corona virus btn
corona virus btn
Loading

ফিরছে PUBG ? টেনসেন্ট কে ভারতের দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দিচ্ছে পাবজি কর্পোরেশন

ফিরছে PUBG ? টেনসেন্ট কে ভারতের দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দিচ্ছে পাবজি কর্পোরেশন

PC বা কনসোল থেকে এখনও খেলা যাচ্ছে PUBG

  • Share this:

PUBG Banned: গত বুধবার, ২ সেপ্টেম্বর, PUBG-সহ ১১৮টি চিনা অ্যাপ নিষিদ্ধ করেছিল ভারত সরকার। তার পর গুগল প্লে স্টোরে আর অ্যাপেলএর অ্যাপ স্টোর থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছিল PUBG Mobile ও PUBG Mobile Lite কে। তবে PC বা কনসোল থেকে এখনও খেলা যাচ্ছে PUBG। ভারত সরকার কেবল টেনসেন্টের মালিকানাধীন গেমটির মোবাইল ভার্সনগুলিকে।

PUBG Corporation একটি স্টেটমেন্ট জারি করেছে, তাঁরা ভারতে পাবজি মোবাইলের সমস্ত দায়িত্ব Tencent Games থেকে নিয়ে নিচ্ছে। এরফলে ভারতে পাবজি মোবাইলের সমস্ত কিছুর দায়িত্বে থাকবে দক্ষিণ কোরিয়ার কোম্পানি পাবজি কর্পোরেশনের। তাঁরা আশা করছে যে এর ফলে ভারত সরকার পাবজি পিসি-র মত পাবজি মোবাইলকেও খেলার অনুমতি দেবে।

PUBG Corp তাঁদের ওয়েবসাইটে লিখেছে, ‘পাবজি কর্পোরেশন ভারতের সমস্ত পাবলিশিং রেসপনসিবিলিটি টেনসেন্ট গেমস থেকে অধিগ্রহণ করবে’। এছাড়াও তারা জানিয়েছে, ‘সংস্থাটি অদূর ভবিষ্যতে ভারতের জন্য নিজস্ব পাবজি অভিজ্ঞতা সরবরাহ করার উপায়গুলি আবিষ্কার করার চেষ্টায় আছে। পাবজি তাদের অনুরাগীদের জন্য স্থানীয় এবং স্বাস্থ্যকর গেমপ্লে পরিবেশ বজায় রাখতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ’।

এখনও পর্যন্ত গেমে কোনও অ্যাপ ব্যান সংক্রান্ত নোটিফিকেশন পাওয়া যায় নি। কিন্তু আর কিছু দিনের মধ্যেই PUBG Mobile এবং PUBG Mobile Lite গেমদুটির সার্ভার অ্যাক্সেস ব্লক হয়ে যাবে এটা নিশ্চিত। এখনও এটাও স্পষ্ট নয় যে আগামী দিনে Express VPN বা Nord VPN ব্যবহার করে এই গেম দুটি খেলা যাবে কিনা।

অ্যাপ নিষিদ্ধ করার পর সরকারের তরফে জানানো হয় যে, এই ১১৮ টি মোবাইল অ্যাপ হল ‘ভারতের সার্বভৌমত্ব ও অখণ্ডতা, ভারতের প্রতিরক্ষা, রাষ্ট্রীয় সুরক্ষা এবং গণ-শৃঙ্খলা রক্ষার জন্য হানিকর'। লাদাখে চিনের সঙ্গে নতুন করে উত্তেজনা বাড়ার পরই এই পদক্ষেপ নেয় ভারত সরকার৷ ভারতে প্রায় ৩ কোটি ৩০ লক্ষ PUBG ব্যবহারকারী ছিল৷

একটি বিবৃতিতে বলা হয় যে, এই মোবাইল গেমটিকে তথ্য প্রযুক্তি আইনের ৬৯এ ধারায় নিষিদ্ধ করা হয়েছে। এই সিদ্ধান্তটি ভারতীয় সাইবারস্পেসের সুরক্ষা, এবং সার্বভৌমত্ব নিশ্চিত করার লক্ষ্যে একটি পদক্ষেপ।

গত ২৯ জুন টিকটক UC Browser, CamScanner-সহ ৫৯টি চিনা অ্যাপ নিষিদ্ধ করে ছিল ভারত সরকার। তারপর জুলাই মাসে ফের ৪৭টি চিনা অ্যাপ নিষিদ্ধ করে সরকার। এই ৪৭টি চিনা অ্যাপের সুরক্ষা ও গোপনীয়তা যাচাই করার পর ওই সিদ্ধান্ত নিয়েছে টেলিকম মন্ত্রক। বিভিন্ন রিপোর্ট অনুযায়ী, আগে নিষিদ্ধ হওয়া ৫৯টি অ্যাপের ক্লোন হিসাবে কাজ করছিল এই ৪৭টি অ্যাপ।

Published by: Ananya Chakraborty
First published: September 8, 2020, 1:56 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर