পুরীর ধাঁচে গঙ্গাসাগরকে সাজাতে উদ্যোগী রাজ্য– News18 Bengali

পুরীর ধাঁচে গঙ্গাসাগরকে সাজাতে উদ্যোগী রাজ্য

পুরীর ধাঁচে গঙ্গাসাগরকে সাজাতে উদ্যোগী রাজ্য। গতকাল কপিল মুনির আশ্রম ও সংলগ্ন গঙ্গাসাগরের উপকূল ঘুরে দেখেন মুখ্যমন্ত্রী।

Dolon Chattopadhyay | News18 Bangla
Updated:Dec 28, 2017 09:02 AM IST
পুরীর ধাঁচে গঙ্গাসাগরকে সাজাতে উদ্যোগী রাজ্য
নিজস্ব চিত্র
Dolon Chattopadhyay | News18 Bangla
Updated:Dec 28, 2017 09:02 AM IST

#কলকাতা: পুরীর ধাঁচে গঙ্গাসাগরকে সাজাতে উদ্যোগী রাজ্য। গতকাল কপিল মুনির আশ্রম ও সংলগ্ন গঙ্গাসাগরের উপকূল ঘুরে দেখেন মুখ্যমন্ত্রী। মেলা শুরুর আগেই পর্যটকদের থাকার ব্যবস্থা ও মেলা ঘিরে পরিকল্পনা সরেজমিনে ঘুরে দেখেন তিনি। জাতীয় পরিবেশ আদালতের বিধি মেনে দ্রুত কাজ শেষের নির্দেশ দিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

যুব বিশ্বকাপের ধাঁচে গঙ্গাসাগর মেলাকেও আন্তর্জাতিক মানে পৌঁছে দিতে উদ্যোগী রাজ্য। গঙ্গাসাগর মেলাকে ঘিরে ব্র্যান্ডিংয়ের কাজও শুরু হয়েছে। গঙ্গাসাগর দ্বীপের পর্যটনের পরিকাঠামো উন্নয়নে একাধিক পদক্ষেপ করা হচ্ছে। প্রশাসনের শীর্ষকর্তাদের নিয়ে সরেজমিন ঘুরে দেখেন মুখ্যমন্ত্রী। রাজ্য সরকারের পরিকল্পনায়, পুরীর ধাঁচে গঙ্গাসাগরকে তৈরি করা হবে। শুধু মন্দিরমুখী পর্যটন নয়, সমুদ্র সৈকতকেও ঢেলে সাজতে উদ্যোগী হয়েছে রাজ্য। সাতাশ কিলোমিটার সমুদ্র সৌকতের উন্নয়ন ও সৌন্দর্যায়ন করা হবে এই প্রকল্পের আওতায়। তবে, উন্নয়নের কাজে কোনওভাবেই যাতে পরিবেশ ক্ষতিগ্রস্ত না হয়, তা নিশ্চিত করতে জাতীয় পরিবেশ আদালতের বিধি মেনেই কাজ করার নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

বুধবার সকালেই মুখ্যসচিব ও পরিবহণ সচিব গঙ্গাসাগরের সাতাশ কিলোমিটার সমুদ্র সৈকত ঘুরে দেখেন। পর্যটকদের যাতায়াতের জন্য একটি নতুন জেটি তৈরি করছে রাজ্য। ইতিমধ্যেই বহু মানুষ গঙ্গাসাগরে ভিড়জমাতে শুরু করেছেন। মেলার সময় আরও বহু মানুষ এখানে আসেন। এছাড়া সারা বছরই দেশি-বিদেশি পর্যটকরা গঙ্গাসাগরে আসেন। তাঁদের জন্য নতুন পর্যটক আবাস তৈরির কাজ শুরু হয়েছে। এদিন দ্রুত সেই কাজ শেষ করার নির্দেশ দেন মুখ্যমন্ত্রী।

First published: 09:02:00 AM Dec 28, 2017
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर