প্রযুক্তি

?>
corona virus btn
corona virus btn
Loading

আপডেটেড আইওএস ১৪-র সঙ্গে প্রাইভেসি সেটিংসে আমূল পরিবর্তন অ্যাপলের, জানুন বিশদে

আপডেটেড আইওএস ১৪-র সঙ্গে প্রাইভেসি সেটিংসে আমূল পরিবর্তন অ্যাপলের, জানুন বিশদে

গত বছর থেকে যে প্রচেষ্টা শুরু হয়েছিল, এ বার আইওএস ১৪-তে তা কাঙ্ক্ষিত রূপ পেয়েছে।

  • Share this:

তথ্য চুরি ও তার হস্তান্তর আজ প্রত্যেক মোবাইল বা কম্পিউটার ব্যবহারকারীর কাছে গভীর চিন্তার বিষয়। আপনার অজান্তেই হ্যাক হয়ে যাচ্ছে আপনার গোপন তথ্য। তবে অ্যাপল ব্যবহারকারীদের জন্য খানিকটা স্বস্তির খবর এসেছে। কারণ নতুন  আইওএস ১৪ আপডেটেড ভার্সন তাঁদেরকে এই বিপদ থেকে বাঁচাতে সক্ষম।

গত বছর থেকে যে প্রচেষ্টা শুরু হয়েছিল, এ বার আইওএস ১৪-তে তা কাঙ্ক্ষিত রূপ পেয়েছে। এ বার আপনার আইফোনের সিরি, ম্যাপস, অ্যাপস্টোর সর্বোপরি সাফারি ওয়েব ব্রাউজার এক নতুন রূপ নিয়েছে। অ্যাপলের এই সমস্ত ফিচার আপনার লোকেশন হিস্টরি ট্র্যাক হওয়া থেকে বাঁচাবে। সাধারণ অ্যাপ, সোশ্যাল মিডিয়া থেকে শুরু করে কোনও থার্ড পার্টি অ্যাপ- কেউ বুঝতে পারবে না আপনি কোথায় আছেন, কী খাচ্ছেন বা কী কিনতে চাইছেন। তাই এই প্ল্যাটফর্মগুলি আর আকর্ষণীয় বিজ্ঞাপন দিয়ে আপনার তথ্য হস্তান্তর করতে পারবে না। কী ভাবে তৈরি করা হয়েছে এই সিস্টেম দেখে নিন-

কালার ডটস বলে দেবে কী হচ্ছে

অনেক ক্ষেত্রেই আপনার ফোনের ক্যামেরা বা মাইক্রোফোনের মাধ্যমে কোনও অ্যাপ অ্যাকসেস নেওয়ার চেষ্টা করে এবং পরে তথ্য সংগ্রহ করে তা শেয়ার করে। এ বার আপনার আইফোন বা আইপ্যাড স্ক্রিনের উপরের ডান দিকে একটি ইন্ডিকেটর থাকবে। যখনই কোনও অ্যাপ আপনার ফোনের ক্যামেরা বা মাইক্রোফোনের মাধ্যমে অ্যাকসেস নেওয়ার চেষ্টা করবে, তখনই কিছু কালার ডটস দেখা যাবে। যা আপনাকে সচেতন করবে। ম্যাকবুকেও থাকবে একই ফিচার।

ইনটেলিজেন্ট ট্র্যাকিং প্রিভেনশন, সাফারি ব্রাউজার

সাধারণত ওয়েব ব্রাউজার বা অ্যাপগুলি ট্র্যাকিংয়ের মাধ্যমে আমাদের চরিত্র বুঝে যায়। এবং আমাদের ফোনে আমাদের পছন্দসই নানা বিজ্ঞাপন দিতে থাকে। এখন এর হাত থেকে রক্ষা করতে পারে সাফারি ব্রাউজার। কারণ এটিতে ইনটেলিজেন্ট ট্র্যাকিং প্রোটেকশন সিস্টেম রয়েছে। এর বিল্ড ইন ফিঙ্গারপ্রিন্টিং ডিফেন্স সিস্টেম বিজ্ঞাপনদাতা বা ডেটা কালেক্টরদের প্রতিহত করতে পারে। এমনকি ইনস্টাগ্রাম, ফেসবুকেও আপনার সার্চ হিস্ট্রি বা ব্রাউজিং হিস্ট্রি শেয়ার হয় না। ফলে তাদের কোনও বিজ্ঞাপন দিতে হলে হিমশিম খেতে হবে।

অ্যাপলে কোনও লোকেশন হিস্টরি থাকে না

আজকাল আমাদের ফোনে লোকেশন ট্র্যাকিংয়ের বিষয়টি খুবই সাধারণ। গুগল আপনার লোকেশন ট্র্যাক করে একটি হিস্টরি তৈরি করে। ফেসবুকও আপনার লোকেশন ট্র্যাক করে। তাই আপনি কোথায় যাচ্ছেন, কোথায় খাচ্ছেন, কোথা থেকে জিনিস কেনেন, কোন রেস্তোরাঁয় প্রায় যান- সব জানা যায়। তবে অ্যাপলে এই ধরনের লোকেশন হিস্টরি স্টোর করা হয় না। পাশাপাশি অ্যাপলের প্রাইভেসি ডকুমেন্ট জানাচ্ছে, পার্সোনালাইজ ফিচার যেমন কার পার্কিং বা লোকেশন সংক্রান্ত বিষয়, নেভিগেশন এই সমস্ত বিষয় আপনার পরিচয় বা ব্যক্তিগত প্রোফাইলে খুব একটা প্রভাব ফেলবে না। কারণ লোকেশন সংক্রান্ত এই তথ্যগুলি যারা শনাক্ত করার চেষ্টা করছে, তাদের চরিত্র অনবরত বদল হতে থাকে। তাই খুব একটা ভয় পাওয়ার কিছু নেই ।

অ্যাপগুলিও জানতে পারবে না আপনি কোথায় আছেন

লোকেশন নিয়ে আইওএস ১৩-তে বিস্তর পরিবর্তন এনেছিল অ্যাপল। যা আরও আপডেট করা হয়েছে আইওএস ১৪-তে। এখন ইচ্ছে হলে আপনি আপনার অ্যাপকে লোকেশন সংক্রান্ত তথ্য দিতে পারেন, আবার না-ও দিতে পারেন। যখন আপনি একটি অ্যাপ বন্ধ করে দিচ্ছেন, ঠিক তখনই আইওএস ওই অ্যাপে আপনার লোকেশন সংক্রান্ত তথ্য সরবরাহ বন্ধ করে দিচ্ছে। এর পরও যদি কোনও অ্যাপ আপনার লোকেশন নিয়ে নোটিফিকেশন দেয়, তা হলে কিছুক্ষণের মধ্যেই তা আপনাকে বলবে আইওএস। ওই অ্যাপ কখন আপনার লোকেশন জানতে চেয়েছিল, আপনি লোকেশন অ্যাকসেস করতে চান কি না- সেই বিষয়েও বিস্তারিত তথ্য দেবে আইওএস।

প্রাইভেট ফেডারেটেড লার্নিং

অ্যাপলের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বিষয়টি হল প্রাইভেট ফেডারেটেড লার্নিং। এ ক্ষেত্রে আপনার তথ্য ওয়ার্ল্ড ওয়াইড ওয়েব বেসড কোনও অ্যাপ বা সার্ভিসে আপলোড হবে না। অর্থাৎ আপনার আইফোনের কোনও তথ্য কোনও সার্ভারে আপলোড হবে না। এমনকি অন্য কোনও অ্যাপ ডেভেলপার বা অ্যাপলও এই তথ্য শেয়ার করতে পারবে না। এর সব চেয়ে বড় উদাহরণ হল অ্যাপেলের ফোটো অ্যাপে আর্টিফিসিয়াল ইনটেলিজেন্স ভিত্তিক প্রযুক্তি।

তাই নিশ্চিন্তে থাকুন অ্যাপল ব্যবহারকারীরা। সজাগ থাকুন। প্রতিটি ফিচার সম্পর্কে বিস্তারিত জানুন এবং নিজের তথ্য, গোপনীয়তা রক্ষা করুন।

Published by: Uddalak Bhattacharya
First published: September 24, 2020, 3:31 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर