• Home
  • »
  • News
  • »
  • technology
  • »
  • ঘণ্টায় ৬২০ কিমি বেগে ছুটতে পারে চাকাহীন চিনের এই সুপার বুলেট ট্রেন

ঘণ্টায় ৬২০ কিমি বেগে ছুটতে পারে চাকাহীন চিনের এই সুপার বুলেট ট্রেন

চাকা ছাড়াই ঘণ্টায় ৬২০ কিমি বেগে ছুটছে চিনের এই সুপার বুলেট ট্রেন

চাকা ছাড়াই ঘণ্টায় ৬২০ কিমি বেগে ছুটছে চিনের এই সুপার বুলেট ট্রেন

আধুনিক প্রযুক্তিতে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার লড়াইয়ে সবসময় মেতে থাকে জাপান ও চিন৷ যদিও পৃথিবীর সবচেয়ে দ্রুততম ট্রেন বানানোর আঁতুড়ঘর এই চিন৷ বাকি সবাইকে তারা পিছনে ফেলে বহু দূর এগিয়ে গিয়েছে৷

  • Share this:

    #বেজিং: আধুনিক প্রযুক্তিতে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার লড়াইয়ে সবসময় মেতে থাকে জাপান ও চিন৷ যদিও পৃথিবীর সবচেয়ে দ্রুততম ট্রেন বানানোর আঁতুড়ঘর এই চিন৷ বাকি সবাইকে তারা পিছনে ফেলে বহু দূর এগিয়ে গিয়েছে৷

    এবার চিন প্রকাশ্যে নিয়ে আসল উচ্চ প্রযুক্তি সম্পন্ন ৬৯ ফুটের একটি 'সুপার বুলেট ম্যাগলেভ' মডেলের ট্রেন৷ গত সপ্তাহে দ্য সাউথওয়েস্ট জিয়াওটং বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞানীদের মস্তিষ্কপ্রসূত এই প্রোটোটাইপ ট্রেনের পরীক্ষা করল চিন৷ ট্রেনের সর্বোচ্চ গতি হতে পারে ঘণ্টায় ৩৮৫ মাইল, যার মানে ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ৬২০ কিমি বেগে ছুটতে পারবে এই সুপার বুলেট ট্রেন৷

    ম্যাগলেভ প্রযুক্তির যে কোনও বুলেট ট্রেনের পিছনেই কাজ করে বিজ্ঞানের চৌম্বকত্বের তত্ত্ব৷ 'ম্যাগলেভ’ শব্দটি এসেছে 'ম্যাগনেটিক লেভিটেশন' (চুম্বকীয় উত্তোলন) থেকে৷ এই প্রযুক্তির মাধ্যমে বুলেট ট্রেনকে তড়িৎ চুম্বকীয় শক্তির দ্বারা উত্তোলন করা সম্ভব হয়৷ দেখতে গেলে প্রায় ভাসমান অবস্থায় এই ট্রেন ঝড় তুলতে পারে। চাকা ছাড়া ভাসতে পারে বলেই এই সুপার বুলেট ম্যাগলেভ ট্রেনটি অনেকে 'ফ্লোটিং ট্রেন' বলেও ডাকছে৷ চুম্বকীয় উত্তোলনের জন্য ট্রেন লাইনের সঙ্গে ইঞ্জিন বা কামরার ঘর্ষণ হয় না। গতি বেড়ে যায় বহুগুণ৷ এখন দেখার কবে এই ট্রেন চালু করে চিন৷

    Published by:Subhapam Saha
    First published: