প্রযুক্তি

corona virus btn
corona virus btn
Loading

দেশের বাজারে লঞ্চ হল Tata Harrier Camo, দাম শুরু ১৬.৫০ লক্ষ টাকা থেকে, জানুন বিস্তারিত!

দেশের বাজারে লঞ্চ হল Tata Harrier Camo, দাম শুরু ১৬.৫০ লক্ষ টাকা থেকে, জানুন বিস্তারিত!
  • Share this:

#কলকাতা: Harrier লাইনআপে এ বার Camo স্পেশ্যাল এডিশন নিয়ে হাজির হল Tata Motors। উৎসবের মরশুমে এই SUV মডেলের Tata Harrier Camo গাড়ির দাম শুরু হচ্ছে ১৬.৫০ লক্ষ টাকা থেকে। জেনে নিন, কেমন দেখতে হয়েছে গাড়িটি।

 এই মডেলটি আগের এডিশন অর্থাৎ Harrier Dark-এর মতোই দেখতে। তবে এর গাঢ় সবুজ রঙের লুক বেশ আকর্ষণীয়। এ ক্ষেত্রে XT ভ্যারিয়েন্টর দাম ১৬.৫০ লক্ষ টাকা, XT+ ভ্যারিয়েন্টের দাম ১৭.৩০ লক্ষ টাকা, XZ ভ্যারিয়েন্টের দাম ১৭.৮৫ লক্ষ টাকা, XZ + ভ্যারিয়েন্টের দাম ১৯.১০ লক্ষ টাকা, XZA ভ্যারিয়েন্টের দাম ১৯.১৫ লক্ষ টাকা ও XZA+ ভ্যারিয়েন্টের দাম হচ্ছে ২০ লক্ষ টাকা।  XT ভ্যারিয়েন্টে এই Camo এডিশন পাওয়া যাবে ম্যানুয়াল ট্রান্সমিশনে আর XZ ভ্যারিয়েন্টে এটি মিলবে অটোম্যাটিক ট্রান্সমিশনে।

গাড়ির বাইরের দিকে রয়েছে বিশেষ Camo গ্রাফিক্স। গাড়ির বনেট, রুফ রেলস, আর ফ্রন্ট পার্কিং সেন্সর আপনার নজর কাড়বে। গাড়িতে থাকছে অটোমেটিক প্রোজেক্টর হেডলাইট, LED DRL, ১৭ ইঞ্চি অ্যালয় হুইল। গাড়ির ইন্টিরিয়রও আপনাকে মুগ্ধ করবে। গাড়িতে থাকছে ৭ ইঞ্চি টাচস্ক্রিন ইনফোটেইনমেন্ট সিস্টেম। সঙ্গে রয়েছে ৬ টি স্পিকার। Apple Carplay ও Android Auto কানেক্টিভিটির পাশাপাশি গাড়িতে স্টিয়ারিং মাউন্টেড অডিও কন্ট্রোল, পুশ বাটন স্টার্ট, অটোম্যাটিক ক্লাইমেট কন্ট্রোলসহ একাধিক ফিচার রয়েছে। এর ব্যাক সিট অর্গানাইজার, OMEGARC স্কাফ প্লেট, সানসেড, 3D মডিউলড ম্যাট, 3D ট্রাঙ্ক ম্যাট ও অ্যান্টি স্কিড ড্যাশ ম্যাট আপনার নজর কাড়বে।

তবে Tata Harrier Camo এডিশনে ইঞ্জিনের ক্ষেত্রে তেমন কোনও পরিবর্তন আসেনি। এতে থাকছে ২.০ লিটার টার্বো ডিজেল ইঞ্জিন। যা ১৭০ HP ও ৩৫০ NM টর্ক পর্যন্ত ক্ষমতা সরবরাহ করতে পারে। সিক্স স্পিড ম্যানুয়াল বা সিক্স স্পিড টর্ক কনভার্টার গিয়ার বক্স থাকতে পারে গাড়িতে। তবে মডেল বিশেষে ভিন্নতা রয়েছে।

প্রসঙ্গত, এই প্যানডেমিকে বড়সড় ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে এই গাড়িপ্রস্তুতকারী সংস্থা। সূত্রে খবর, বর্তমান আর্থিক বর্ষে সেপ্টেম্বর কোয়ার্টার অর্থাৎ জুলাই থেকে সেপ্টেম্বর মাসের মধ্যে সব মিলিয়ে প্রায় ৩০ কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে। সংস্থা জানাচ্ছে, আগের অর্থবর্ষে জুলাই থেকে সেপ্টেম্বর মাসের মধ্যে ১৮৭.৭ কোটি টাকা ক্ষতি হয়েছিল। সেই জায়গায় এ বছর ক্ষতির পরিমাণ অনেকটাই বেশি। তবে আগামী কয়েক মাসের মধ্যে গাড়ির চাহিদা ও সরবরাহে এই খরা কাটবে বলে আশাবাদী সংস্থা। এ বিষয়ে Tata Motors-র গ্রুপ চিফ ফিনান্সিয়াল অফিসার পি বি বালাজি জানাচ্ছেন, যে হারে ধীরে ধীরে চাহিদা বাড়ছে, তাতে আগামী তিন মাসের মধ্যেই কমার্সিয়াল ভেহিকল সেগমেন্টে একাধিক সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে। তাই নতুন গাড়িগুলির লঞ্চ নিয়ে আশাবাদী প্রস্তুতকারী সংস্থা।

Published by: Piya Banerjee
First published: November 7, 2020, 10:49 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर