হেলমেটের সঙ্গে লাগানো কুলার, এই গরমেও ঠাণ্ডা থাকবেন আপনি

হেলমেট-কুলার পরে বাইক চালাচ্ছেন এক ব্যাক্তি ৷ ছবি: ট্যুইটারের সৌজন্যে ৷

রাস্তায় বেরলেই মনে হচ্ছে যেন তাওয়ার উপর গরম রুটি হয়ে গিয়েছেন আপনি ৷ কলকাতার রাস্তা যেন উল্টে-পাল্টে শেঁকছে আপনাকে ৷ গরমের ভেল্কি দেখে রোজই পিলে চমকে উঠছে শহরবাসীর ৷ গতকাল ছিল মরশুমের উষ্ণতম দিন ৷ তাপমাত্রা ৪০ ছুঁইছুঁই ৷

  • Share this:

    #বেঙ্গালুরু: রাস্তায় বেরলেই মনে হচ্ছে যেন তাওয়ার উপর গরম রুটি হয়ে গিয়েছেন আপনি ৷ কলকাতার রাস্তা যেন উল্টে-পাল্টে শেঁকছে আপনাকে ৷ গরমের ভেল্কি দেখে রোজই পিলে চমকে উঠছে শহরবাসীর ৷ গতকাল ছিল মরশুমের উষ্ণতম দিন ৷ তাপমাত্রা ৪০ ছুঁইছুঁই ৷ স্বাভাবিকের থেকে ৭ ডিগ্রি বেশি ৷ সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বেড়েছে আপেক্ষিক আর্দ্রতাও ৷ মনে হচ্ছে, আহা যদি সারাদিন একটা ফ্রিজারে ঢুকে বসে থাকা যেত ! বা যেখানে যান না কেন সেখানেই পিছন পিছন যেত একটা এয়ার কুলারও ৷ এবার কিছুটা হলেও এই স্বপ্ন সত্যি হচ্ছে আপনার ৷ পিছন পিছন না হলেও মাথার উপরে চড়ে সত্যিই ‘ঘুরে বেড়াচ্ছে’ কুলার ৷ আর শুধু ঘরে বেড়ানোই নয়, দিব্যি কুল করেও রাখছে আপনাকে ৷

    আরও পড়ুন: আগামী ৪৮ ঘণ্টায় তাপপ্রবাহে পুড়বে কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গ

    তবে হ্যাঁ, এই প্রযুক্তি এখনও পা রাখেনি তিলোত্তমায় ৷ আপাতত বেঙ্গালুরুতে প্রাথমিকভাবে শুরু হয়েছে এর ব্যবহার ৷ হেলমেটের সঙ্গে জুড়ে দেওয়া রয়েছে এই পুঁচকে কুলার ৷ যা ব্যাটারিচালিত ৷ গরমে রাস্তায় বাইক নিয়ে বেরলে মাথায় পরে নিন কুলার লাগানো এই হেলমেট ৷ অন করে দিন কুলারের সুইচ ৷ আর মজাটা উপভোগ করুন ৷ গনগনে রোদের তাপেও দিব্যি দার্জিলিং-গ্যাংটক ধাঁচের অনুভূতি পাবেন ৷

    ছবি: ট্যুইটারের সৌজন্যে ৷ ছবি: ট্যুইটারের সৌজন্যে ৷

    ওয়াটার বেসেড ‘ব্লুস্ন্যাপ’ নামের এই কুলারটি আবিষ্কার করেছেন AptEner Technologies-এর সিইও সুন্দরারাজন কৃষ্ণাণ ৷ বাড়ির কুলার ঘরকে ঠাণ্ডা রাখে ৷ তাহলে মানুষের শরীর ঠাণ্ডা করার যন্ত্র হবে না কেন ? এইসব কথা ভাবতে গিয়েই ‘ব্লুস্ন্যাপ’ আবিষ্কার করে ফেলেন কৃষ্ণাণ ৷

    আরও পড়ুন: বাংলায় ঢুকেই দুর্বল মৌসুমী বায়ু, তাপপ্রবাহ চলবে বর্ষাতেও

    ছবি: ট্যুইটারের সৌজন্যে ৷ ছবি: ট্যুইটারের সৌজন্যে ৷

    আবিষ্কর্তা জানাচ্ছেন, বাইরের তাপমাত্রার থেকে অন্তত ৬-১৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস কমাতে পারবে এই ‘ব্লুস্ন্যাপ’ ৷ ডাস্ট-ফ্রি এবং ডি-ফগিং ফিচার টেকনোলজিতে তৈরি হয়েছে এই কুলার-হেলমেট ৷ ‘ব্লুস্ন্যাপ’ এমনিতে বেশ হালকা ৷ তাই পরে থাকতে অসুবিধা হয় না ৷ তাছাড়া রিপ্লেসেবল ফিল্টার রয়েছে এতে ৷ সাধারণ কলের জলেই এটা পরিষ্কার করা যায় ৷ এই কুলার পরিবেশ বান্ধবও বটে ৷ একবার পুরো চার্জ দিলে ১০ ঘণ্টা টানা ব্যবহার করা যাবে এটি ৷ সুন্দরারাজন চান এই কুলারকে আরও উন্নত করেতে ৷ পরের ধাপে এই কুলার-হেলমেটে থাকবে ব্লুটুথ, নেভিগেশন সিস্টেমও ৷

    First published: