• Home
  • »
  • News
  • »
  • technology
  • »
  • কম দামে দুর্দান্ত ফিচার্স-সহ ভারতে লঞ্চ হল Moto G10 Power ও Moto G30 ফোন

কম দামে দুর্দান্ত ফিচার্স-সহ ভারতে লঞ্চ হল Moto G10 Power ও Moto G30 ফোন

কেমন দেখতে হয়েছে G সিরিজের এই ফোনগুলি? আসুন জেনে নেওয়া যাক!

কেমন দেখতে হয়েছে G সিরিজের এই ফোনগুলি? আসুন জেনে নেওয়া যাক!

কেমন দেখতে হয়েছে G সিরিজের এই ফোনগুলি? আসুন জেনে নেওয়া যাক!

  • Share this:

Motorola:  আজই দেশের বাজারে আসছে Motorola-র Moto G10 Power ও Moto G30 ফোন। এক্ষেত্রে দু'টি ফোনেই থাকছে কোয়াড রেয়ার ক্যামেরা সেট-আপ ও রিয়ার মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর। ফোনের দামও খুব একটা বেশি নয়। কেমন দেখতে হয়েছে G সিরিজের এই ফোনগুলি? আসুন জেনে নেওয়া যাক!

Moto G10 Power ও Moto G30 ফোনের দাম

প্রথমেই স্টোরেজ অপশন অনুযায়ী ফোনগুলির দাম জেনে নেওয়া যাক। এক্ষেত্রে ৪ GB RAM + ৬৪ GB স্টোরেজ অপশনে Moto G10 Power ফোনের দাম ৯,৯৯৯ টাকা। অরা গ্রে ও ব্রিজ ব্লু কালার অপশনে পাওয়া যাচ্ছে ফোনটি। ১৬ মার্চ বেলা ১২টা থেকে Flipkart-এ পাওয়া যাবে এই Moto G10 Power।

অন্য দিকে, ৪ GB RAM + ৬৪ GB স্টোরেজ অপশনে Moto G30 ফোনের দাম ১০,৯৯৯ টাকা। ডার্ক পার্ল ও প্যাস্টেল স্কাই কালার অপশনে পাওয়া যাবে এই ফোন। ১৭ মার্চ বেলা ১২টা থেকে Flipkart-এ পাওয়া যাবে Moto G30।

Moto G10 Power-এর ফিচার

Moto G10 Power ফোনে থাকছে ৬.৫ ইঞ্চি ম্যাক্স ভিশন HD+ ডিসপ্লে। স্ন্যাপড্রাগন প্রসেসর তথা Snapdragon 460 চিপসেটে চলে এই ফোন। ফোনে RAM-এর পরিমাণ ৪ GB ও অনবোর্ড স্টোরেজের পরিমাণ ৬৪ GB। এক্ষেত্রে microSD ব্যবহার করে ১ TB পর্যন্ত বাড়ানো যেতে পারে ফোনের স্টোরেজ। ফোনে থাকছে রিয়ার মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর। এটি নিয়ার স্টক অ্যান্ড্রয়েড ভার্সন অর্থাৎ near-stock Android 11 ভার্সনে চলে।

ফোনের ক্যামেরা পারফরম্যান্সও যথাযথ। এক্ষেত্রে Moto G10 Power ফোনে থাকছে কোয়াড রেয়ার ক্যামেরা সেট-আপ। ফোনের পিছনে একটি ৪৮ মেগা পিক্সেল মেইন সেন্সর, ৮ মেগা পিক্সেল আলট্রা-ওয়াইড লেন্সের সঙ্গে ম্যাক্রো ক্যামেরা ও ডেপথ সেন্সর রয়েছে। সামনের দিকে রয়েছে ৮ মেগা পিক্সেল ক্যামেরা। ফোনের ব্যাটারি ব্যাক-আপ নজর কাড়বে। এক্ষেত্রে Moto G10 Power ফোনে থাকছে ৬,০০০ mAh ব্যাটারি। যা ২০ W পর্যন্ত ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করে।

Moto G30-র ফিচার

এই স্মার্টফোনে থাকছে ৬.৫ ইঞ্চি IPS LCD ডিসপ্লে। এর রেজোলিউশন ৭২০ X ১,৬০০ পিক্সেল। রিফ্রেশ রেট ৯০ Hz। ফোনে থাকছে স্ন্যাপড্রাগন (Snapdragon 662) প্রসেসর। সঙ্গে রয়েছে Adreno 610 GPU। Moto-এর এই ফোন অ্যান্ড্রয়েড ১১ ভার্সনে চলবে। এগুলির পাশাপাশি Motorola-এর বেশ কয়েকটি নিজস্ব ফিচারও রয়েছে। ফোনের স্টোরেজ অপশনও মন্দ নয়। G সিরিজের এই ফোনে থাকছে ৪ GB RAM ও ৬৪ GB পর্যন্ত অনবোর্ড স্টোরেজ।

ফোনের ক্যামেরা পারফরম্যান্সও মন্দ নয়। এক্ষেত্রে Moto G30 ফোনে থাকছে কোয়াড রেয়ার ক্যামেরা সেট-আপ। ফোনের পিছনে একটি ৬৪ মেগা পিক্সেল মেইন সেন্সর, ৮ মেগা পিক্সেল আলট্রা-ওয়াইড লেন্স, একটি ২ মেগা পিক্সেল ম্যাক্রো ক্যামেরা ও ২ মেগা পিক্সেল ডেপথ সেন্সর রয়েছে। ফোনের সেলফি ক্যামেরাও মন্দ নয়। এক্ষেত্রে নতুন ফোনের সামনের দিকে থাকছে ১৩ মেগা পিক্সেল ক্যামেরা। ব্যাটারি ব্যাক-আপ নিয়ে হতাশ হওয়ার কোনও কারণ নেই। কারণ Moto G30 ফোনে থাকছে ৫,০০০ mAh ব্যাটারি। ২০ w পর্যন্ত ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করে এটি। এর কানেক্টিভিটি অপশনও যথেষ্ট ভালো। ফোনে থাকছে ব্লুটুথ ৫.০ ভার্সন, Wi-Fi, NFC ও যথাযথ চার্জিং পোর্ট।

Published by:Ananya Chakraborty
First published: