ইন্টারকানেক্ট ইউসেজ চার্জ নিয়ে কী জানাল জিও !

ইন্টারকানেক্ট ইউসেজ চার্জ নিয়ে কী জানাল জিও !

বর্তমানে ইনকামিং ও আউটগোয়িং কলের রেশিও প্রায় সমান ৷ তাই ‘বিল অ্যান্ড কিপ’ রেজিম লাগু করার ক্ষেত্রে আর দেরি করার কোনও মানে হয় না ৷

  • Share this:

#মুম্বই: রিলায়েন্স জিও-র তরফে শুক্রবার জানানো হয়েছে Zero Call Connect Charges জানুয়ারি ২০২০ পর লাগু করা হলে টেলিকম সেক্টরের ক্ষতি হবে ৷ সংস্থার তরফে জানানো হয়েছে এতদিন পর্যন্ত বিনামূল্যে কল পরিষেবার সুবিধা পেয়ে এসেছেন গ্রাহকরা ৷

রিলায়েন্স জিও ডিরেক্টর মহেন্দ্র নাহাতা জানিয়েছেন, বর্তমানে ইনকামিং ও আউটগোয়িং কলের রেশিও প্রায় সমান ৷ তাই ‘বিল অ্যান্ড কিপ’ রেজিম লাগু করার ক্ষেত্রে আর দেরি করার কোনও মানে হয় না ৷

IUC( interconnect usage charges) নিয়ে ওপেন হাউসের আয়োজন করেছিল ট্রাই ৷ যখন এক টেলিকম সংস্থার গ্রাহক আরেক সংস্থার গ্রাহকে কল করেন তখন সেই টলিকম সংস্থাকে একটি চার্জ দিতে হয় ৷ তাকে IUC বলা হয় ৷ ইন্টারকানেক্ট ইউসেজ চার্জের বিষয়ে কথা বলার সময় নাহাতা বলেন এয়ারটেল তাদের ৪জি নেটওয়ার্ক বাড়িয়েছে, ভোডাফোনও তাদের নেটওয়ার্ক বাড়ানোর বিষয়ে আলোচনা করছে ৷ তিনি আরও বলেন প্রফিট বা লসের বিষয় নিয়ে বিচার করছি না, নীতিগত বিষয়ে এর বিরোধিতা করছেন ৷

তিনি আরও বলেন জানুয়ারি ২০২০ এর মধ্যে BAK রেজিম লাগু না হলে IUC অন্তত ৬ পয়সার নীচে আনা উচিৎ ৷ যখন ৬ পয়সা লাগু করা হয় তখন ৪জি ট্রাফিক ১ শতাংশ ছিল ৷ বর্তমানে ট্রাফিক অনেক বেশি ৷ অথার্ৎ কস্ট অনেকটাই কমে গিয়েছে ৷ ভোডাফোনের তরফে জানানো হয়েছে প্রত্যেক গ্রাহক এখন নেটওয়ার্ক বদলাতে পারে mobile number portability এর মাধ্যমে ৷ ফলে গ্রাহকদের ২ জি নেটওয়ার্কে আটকে রাখার চেষ্টা করা হচ্ছে এটা বলা ভুল ৷

এয়ারটেলের তরফে জানানো হয়েছে IUC জিরো করা উচিৎ নয় এবং BAK রেজিম আরও তিন বছর পিছিয়ে দেওয়া উচিৎ ৷

First published: 11:18:47 PM Nov 15, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर