corona virus btn
corona virus btn
Loading

5G-তে করোনা ভাইরাসের সঙ্গে মোকাবিলা, প্রস্তুতি নিচ্ছে ভারত

5G-তে করোনা ভাইরাসের সঙ্গে মোকাবিলা, প্রস্তুতি নিচ্ছে ভারত

ভারতেও এই 5G টেকনোলজি নিয়ে আসার প্রস্তুতি চলছে।

  • Share this:

বিশ্বজুড়ে করোনা-কাঁপুনি। ক্রমেই বেড়েই চলেছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৷ বিশ্বজুড়ে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর সংখ্যা ১৪ হাজার ছাড়াল৷ আক্রান্তের সংখ্যা ৩ লক্ষ ৩০ হাজার৷ তার মধ্যে শুধুমাত্র ইতালিতেই মৃতের সংখ্যা প্রায় সাড়ে ৫ হাজার। ইতালিতে করোনায় মৃত্যু সর্বোচ্চ। আমেরিকাতেও করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৩৩ হাজার ছাড়িয়েছে৷ ইতালি, আমেরিকায় করোনার দাপট অব্যাহত থাকলেও পরিস্থিতি অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে এনে ফেলেছে চিন৷ সেখানে নতুন করে দেশের মধ্যে আর কেউ করোনায় আক্রান্ত হননি বলেই দাবি করেছে চিনা প্রসাশন৷ ভারতে এখনও পর্যন্ত ৩১৫ জনের শরীরে ধরা পড়েছে মারণ ভাইরাস৷ রবিবার নতুন করে ৮১ জনের দেহে ধরা পড়েছে করোনা৷ মৃত্যুর সংখ্যা ৮ ৷

চিন থেকে শুরু হয়েছিল এই করোনা ভাইরাস, আর চিন থেকে শুরু হবে এই মারণ ভাইরাসের শেষ। আসলে, চিন দাবি করেছে যে 5G প্রযুক্তির সাহায্যে করোনার ভাইরাসের মতো একটি অতিমারীকে নির্মূল করা সম্ভব।

চিন বলছে যে 5G-র থার্মাল ইমেজিং প্রযুক্তি Contagion (সংক্রামক রোগ) মনিটরিং করতে পারে। এই প্রজুক্তির সাহায্যে বেশি সঠিক ভাবে যে কোনও বস্তু, যা চলাফেরা করে, তার তাপমাত্রা মাপা সম্ভব। তাপমাত্রা মাপার জন্য সেই বস্তুকে চোঁয়ার দরকারও পড়বে না। বৃহস্পতিবার চিন একটি সমীক্ষার মাধ্যমে এই কথাটি জানিয়েছে।

Huawei আর Deloitte-এর যৌথ সমীক্ষা অনুযায়ী, পাব্লিক হেল্‌থকেয়ার সিস্টেমের উপরে বিশাল চাপের সৃষ্টি করেছে এই COVID-19। কোনও ধরণের মহামারী হলে যে রেসপন্স সিস্টেম কাজ করে তার উপরেও যে এর প্রভাব পড়েছে তা স্পষ্ট। চিনের বেস কিছু টেলিকম কোম্পানি অপারেটররা Huawei-এর সঙ্গে হাত মিলিয়ে COVID-19-এর চিকিত্সা চলছে এমন হাসপাতালে আলাদা করে 5G নেটওয়ার্ক সেটআপ করেছে। 5G প্রযুক্তির বেশি ভাল স্পিড আর নির্ভর যোগ্যতার কারনে চিনের হেল্‌থকেয়ার সিস্টেম অনেক সাহায্য পেয়েছে। এর সাহায্যে রোগীদের মনিটরিং, ডেটা কালেকশন আর সেই ডেটার অ্যানালাইসিস করেতেও সুবিধা হয়েছে। কোম্পানি জানিয়েছে যে এই ধরনের বিপর্যয় মোকাবেলা করতে 5G প্রযুক্তি সাহায্য করতে পারে।

এই স্টাডি অনুযায়ী, 5G-র সাহায্যে যে কোনও রোগীকে এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় ট্রান্সফার করার সময় সেই রগির সারাক্ষণ মনিটরিং -এর সঙ্গে সঠিক চিকিত্সাও করা সম্ভব হবে। টেলিকনফারেন্সিং করার জন্যও একটি সবথেকে কুশল প্রযুক্তি। এই প্রযুক্তির সাহায্যে ডাক্তাররা নিজের রোগীদের যে কোনও জায়গা থেকে বসে চিকিৎসা করতে পারবে। ভারতেও এই 5G টেকনোলজি নিয়ে আসার প্রস্তুতি চলছে।

First published: March 23, 2020, 1:56 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर