প্রযুক্তি

?>
corona virus btn
corona virus btn
Loading

এবার আশপাশের শব্দ সম্পর্কে আপনাকে সচেতন করবে আপনার ফোন, কী ভাবে ?

এবার আশপাশের শব্দ সম্পর্কে আপনাকে সচেতন করবে আপনার ফোন, কী ভাবে ?

কী ভাবে পাওয়া যাবে এই সাউন্ড রেকগনিশন সিস্টেম, জেনে নিন

  • Share this:

সাউন্ড রেকগনিশন প্রযুক্তির হাত ধরে চারপাশ সম্পর্কে এখন আরও বেশি করে আপডেট থাকতে পারবেন আপনি। আগেই এই প্রযুক্তিকে ব্যবহার করেছিল অ্যাপল। এ বার একই পথে হাঁটল গুগলও। গুগলের হাত ধরে এ বার স্মার্টফোনেও যুক্ত হল সাউন্ড রেকগনিশন ফিচার। এই ফিচারের সাহায্যে আপনার ফোনের মাইক্রোফোন আশেপাশের শব্দকে শুনবে এবং তা বোঝার চেষ্টা করবে। তবে এখানেই শেষ নয়। শব্দটি শুনে চিহ্নিত করার পর নোটিফিকেশনের মাধ্যমে সেই নির্দিষ্ট শব্দ সম্পর্কে আপনাকে সচেতনও করতে পারবে আপনার ফোন।

গত মাসেই আইওএস ১৪-তে আপডেট হিসেবে এই ফিচারকে সংযুক্ত করেছে অ্যাপল। এ বার অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইজগুলিতে একই সুবিধা দেওয়া শুরু করল গুগল। এর ফলে যাঁরা কানে কম শোনেন বা একেবারেই শুনতে পান না এবং যাঁরা বাড়ির অন্য কাজের সময়ে নির্দিষ্ট কোনও বিষয়ে নজর রাখতে চান, তাঁরা সব চেয়ে বেশি উপকৃত হবেন বলে জানাচ্ছেন টেক এক্সপার্টরা।

এই ফিচারের সাহায্যে সাইরেন, গাড়ির হর্ন, ডোরবেল, দরজায় ধাক্কার শব্দ, জল পড়ার শব্দ, বাচ্চার কান্না কিংবা অন্য কোনও চিৎকারের শব্দ খুব সহজেই চিহ্নিত করা যায়। আর নির্দিষ্ট ঘটনা সম্পর্কে সচেতন হওয়া যায়। কিন্তু কী ভাবে পাওয়া যাবে এই সাউন্ড রেকগনিশন সিস্টেম?

আপনার যদি আইফোন থাকে, তা হলে প্রথমে সেটিংসে গিয়ে সেখান থেকে অ্যাক্সেসবিলিটি ও তার পর সাউন্ড রেকগনিশন সিলেক্ট করুন। আর আপনার যদি অ্যান্ড্রয়েড ফোন থাকে, তা হলেও প্রায় একই পদ্ধতি অনুসরণ করতে হবে। তবে এ ক্ষেত্রে সেটিংসে গিয়ে সেখান থেকে অ্যাক্সেসবিলিটি ও তার পর সাউন্ড নোটিফিকেশন সিলেক্ট করুন।

তবে আপনার অ্যান্ড্রয়েড ফোনের অ্যাক্সেসবিলিটি অপশনে যদি এই মেনু দেখতে না পান, তা হলে অন্য উপায় অবলম্বন করতে হবে। এ ক্ষেত্রে প্রথমে আপনাকে গুগল প্লে স্টোর থেকে লাইভ ট্রানস্ক্রাইব ও সাউন্ড নোটিফিকেশন অ্যাপগুলি ডাউনলোড করতে হবে। পরে অ্যাপগুলি আপডেট করতে হবে। তার পর একই উপায়ে অ্যাক্সেসবিলিটিতে গিয়ে এই অ্যাপ এনেবল করতে হবে। প্রসঙ্গত, আইফোনের এই সাউন্ড রেকগনিশন সিস্টেম আপনাকে অ্যাপল ওয়াচের মাধ্যমেও নোটিফিকেশন পাঠাতে পারে। অ্যান্ড্রয়েড ফোনের ক্ষেত্রেও একই সুবিধা পাওয়া যাবে। এ ক্ষেত্রে ওএস স্মার্টওয়াচের মাধ্যমে মিলবে নোটিফিকেশন।

তবে যাঁরা নিজেদের প্রাইভেসি নিয়ে একটু বেশি সচেতন, যাঁদের ফোনের মাইক্রোফোন সর্বদা লিসনিং মোডেই থাকে, তাঁদের ক্ষেত্রেও চিন্তার কোনও কারণ নেই। কেন না এই শব্দগুলির যে প্রক্রিয়া তা ডিভাইজের অর্থাৎ আপনার আইফোন বা অ্যান্ড্রয়েডের মধ্যে নিজে থেকেই হয়। এ ক্ষেত্রে মেশিন লার্নিং অ্যালগরিদম প্রসেসের মাধ্যমে স্বতঃস্ফূর্ত ভাবে আপনার ডিভাইজে শব্দ চেনার এই পুরো প্রক্রিয়াটি চলে। এর জন্য কোনও ওয়াইফাই বা ফোর জি ইন্টারনেট কানেকশনের প্রয়োজন না-ও পড়তে পারে।

Published by: Ananya Chakraborty
First published: October 9, 2020, 5:03 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर