সদ্য সাতপাকে বাঁধা পড়েছেন বুমরাহ, তবে আগেই সংসারজীবনের মোক্ষম উপদেশ দিয়েছিলেন যুবরাজ

সদ্য সাতপাকে বাঁধা পড়েছেন বুমরাহ, তবে আগেই সংসারজীবনের মোক্ষম উপদেশ দিয়েছিলেন যুবরাজ

সদ্য সাতপাকে বাঁধা পড়েছেন বুমরাহ, তবে আগেই সংসারজীবনের মোক্ষম উপদেশ দিয়েছিলেন যুবরাজ!

কী সেই পরামর্শ? জেনে নেওয়া যাক!এক নতুন জীবনে পা রেখেছেন তিনি। তবে গত বছরই বিয়ে ও সংসার জীবন নিয়ে জুনিয়র বুমরাহকে বেশ কয়েকটি উপদেশ দিয়েছিলেন যুবরাজ সিং।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: সদ্য গোয়ায় বিয়ে করলেন ভারতীয় ক্রিকেট দলের তারকা বোলার যশপ্রীত বুমরাহ (Jasprit Bumrah)। এক নতুন জীবনে পা রেখেছেন তিনি। তবে গত বছরই বিয়ে ও সংসার জীবন নিয়ে জুনিয়র বুমরাহকে বেশ কয়েকটি উপদেশ দিয়েছিলেন যুবরাজ সিং (Yuvraj Singh)। গত বছর করোনার সময় প্রায় দিন ঘরবন্দি থাকতে হয়েছে। তখন Instagram-এ একটি লাইভ সেশনে অংশ নেন দু'জনে। আর ঠিক সেখানেই যুবরাজ সিংয়ের থেকে বিয়ে নিয়ে একটি পরামর্শ পান যশপ্রীত বুমরাহ। কী সেই পরামর্শ? জেনে নেওয়া যাক!

লাইভ সেশনে একটি মজার কাণ্ড ঘটে। এক কথোপকথন সূত্রে উঠে আসে এই প্রসঙ্গ। বলা বাহুল্য, বুমরাহ ও যুবরাজের মধ্যে প্রায় ১৪ বছরের ব্যবধান। যশপ্রীতের কথায়, জীবনের সমস্ত ক্ষেত্রেই যুবরাজ অনেক বেশি অভিজ্ঞ। এমনকী, বিয়ের দিক দিয়েও তাঁর অভিজ্ঞতা বেশি। আর সেই পরিপ্রেক্ষিতেই যুবরাজের প্রতি বুমরাহর জিজ্ঞাসা, তোমার কাছে না কি মা বড্ড প্রিয়। প্রায়শই তোমাকে মাম্মাজ বয় বলে ডাকা হয়। আচ্ছা বিয়ের পরেও মানে এখনও কি তুমি মাম্মাজ বয়? আর এর উত্তরেই জুনিয়র বুমরাহকে বেশ কয়েকটি পরামর্শ দেন ভারতের অন্যতম সেরা ক্রিকেটার যুবরাজ।

লাইভ সেশনে যুবরাজ জানান, মা বরাবর-ই প্রিয়। অর্থাৎ ওয়ানস আ মাম্মাজ বয়, অলয়েজ আ মাম্মাজ বয়। তবে কিছু বিষয় রয়েছে। বুমরাহকে উদ্দেশ্য করে তাঁর বার্তা, তোমার জীবনে এখনও শান্তি রয়েছে। তবে একবার বিয়ে করলেই সেটা পালটে যাবে। এখনই যা আনন্দ করার করে নাও। কারণ বিয়ে করলে সারা জীবন সংসার ও সম্পর্কের ভারসাম্য বজায় রাখতেই কেটে যাবে। জীবনসঙ্গী ভাল হলে হয় তো কাজটা একটু সহজ হয়ে যায়। তবে আগের সেই জীবন আর ফিরে পাওয়া যায় না।

প্রসঙ্গত, ১৫ মার্চ সঞ্জনা গণেশনকে (Sanjana Ganesan) বিয়ে করেন বুমরাহ। গোয়াতে নিজেদের মধ্যেই চুপি চুপি বিয়ে সেরে ফেলেন দু'জনে। পরের দিন সোশ্যাল মিডিয়ায় একের পর এক ছবি ভাইরাল হতে শুরু করে। সূত্রে খবর, করোনার কথা মাথায় রেখে মাত্র ২০ জন আত্মীয় নিয়েই সম্পন্ন হয় বিয়ের অনুষ্ঠান। তবে গত কয়েক দিন ধরে ভারতীয় দলের তারকা পেস বোলারের বিয়ে নিয়ে জোর গুঞ্জন শুরু হয়েছিল। কবে থেকে যে দু’জন প্রেম করছেন, সেই বিষয়টিও জানা যায়নি।

বিভিন্ন সূত্রে খবর, বছর কয়েক আগে BCCI-এর বাৎসরিক অনুষ্ঠানে দু’জনের দেখা হয়েছিল। সেখান থেকেই না কি প্রেম শুরু হয়। এর মাঝেই মোতেরায় ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে গোলাপি বলের টেস্ট খেলার পর ছুটি নিয়ে নেন বুমরাহ। পরে BCCI-এর তরফে জানানো হয়, ব্যক্তিগত কারণে ছুটি নিয়েছেন তিনি। সেই থেকেই একের পর এক গুঞ্জন শুরু হয়। শেষমেশ জল্পনার অবসান ঘটিয়ে সাতপাকে বাঁধা পড়লেন বুমরাহ।

Written By: Sovan Chanda

Published by:Swaralipi Dasgupta
First published: