প্রযুক্তি

corona virus btn
corona virus btn
Loading

হোয়াটসঅ্যাপ পেমেন্টের পর এ বার আসতে চলেছে হোয়াটসঅ্যাপ স্বাস্থ্য বিমা

হোয়াটসঅ্যাপ পেমেন্টের পর এ বার আসতে চলেছে হোয়াটসঅ্যাপ স্বাস্থ্য বিমা

চলতি বছরের শেষে হোয়াটস্যাপ ইউজাররা স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া জেনারেলের কাছ থেকে কম টাকায় স্বাস্থ্য বিমা করার মতন সুযোগ পাবেন বলে জানাল সংস্থা।

  • Share this:

#চণ্ডীগড়: প্রযুক্তির উন্নতির ফলে দুনিয়া এখন হাতের মুঠোয়। দেশ-বিদেশে ছড়িয়ে থাকা পরিবার-বন্ধু সকলের সঙ্গে কথা বলা যাচ্ছে ক্ষণিকের মধ্যেই। ডিজিট্যাল যুগের সুবাদে যোগাযোগ মাধ্যম আরও সহজতর করে তুলেছে হোয়াটস্যাপ। গ্রুপ চ্যাট, ভিডিয়ো কল থেকে টাকা পাঠানো ছাড়াও এ বার হোয়াটস্যাপ দেবে কম টাকায় স্বাস্থ্য বিমা করার মতন সুযোগ। চলতি বছরের শেষে হোয়াটস্যাপ ইউজাররা স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া জেনারেলের কাছ থেকে এই সুবিধা পাবেন বলে জানাল সংস্থা। কিছু দিন আগেই হোয়াটসঅ্যাপ পেমেন্টস পরিষেবা দেশে লাইভ হয়েছে। এ বার পেনশন প্রকল্পের মতন সুবিধা নিয়ে আসছে হোয়াটস্যাপ।

হোয়াটস অ্যাপ ইন্ডিয়ার প্রধান অভিজিৎ বোস জানিয়েছেন, ‘বিশ্ব জুড়ে তথ্য ও প্রযুক্তির উন্নতির ফলে গ্রাহকেরা যাতে সব রকম পরিষেবা পায় তা আমরা নিশ্চিত করব। এ দেশের প্রতিটি হোয়াটস্যাপ ইউজার তাদের মোবাইল ডিভাইসের মাধ্যমে এ বার মৌলিক, আর্থিক ও অন্যান্য সব রকম পরিষেবা সহজেই উপভোগ করতে পারবেন। তার জন্য হোয়াটস্যাপ সক্রিয়ভাবে বেশ কয়েকটি সংস্থার সঙ্গে জোট বেধে কাজে নেমেছে। এ বছরের শেষে হোয়াটস্যাপ প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে আমরা একটি কম টাকার স্বাস্থ্য বিমা গ্রাহকের হাতে তুলে দিতে পারব বলে আশা করছি।’’

বোস আরও বলেন, ‘’ সম্প্রতি হোয়াটস্যাপ একজন গ্রাহককে সহজ এবং ইন্টার্যালক্টিভ অভিজ্ঞতা দেওয়ার জন্য দেশের আর্থিক প্রতিষ্ঠান, ব্যাঙ্ক এবং সরকারের সঙ্গে যুক্ত হয়ে কাজ করছে। বর্তমানে এইচডিএফসি পেনশনের সঙ্গে যুক্ত হয়ে পিনবক্স সলিউশনের মাধ্যমে একটি আর্থিক প্ল্যাটফর্ম তৈরি করার চেষ্টা চালানো হচ্ছে’’।

পেনশন টেক কোম্পানি পিনবক্সের সিইও জানিয়েছেন, ‘আমরা ডিজিট্যাল মাইক্রো পেনশন নিয়ে কাজ করছি। যেখানে পেনশনের ব্যপারটিকে খুব সুন্দর ভাবে সাজানো হয়েছে। এর নয়া ফিচার্স আসলে হোয়াটস্যাপ একটি শক্তিশালী ডিজিট্যাল প্ল্যাটফর্ম হয়ে উঠবে। সহজেই ইউজারের পেনশন সম্পর্কিত বিভিন্ন তথ্য জানার ইচ্ছে ও চাহিদা আমরা হোয়াটস্যাপ দ্বারা মেটাতে পারব।’

হোয়াটসঅ্যাপ পেমেন্টস সার্ভিসের জন্য সংস্থাটি আইসিআইসিআই ব্যাঙ্ক, এইচডিএফসি ব্যাঙ্ক, অ্যাক্সিস ব্যাঙ্ক, এবং স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার সঙ্গে পার্টনারশিপ নিয়েছে। চলতি বছর নভেম্বরে পেমেন্টস সার্ভিস অনুমোদনের পরে ইউপিআই ভিত্তিক পেমেন্ট সেবা দুই কোটি ভারতীয়ের কাছে উপলব্ধ করা গিয়েছে যা ইতিমধ্যেই বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে।আসল উদ্দেশ্য হল পেমেন্ট প্রক্রিয়াকে আরও সহজ করে তোলা। ঠিক যতটা সহজে আপনি বন্ধুকে টেক্সট পাঠান, ততটা সহজেই মানুষ একে অপরকে টাকা পাঠাতে পারবে। এ দেশের অর্থনীতির ভিত মজবুত হয়ে উঠছে বলেই বিশেষজ্ঞের একাংশের দাবি।

Published by: Somosree Das
First published: December 17, 2020, 2:00 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर