corona virus btn
corona virus btn
Loading

ভারতের বাজারে Infinix নিয়ে এল নতুন স্মার্টফোন নোট-7: কম দামে অভিনব উন্নতমানের প্রযুক্তির সুবিধা, চাহিদা তুঙ্গে

ভারতের বাজারে Infinix নিয়ে এল নতুন স্মার্টফোন নোট-7: কম দামে অভিনব উন্নতমানের প্রযুক্তির সুবিধা, চাহিদা তুঙ্গে

কী আছে নোট-7 স্মার্ট ফোনে, যার জন্য ক্রেতাদের মধ্যে রয়েছে তুমুল উন্মাদনা? দেখে নিন

  • Share this:

মোবাইল প্রেমীদের জন্য সুখবর। অবশেষে ভারতের বাজারে এল নতুন স্মার্টফোন নোট-7। ইনফিনিক্স ব্র্যান্ড তাদের এই নতুন পণ্যটি বাজারে চালু করা মাত্র ক্রেতা ও আগ্রহী ব্যক্তিদের মধ্যে তুমুল উন্মাদনা লক্ষ্য করা গেছে। চাহিদার দিক থেকেও বলা চলে নজির গড়তে চলেছে এই স্মার্টফোন। কিছু মানুষ আছেন যারা স্মার্ট ফোন ব্যবহার করেন শুধু প্রয়োজনে। কিন্তু স্মার্টফোন-প্রেমী এমন মানুষও আছেন যারা সেটি ব্যবহার করেন শুধুমাত্র শৌখিনতার জন্য । নোট-7-এর ব্যবহারে এই দু'ধরনের ক্রেতাই খুশি হবেন বলে বাণিজ্যমহল মনে করছে।

কী আছে নোট-7 স্মার্ট ফোনে, যার জন্য ক্রেতাদের মধ্যে রয়েছে তুমুল উন্মাদনা? প্রথমত দামের দিক থেকে এই ফোনটি অন্য সব ফোনকে টেক্কা দিয়েছে বলা চলে। সাধারণত কম বাজেটের স্মার্ট ফোনগুলিতে সম্পূর্ণ নতুন প্রযুক্তিগুলি ব্যবহারের সুবিধে ক্রেতারা পান না। নোট-7 সেদিক থেকে অনেকাংশে উন্নত। প্রায় সবরকম নতুন প্রযুক্তিযুক্ত এই স্মার্টফোনের দাম মাত্র 11,499 টাকা। বলা যায় দামে কম, কাজে বেশী, যা মধ্যবিত্তের নাগালের মধ্যে। ফোনটির বাইরের চেহারাটি দেখে দাম বোঝার উপায় নেই। যে কোনও দামী ফোনকে টেক্কা দিতে পারে এই স্মার্টফোনটির ডিজাইন ও বাইরের চেহারা।

এবার দেখা যাক নোট-7-এর মধ্যে আপনি কী কী পাচ্ছেন। এই ফোনের রাম হল 4 জিবি ক্ষমতাযুক্ত। স্টোরেজ ক্ষমতা 64 জিবি। কম বাজেটের ফোনগুলিতে এই সুবিধে খুব বেশী থাকে না। এরপরেও আপনি স্টোরেজ ক্ষমতা চাইলে বাড়িয়ে নিতে পারেন। কারণ একটি মাইক্রো এসডি কার্ড যুক্ত করলে এটির স্টোরেজ ক্ষমতাও বেড়ে যাবে।

নোট-7-এর ক্যামেরাটিও যথেষ্ট উন্নতমানের। এতো ভাল ক্যামেরা সাধারণত আমরা দামী ফোনগুলোর ক্ষেত্রেই দেখে থাকি। এই ফোনের ক্যামেরাটি হল আল-কোয়াড ক্যামেরা। এই ক্যামেরায় রয়েছে 48-মেগাপিক্সেল প্রাইমারী সেন্সর, 2-মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো সেন্সর, 2-মেগাপিক্সেল ডেপথ সেন্সর এবং একটি লো-লাইট ক্যামেরা সেন্সর। এছাড়াও রয়েছে কোয়াড-লেড ফ্ল্যাশ লাইট। ফোনের সামনের দিকে রয়েছে 16-মেগাপিক্সেল ক্যামেরা সেল্ফি তোলার জন্য। সুতরাং এ কথা নিঃসন্দেহে বলা যায় যে যারা ছবি তুলতে ভালবাসেন তাদের কাছেও ফোনটির চাহিদা বাড়বে।

এছাড়াও রয়েছে 4-জি এলটিই ডাটা কানেকশন, আছে ওয়াই-ফাই 802.11 এসি। দেখা যাচ্ছে ইন্টারনেট সংযোগের জন্য ডাটা কানেকশন ও ওয়াই-ফাই ব্যবস্থাও যথেষ্ট উন্নতমানের। রয়েছে ব্লুটুথ, জিপিএস/ এ-জিপিএস, মাইক্রো ইউএসবি ব্যবস্থা। হেডফোন যুক্ত করার জন্য আছে 3.5 মিমি মাপের জ্যাক। নোট-7-এর ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানারটিও অভিনব। সাধারণ স্মার্টফোনে আমরা দেখে থাকি ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানারটি পেছনের দিকে থাকে। এই ফোনে স্ক্যানারটি ফোনের পাশের দিকে মাউন্টেড করা। ব্যাটারি ব্যবহার করার ক্ষেত্রেও ক্রেতারা পাচ্ছেন বাড়তি সুবিধে। নোট-7-এ পাচ্ছেন 5000 এমএএইচ ক্ষমতাসম্পন্ন ব্যাটারি যা দীর্ঘ সময় ধরে সক্রিয় থাকবে এবং সহায়ক ব্যাটারিটির ক্ষমতা হল 18 ডব্লিউ।

ফোনটি চালু করে ইনফিনিক্সের সিইও, অনীশ কাপুর জানান “নোট-7 যে শুধু কার্যকারিতা বা ক্যামেরার বৈশিষ্ট্যেই উন্নত তা নয়, আমাদের লক্ষ্য হল সব স্তরের মানুষরাই যেন স্মার্টফোন ব্যবহারের সুবিধে উপভোগ করতে পারেন। কম দামে প্রযুক্তিগতভাবে উন্নত এই স্মার্টফোন চালু করে আমরা সেই লক্ষ্যের দিকেই এগিয়ে যাচ্ছি।’’

Published by: Elina Datta
First published: September 17, 2020, 2:40 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर