প্রযুক্তি

corona virus btn
corona virus btn
Loading

মোবাইলের মাধ্যমে UPI ব্যবহার করে দেশের যে কোনও প্রান্ত থেকে টাকা পাঠানো সম্ভব! কী ভাবে জেনে নিন--

মোবাইলের মাধ্যমে UPI ব্যবহার করে দেশের যে কোনও প্রান্ত থেকে টাকা পাঠানো সম্ভব! কী ভাবে জেনে নিন--

কী এই UPI? কী ভাবে কাজ করে UPI? এটির পরিষেবা পেতে গেলে কী কী প্রয়োজন জেনে নিন--

  • Share this:

#কলকাতা: হাতে টাকা নিয়ে ঘুরে বেড়ানোর ঝামেলা দূর করতে অনলাইন পেমেন্টে ভরসা করতে শুরু করেছেন মানুষজন, বিশেষ করে Covid 19 পরিস্থিতিতে এই অভ্যাস বেড়েছে। হাতে মোবাইল ফোন আর তাতে ইন্টারনেট কানেকশন থাকলেই কেল্লা ফতে! যে কোনও জায়গায়, যে কোনও এলাকার মানুষকে সহজেই টাকা পাঠিয়ে দেওয়া যাচ্ছে। সম্ভব হচ্ছে UPI-এর জন্য। কী এই UPI? কী ভাবে কাজ করে UPI? এটির পরিষেবা পেতে গেলে কী কী প্রয়োজন জেনে নিন--

UPI বা ইউনিফায়েড পেমেন্ট ইন্টারফেস (Unified Payment Interface) ব্যবহার করতে গেলে প্রথমেই ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের সঙ্গে মোবাইল নম্বর থাকতে হবে এবং সেই মোবাইল নম্বর চালু রাখতে হবে। যে ফোন থেকে UPI ব্যবহার করে টাকা পাঠানো হবে, সেই ফোনে সেই নম্বরটি অ্যাক্টিভ থাকতে হবে। এটি হল প্রথম শর্ত। NRCI-র ওয়েবসাইট অনুযায়ী, সর্বাধিক এক লক্ষ টাকা পর্যন্ত একবারে UPI থেকে ট্রানজাকশন করা যেতে পারে।

যে কোনও ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থেকে যে কোনও ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠানো যেতে পারে। এর জন্য অতিরিক্ত কোনও টাকা লাগে না। পাশাপাশি UPI-এর সঙ্গে সংযুক্ত এমন অ্যাপ ব্যবহার করে ২৪ ঘণ্টা এই ট্রানজাকশন সম্ভব।

UPI ব্যবহার করতে প্রয়োজন-

যে কোনও ব্যাঙ্কে একটি সেভিংস ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট খুলতে হবে। জেনে নিতে হবে, ওই অ্যাকাউন্টে ব্যাঙ্ক UPI-এর সুবিধা দিচ্ছে কিনা। কোন কোন ব্যাঙ্কে UPI-এর সুবিধা পাওয়া যেতে পারে, তা আগে জেনে নিয়ে সেই ব্যাঙ্কে অ্যাকাউন্ট খুললে ভাল হয়।

এ'বার অ্যাকাউন্ট খুলে গেলে সেখানেই ব্যাঙ্কের কাজ শেষ। এর পর ফোনে একটি UPI সংযুক্ত অ্যাপ ডাউনলোড করতে হবে। এ ক্ষেত্রে BHIM, NPCI-র মতো অ্যাপ রয়েছে। রয়েছে Paytm, PhonePe, Google Pay, Amazon Pay-র মতো অ্যাপও।

তবে, মনে রাখতে হবে, মোবাইল নম্বরটি UPI অ্যাক্টিভেশনের সময় অ্যাক্টিভ রাখতে হবে।

কী ভাবে UPI সেট করতে হবে-

যখনই UPI সংযুক্ত অ্যাপটি ডাউনলোড হবে, তখনই সেটিতে ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট যুক্ত করার অপশন আসবে। সেই অপশনে গিয়ে নিজের ব্যাঙ্ক খুঁজে নিতে হবে। এ'বার অ্যাকাউন্ট ভেরিফিকেশনের জন্য মোবাইল নম্বরে একটি ওয়ান টাইম পাসওয়ার্ড যাবে যা ফোনের মেসেজ বক্স থেকে কপি করে সেখানে পেস্ট করলেই VPA বা ভার্চুয়ার পেমেন্ট অ্যাড্রেস ক্রিয়েট হয়ে যাবে।

BHIM অ্যাপ ব্যবহার করে কী ভাবে UPI ক্রিয়েট করা যায় দেখে নেওয়া যাক-

১. গুগল প্লে স্টোর (Google Play Store) থেকে প্রথমে BHIM অ্যাপ ডাউনলোড করতে হবে।

২. পছন্দের ভাষা বেছে নিতে হবে।

৩. যে সিমের নম্বরের সঙ্গে ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট যুক্ত রয়েছে সেটি সিলেক্ট করতে হবে।

৪. এ'বার চার অক্ষরের একটি পাসওয়ার্ড সেট করতে হবে।

৫. ব্যাঙ্ক বেছে নিয়ে ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট লিঙ্ক করতে হবে। এ'বার একটি UPI পিন বা পাসওয়ার্ড দিতে হবে, তার আগে ডেবিট কার্ডের শেষ ৬টা নম্বর ও এক্সপায়ারি ডেট দিয়ে দিতে হবে।

এ'বার অ্যাকাউন্ট রেজিস্টার হয়ে যাবে। তবে, মনে রাখতে হবে পাসওয়ার্ড ভুলে গেলে চলবে না। এতে সমস্যা হতে পারে। তাই প্রয়োজনে পাসওয়ার্ড কোথাও লিখে রাখতে হবে। এ'বার যেখানে খুশি টাকা পাঠানো যাবে।

কীভাবে UPI ব্যবহার করে টাকা পাঠানো সম্ভব হবে-

তিন ভাবে টাকা পাঠানো যেতে পারে। একটি VPA-র মাধ্যমে। একটি IFSC কোডের মাধ্যমে ও তৃতীয়টি QR কোডের মাধ্যমে।

এই UPI ব্যবহার করে সর্বাধিক ১ লক্ষ টাকা পর্যন্ত পাঠানো যেতে পারে। তবে, এর অধীনে কিছু সাব-লিমিটও আছে। খুব বেশি টাকা পাঠানোর আগে অবশ্যই ব্যাঙ্ক থেকে একবার নিয়ম জেনে নেওয়া ঠিক হবে!

Published by: Rukmini Mazumder
First published: December 21, 2020, 10:20 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर