষয়টিও মাথায় রাখুন।

নিজের ক্রেডিট স্কোর বাড়ানযদি আপনি ব্যাঙ্ক থেকে লোনের কথা ভাবছেন, তা হলে ক্রেডিট স্কোর কিন্তু খুব গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। এটি আপনার সুদ দেওয়ার বিষয়টি নির্ধারণ করে। ঠিকঠাক সুদের হার পেতে সাহায্য করে এই ক্রেডিট স্কোর। তাই ক্রেডিট স্কোরের বিষয়টি মাথায় রাখুন।

সেকেন্ড-হ্যান্ড গাড়িও দেখতে পারেনযাঁরা প্রথমবার গাড়ি কিনছেন, তাঁদের জন্য সেকেন্ড-হ্যান্ড গাড়িও ভালো অপশন হতে পারে। বাজেটের মধ্যেও হয়ে যাবে। আশেপাশের ডিলারশিপের সঙ্গে কথা বলুন। অনেক ডিলারশিপই ৩-৫ বছরের পুরনো গাড়ি ঠিকঠাক দামে বিক্রি করার অফার দেন। গাড়িগুলির ডিজাইন, সেফটি ও টেকনিক্যান ফিচারও আপনার নজর কাড়বে।

টেস্ট ড্রাইভনিজের বাজেট ও পছন্দমতো কয়েকটি মডেল বেছে নিন। এর পর একটা টেস্ট ড্রাইভ কিন্তু মাস্ট। এ নিয়ে ইতস্তত বোধ করার কোনও জায়গা নেই। ভালো করে দেখে নিন গাড়ির পারফরম্যান্স। ডিলারদের সঙ্গে কথা বলে টেস্ট ড্রাইভ অ্যাপয়েন্টমেন্ট বুক করে নিন। টেস্ট ড্রাইভ শেষে পছন্দের মডেলগুলির মধ্যে তুলনা করুন। সেরাটা বেছে নিন।

ভালো করে দর-দাম করুনভালো করে গাড়িটির দর-দাম করে নিন। এতে কোনও রকম দ্বিধা করবেন না। কারণ পুরোটাই ব্যবসা। এ ক্ষেত্রে গাড়ি কেনার সময় ডিলারশিপ বা সংশ্লিষ্ট বিক্রেতাদের সঙ্গে সবিস্তারে আলোচনা করে নিন। সমস্ত শর্তাবলী, চুক্তিপত্র, ওয়ারেন্টির কাগজপত্র খুঁটিয়ে পড়ার পাশাপাশি গাড়ির ঠিক দর-দামটা করাটাও প্রয়োজনীয়।

গাড়ির পরীক্ষা-নিরীক্ষাযদি আপনি কোনও বন্ধু বা আত্মীয় বা কোনও ডিলারশিপের কাছ থেকেও সেকেন্ড-হ্যান্ড গাড়ি কেনেন, তা হলে গাড়িটির পারফরম্যান্স সম্পর্কে যাবতীয় পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে নিন। প্রয়োজনে কোনও বিশেষজ্ঞের কাছ থেকে পরামর্শ নিন। অনেক অটোমেকানিক দোকানই এই প্রি-পারচেজ ইনস্পেকশনের পরিষেবা দিয়ে থাকেন। তাদের সাহায্য নিন।

নতুন গাড়ি উপভোগ করুনউপরোক্ত সব বিষয়গুলি যথাযথ ভাবে সম্পন্ন হলে, শেষমেশ চূড়ান্ত সিদ্ধান্তের জন্য নিজেকে একটু সময় দিন। এর পর সুযোগ বুঝে চটপট কিনে ফেলুন গাড়ি। আর পরিবারের লোকজনকে নিয়ে পাড়ি দিন গন্তব্যে।

Published by:Dolon Chattopadhyay
First published:

Tags: Car Buyers