চিনের সাহায্য ছাড়াই দেশে আসবে 5G, ট্রায়াল শুরু করার অনুমতি দিল টেলিকম মন্ত্রক

ফাইভ জি-র ক্ষেত্রেও ভারত সঞ্চার নিগম লিমিটেডকে ট্রায়ালে রাখা হল না।

ফাইভ জি-র ক্ষেত্রেও ভারত সঞ্চার নিগম লিমিটেডকে ট্রায়ালে রাখা হল না।

  • Share this:

    #আহমেদাবাদ:

    চিনা প্রযুক্তির সাহায্য ছাড়াই এবার দেশে শুরু হবে 5G পরিষেবা। এবার দেশে ফাইভ-জি ট্রায়াল শুরুর অনুমতি দিল টেলিকম মন্ত্রক। রিলায়েন্স জিও ইনফোকম, ভারতী এয়ারটেল, ভোডাফোন আইডিয়া, এমটিএনএল- এই সংস্থাগুলিকে শহর, মফস্বল ও গ্রামের বিভিন্ন এলাকায় ট্রায়ালের প্রস্তুতি শুরু করতে বলেছে টেলিকম মন্ত্রক। আপাতত নোকিয়া, স্যামসং, সিডটকম, রিলায়েন্স জিওর দেশজ প্রযুক্তি ট্রায়ালের জন্য কাজে লাগানো হবে। এর আগে 4g স্পেকট্রামের ট্রায়ালের সুযোগ পায়নি বিএসএনএল। এবার ফাইভ জি-র ক্ষেত্রেও ভারত সঞ্চার নিগম লিমিটেডকে ট্রায়ালে রাখা হল না। বেসরকারি সংস্থাগুলো ফাইভ-জি ট্রায়ালের সুযোগ পেল, অথচ সরকারি সংস্থা পেল না। এই নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে অভিযোগের আঙুল তুলেছে বিরোধীরা।

    এমনিতেই বহুদিন ধরে আর্থিক দুরবস্থা চলছে বিএসএনএল-এর। কর্মীদের বেতন নিয়েও সমস্যা রয়েছে। কিন্তু মনে করা হয়েছিল, 5g পরিষেবা শুরুর আগে ট্রায়ালের সুযোগ দিয়ে সরকার বিএসএনএলকে নতুন করে ঘুরে দাঁড়ানোর সুযোগ দেবে

    । কিন্তু সেটা আর হল না। সবার প্রথমে চিনা সংস্থা হুয়েই-এর কাছ থেকে ট্রায়ালের জন্য প্রযুক্তিগত সাহায্য নেওয়ার কথা বলা হয়েছিল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত চিনের সঙ্গে সীমান্তে সংঘর্ষের জেরে সেই প্রস্তাব খারিজ হয়। তাছাড়া চিনা প্রযুক্তির সাহায্য নিলে দেশের নিরাপত্তা ব্যবস্থা প্রশ্নের মুখে পড়তে পারত। সেই জন্যও চিনা সংস্থার সাহায্য নিতে চায়নি কেন্দ্র। এছাড় প্রধানমন্ত্রীর আত্মনির্ভর ভারত গড়ার ডাকও অন্যতম কারণ। মূলত দেশজ সংস্থাগুলিকে আর্থিক লাভ দিতে চাইছে কেন্দ্র।

    ডিপার্টমেন্ট অফ টেলিকমিউনিকেশন জানিয়েছে, ছয় মাস সময় লাগবে ট্রায়ালের জন্য। তার মধ্যে প্রথম দুমাস সেট-আপ তৈরি চলবে। আপাতত নোকিয়া, স্যামসাং, সি ডট কম, এরিকসনের মতো সংস্থাগুলোর থেকে প্রযুক্তিগত সাহায্য নেওয়া হবে। রিলায়েন্স জিও-র নিজস্ব প্রযুক্তি রয়েছে। তা দিয়েই কাজ শুরু হবে। কবে থেকে শুরু হবে দেশে 5G পরিষেবা! সম্ভবত ২০২৩ সাল নাগাদ দেশের মানুষ 5G পরিষেবা শুরু পেতে পারে বলে আশা করা যাচ্ছে।

    Published by:Suman Majumder
    First published: