‘বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ভারত না খেললে ম্যাচ কে জিতবে ?...', সাফ প্রশ্ন সুনীল গাভাস্করের

‘বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ভারত না খেললে ম্যাচ কে জিতবে ?...', সাফ প্রশ্ন সুনীল গাভাস্করের
Photo -AP
  • Share this:

#মুম্বই :  পুলওয়ামা জঙ্গি হানার পর থেকেই গোটা দেশ জুড়ে পাকিস্তান বিরোধী হাওয়া জোরদার ৷ ক্রিকেটমহল থেকেও প্রশ্ন উঠেছে পাকিস্তানের সঙ্গে খেলার মাঠেও সমস্ত সম্পর্ক ত্যাগ করার ৷ হরভজন সিং প্রথম জোরালো সওয়াল করেছিলেন ভারত যেন পাকিস্তানের বিরুদ্ধে খেলার মাঠেও কোনওরকম সম্পর্ক না রাখে ৷ ৪০ জন জওয়ানকে যেভাবে জঙ্গি হামলায় মৃত্যুর শিকার হতে হয়েছে তাতে ক্ষুব্ধ জনতা থেকে প্রশাসন ৷সৌরভ -আজহাররাও ভাজ্জির সুরেই সুর মিলিয়েছেন ৷ তাঁদের সাফ বক্তব্য সন্ত্রাসবাদকে যতদিন না পাকিস্তান মদত দেওয়া বন্ধ করছে ততক্ষণ এই দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক আর জোড়া লাগানো উচিত নয় ৷ এই পর্যায়েই উঠে এসেছে বিশ্বকাপে ভারত ও পাকিস্তানের ম্যাচ খেলার কথা ৷ এমনিতেই ভারত ২০১২ -র পর থেকে পাকিস্তানের সঙ্গে কোনও দ্বিপাক্ষিক সিরিজ খেলে না ৷ শেষবার এই দুই দেশ ক্রিকেট সিরিজ খেলেছে ২০০৭ সালে ৷ এবার আইসিসি- ইভেন্টেও সেইভাবে পাকিস্তানকে বয়কটের দাবি উঠেছে গোটা দেশের বিভিন্ন অংশ থেকে ৷

4-1-2

তবে সুনীল গাভাস্করের মত চলতি হাওয়ার বিপরীতে ৷ তিনি সরাসরি বলেছেন,‘‘ ভারত বনাম পাকিস্তান ম্যাচ খেলা না হলে কে জিতবে ৷ ম্যাচ না খেলার জন্য পাকিস্তান ২ পয়েন্ট পেয়ে যাবে ৷ ’’ শুধু এটুকু বলেই থামেননি সানি ৷ তিনি জোর দিয়ে বলেছেন , বিশ্বকাপের মঞ্চে কখনই ভারতের বিরুদ্ধে জিততে পারেনি পাকিস্তান ৷ তাহলে কেন তাঁদের হারানোর এই সুযোগটা হাতছাড়া করবে ভারত ৷

গাভাস্কর বলেছেন,‘‘  ভারত যদি পাকিস্তানের বিরুদ্ধে না খেলে তাহলে তাহলে পাকিস্তানের কিন্তু হারানোর কিছু থাকছে না ৷ ভারত ২ পয়েন্ট খোয়াবে ৷ সুতরাং ক্ষতিটা ভারতেরই হবে ৷ ম্যাচ না খেলেও তাদের হেরে যেতে হবে ৷ আমাদের বর্তমানের ক্রিকেট দল খুবই শক্তিশালী তাহলে কেনও এরকম করা হবে ৷ সবকিছুই আরও একটু গভীরভাবে চিন্তাভাবনা করা উচিত ৷ ’’

এদিকে যা গুঞ্জন তাতে বিশ্বকাপে ভারত বনাম পাকিস্তান ম্যাচ নিয়ে আইসিসি-র দ্বারস্থ হতে পারে ভারত ৷ কিন্তু যদি বড় কোনও অঘটন না ঘটে তাহলে ক্রীড়াসূচিতে এরজন্য কোনওরকম বদল আনবে না আইসিসি ৷ উল্টে ম্যাচ না খেলায় কেটে নেওয়া হবে ভারতেরই পয়েন্ট , এমনটাই মত গাভাস্করের ৷

Loading...

আরও দেখুন

First published: 01:39:57 PM Feb 22, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर