প্রযুক্তি

corona virus btn
corona virus btn
Loading

চাঁদেও 4G নেটওয়র্ক! নোকিয়ার সঙ্গে গাঁটছড়া বেঁধে দাবি নাসার

চাঁদেও 4G নেটওয়র্ক! নোকিয়ার সঙ্গে গাঁটছড়া বেঁধে দাবি নাসার

চাঁদের মাটিতে 4G নেটওয়র্ক বসানোর আনুষ্ঠানিক ঘোষণা হয়েছে ১৫ অক্টোবর

  • Share this:

আধুনিক সময়ে স্মার্টনেস মাপার একক যেন হাই স্পিড ইন্টারনেট। পৃথিবীর কোণে কোণে পৌঁছে গিয়েছে ৪ জি নেটওয়র্ক। এ বার খুব শিগগির চাঁদেও পৌঁছে যাবে 4G নেটওয়র্ক। এই উদ্দেশ্যেই মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ন্যাশনাল এয়ারোনটিকস অ্যান্ড স্পেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশন ওরফে নাসা-র সঙ্গে চুক্তিতে আসছে Nokia। এই প্রকল্পে খরচ হবে ৩৭০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। প্রকল্পের ১৪.১ মিলিয়ন খরচ বহন করবে নাসা।

চাঁদের মাটিতে 4G নেটওয়র্ক বসানোর আনুষ্ঠানিক ঘোষণা হয়েছে ১৫ অক্টোবর। বেল ল্যাব এক গুচ্ছ ট্যুইট শেয়ার করে জানিয়েছে, চাঁদের মাটিতে 4G প্রযুক্তি বসানোর ব্যাপারে নাসার সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হতে পেরে তারা খুবই উত্তেজিত। চাঁদের মাটিতে মানুষের বসবাসের রাস্তা এই উদ্যোগের ফলে আরও একটু সহজ হয়ে উঠবে।

নাসা-র স্পেস টেকনোলজি মিশন এর দায়িত্বে থাকা জিম রয়টার জানিয়েছেন, চাঁদের মাটিতে সেলুলার কানেকটিভিটি ভালো হলে মহাকাশচারীদের মধ্যে যোগাযোগ রাখা আরও সহজ হয়ে উঠবে।

গত মাসে নাসা আর্টেমিস এক্সপ্লোরেশন প্রোগ্রাম সম্পর্কে বিশদে আনুষ্ঠানিক ঘোষণা করেছে। ২০২৪ সালের মধ্যেই হতে চলেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পরবর্তী চন্দ্রাভিযান। প্রথম কোনও মহিলা মহাকাশচারী পা রাখতে চলেছেন চাঁদের মাটিতে। নিঃসন্দেহে যা ২০২৪ সালের চন্দ্রাভিযানের অন্যতম এক বৈশিষ্ট্য।

তবে এখানেই শেষ নয়। সম্প্রতি আরও এক মজার ঘটনার সঙ্গে নাম জুড়েছে নাসা-র। সভ্যতার ইতিহাসে এমন ঘটনা ঘটেনি। মার্কিন এক প্রসাধনী সংস্থা- এস্টি লডার তাঁদের বিউটি প্রোডাক্ট এর মধ্যেই পাঠিয়ে দিয়েছে মহাকাশে। মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা-র মহাকাশযান ব্যবহার করা হয়েছে এর জন্য। সেই প্রোডাক্ট ব্যবহার করে মহাকাশচারীরাই তাঁদের অভিজ্ঞতা সরাসরি ক্যামেরাবন্দি করবেন বলে খবর দাবি করেছে।

সেই খবর মোতাবেকে আরও জানা গিয়েছে যে এস্টি লডার-এর নাইট রিপেয়ার সিনক্রোনাইজড মাল্টি রিকভারি কমপ্লেক্স ক্রিম পাঠানো হয়েছে মহাকাশে। আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনে বিউটি প্রোডাক্টের বাজার ধরাই এই প্রসাধনী সংস্থার আসল লক্ষ্য। চলতি বছরের ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০ তে পৃথিবী থেকে রওনা হয়েছিল এস্টি লডার-এর শ্যুটিং টিম। আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনে পৌঁছেছেন তাঁরা ৩ অক্টোবর। দেখা যাক, শেষ পর্যন্ত কেমন ভিডিও তোলেন তাঁরা!

Published by: Ananya Chakraborty
First published: October 17, 2020, 7:55 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर