প্রযুক্তি

corona virus btn
corona virus btn
Loading

বাইক-প্রেমীদের জন্য সুখবর ! সস্তায় বাজারে এল TVS Apache RTR 200 4V ! ফিচার ও দাম জানুন !

বাইক-প্রেমীদের জন্য সুখবর ! সস্তায় বাজারে এল TVS Apache RTR 200 4V ! ফিচার ও দাম জানুন !

মোট তিনটি কালার অপশনে পাওয়া যাচ্ছে এই বাইক।

  • Share this:

উৎসবের মরশুমে বাইকপ্রেমীদের জন্য সুখবর। দেশের বাজারে এল TVS Apache RTR 200 4V। সম্প্রতি এই আপডেটেড মডেল লঞ্চ করল TVS Motor কোম্পানি। গাড়িপ্রস্তুতকারী সংস্থার তরফে জানানো হয়েছে, এই বাইক পাওয়া যাবে ১.৩১ লক্ষ টাকায়। বাইকের ডিজাইন ও ফিচার সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নিন।

নতুন Apache RTR 200 4V বাইকে হার্ডওয়্যারের ক্ষেত্রে বেশ পরিবর্তন আনা হয়েছে। এই গাড়ির থ্রি স্টেজ রিচ অ্যাডজাস্টেবল ব্রেক লিভার ও ক্লাচ লিভার ভালো করে ডিজাইন করা হয়েছে। আগের মডেলের থেকে এক কেজি হালকা এই বাইক। বাইকের ১৯৭.৭৫ cc সিংগল সিলিন্ডার ও ৪ ভাল্ভ ওয়েল কুলড ইঞ্জিন ২০.৮ PS ও ১৭.২৫ nm টর্ক পর্যন্ত ক্ষমতা সরবরাহ করতে পারে। এই রেস টিউনড ফুয়েল ইনজেকশন বা RT-Fi ইঞ্জিনে রয়েছে ফাইভ স্পিড গিয়ারবক্স।

TVS Apache RTR 200 4V বাইকে তিন ধরনের রাইডিং মোড থাকছে। এগুলি হল স্পোর্ট (sport) , আরবান (urban) ও রেন (rain)। হ্যান্ডেলবারের ডান দিকের সুইচ ক্লাস্টারের কাছে প্রতিটি মোডের জন্যই একটি নির্দিষ্ট বটন রয়েছে। এ ক্ষেত্রে প্রয়োজন অনুযায়ী রাইডিং মোড পরিবর্তন করতে পারেন বাইক আরোহী। স্পোর্ট মোডে বাইকের সর্বোচ্চ গতি ১২৭ কিমি প্রতি ঘণ্টা এবং রেন ও আরবান মোডে বাইকের সর্বোচ্চ গতি ১০৫ কিমি প্রতি ঘণ্টা।

তিনটি মোডেরই আলাদা গুরুত্ব রয়েছে। শহরাঞ্চলে বা অলি-গলিতে যাওয়ার ক্ষেত্রে এই Urban Mode-এর গুরুত্ব রয়েছে। এর ABS সিস্টেমও বেশ দৃঢ় । Rain Mode-এর ক্ষেত্রে লিভার পালসেশনের বিষয়টিকে দারুণ ভাবে নিয়ন্ত্রণ করে ABS সিস্টেম। এর ফলে চালকরা বর্ষাকালে বা ভেজা রাস্তায় গাড়ির উপর সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ রাখতে সক্ষম হবেন। অন্য দিকে Sport Mode-এর ক্ষেত্রে ম্যাক্সিমাম পাওয়ার ও অ্যাক্সিলারেশন দেখা যাবে বাইকে। তাই হাইওয়েতে গাড়ির উপর নিয়ন্ত্রণ রেখেই হাইস্পিডে গাড়ি চালাতে পারবেন বাইক-আরোহীরা।

নতুন এই TVS Apache RTR 200 4V মোটরসাইকেলে থাকছে ডুয়াল চ্যানেল ABS সিস্টেম। সঙ্গে রয়েছে RT স্লিপার ক্লাচ। এর TVS স্মার্ট এক্স কানেক্ট ব্লুটুথ ও ফেদার টাচ স্টার্ট ফিচার বাইকটিকে বাকিদের থেকে আলাদা করবে। মোট তিনটি কালার অপশনে পাওয়া যাচ্ছে এই বাইক। এগুলি হল গ্লস ব্ল্যাক, পার্ল হোয়াইট ও ম্যাট ব্লু।

Published by: Piya Banerjee
First published: November 4, 2020, 4:26 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर