ISL 2017-18: ঘরের মাঠে পুণের কাছে চার গোলে বিধ্বস্ত গতবারের চ্যাম্পিয়নরা

Siddhartha Sarkar | News18 Bangla
Updated:Nov 26, 2017 11:57 PM IST
ISL 2017-18: ঘরের মাঠে পুণের কাছে চার গোলে বিধ্বস্ত গতবারের চ্যাম্পিয়নরা
Photo: ISL
Siddhartha Sarkar | News18 Bangla
Updated:Nov 26, 2017 11:57 PM IST

এটিকে- ১ (বিপিন)

পুণে সিটি এফ সি- ৪ (মার্সেলো-২, রোহিত, আলফারো)

#কলকাতা : আইএসএলের চার বছরের ইতিহাসে পুণে সিটি এফ সি মনে রাখার মতো কোনও পারফরম্যান্স করুক বা না করুক একটা বিষয় তারা ধারাবাহিকভাবে করে গিয়েছে ৷ সেটা হল টুর্নামেন্টের দু’বারের চ্যাম্পিয়ন এটিকে-কে প্রায় সব ম্যাচেই হারানো ৷এখনও পর্যন্ত মাত্র একবারই হৃত্বিক রোশনের দল হেরেছে কলকাতার কাছে ৷রবিবারের ম্যাচ ধরলে এই নিয়ে ছ’বার এটিকে-কে হারাল পুণে ৷ আর যুবভারতীতে এদিন রাঙ্কো পোপোভিচের দল শুধু জিতলই না, ধ্বংস করল এটিকে-কে ৷ ম্যাচের ফল ১-৪ ৷এটিকে-র ফুটবলাররা যে এদিন প্রায় আত্মসমর্পণ করেছেন  স্কোর লাইনেই তা স্পষ্ট ৷

ফ্রি-কিকে বিপিনের একমাত্র গোলটা বাদে ম্যাচে এটিকে-র বলার মতো পারফরম্যান্স কিছুই নেই ৷জঘন্য ডিফেন্স, ছন্নছাড়া মিডফিল্ড ৷ ততোধিক জঘন্য গোলকিপিং ৷ গতবারের চ্যাম্পিয়ন দলের অন্যতম নায়ক দেবজিত মজুমদারের তিন কাঠির তলায় এদিনের পারফরম্যান্স দেখে হতাশই হতে হল ৷ ম্যাচে কোনও ভাল সেভ তাঁর কাছ থেকে পাওয়া যায়নি ৷ পুণের স্ট্রাইকাররা এদিন অবলীলায় গোল করে গিয়েছেন ৷ পুণেও যে দুর্দান্ত কিছু খেলেছে তা নয় ৷ কিন্তু গোলের সুযোগগুলিকে কাজে লাগাতে সফল মার্সেলিনোরা ৷যে কাজে আবার একেবারেই ব্যর্থ এটিকে ৷

আরও পড়ুন--

‘‘ বিপিনের গোলে সমতায় ফেরার পর দল ঘুমিয়ে পড়েছিল ’’: শেরিংহ্যাম

প্রথমার্ধে গোলের বেশ কয়েকটি সুযোগ পেলেও সেগুলিকে কাজে লাগাতে পারেননি এটিকে-র ফুটবলাররা ৷মার্কি আইরিশ তারকা রবি কিন, জয়েশ রানে-সহ দলের একাধিক গুরুত্বপূ্র্ণ ফুটবলাররা এখন চোট-আঘাত সমস্যায় ভুগছেন ৷ দলের বাকি প্লেয়ারদের খেলা দেখেও এদিন হতাশই হতে হল ৷ প্রথম ম্যাচে কেরলের কাছে গোলশূন্য ড্র-য়ের পর এবার চার গোল হজম ৷ এবারের আইএসএল-এর শুরুটা মোটেই ভাল হল না এটিকে-র ৷ তবে এবছর লম্বা টুর্নামেন্টে ৷ এখনও অনেক ম্যাচ বাকি ৷ সামনের ম্যাচগুলিতে সব বিভাগেই উন্নতি করা ছাড়া আর কোনও বিকল্প নেই টেডি শেরিংহ্যামের দলের কাছে ৷

যুবভারতীতে এদিন খেলা দেখতে এসেছিলেন ৩২,৮১৬ দর্শক ৷ অনূর্ধ্ব-১৭ বিশ্বকাপের ম্যাচগুলির তুলনায় এই সংখ্যাটা অত্যন্ত কম ৷ প্রথম ম্যাচেই তাঁদের যা অভিজ্ঞতা হল, তাতে এটিকে-র পরের হোম ম্যাচগুলিতে মাঠে দর্শকসংখ্যা আরও কম হলে অবাক হওয়ার কিছু থাকবে না ৷

First published: 10:29:51 PM Nov 26, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर