Home /News /sports /
দশকসেরা ক্রিকেটার হওয়ার ইঙ্গিত ১০ বছর আগেই দিয়েছিলেন বিরাট কোহলি? ভাইরাল পুরনো ট্যুইট

দশকসেরা ক্রিকেটার হওয়ার ইঙ্গিত ১০ বছর আগেই দিয়েছিলেন বিরাট কোহলি? ভাইরাল পুরনো ট্যুইট

দশক পেরিয়ে সেই স্বপ্ন পূরণ। এখন তিনি ভারতীয় দলের রান মেশিন। বিশ্ব ক্রিকেটের এক অনবদ্য প্রতিভা। ICC নির্বাচিত এই দশকের সেরা পুরুষ ক্রিকেটার। সে দিনের সেই ট্যুইট আজ ফের ভাইরাল হতে শুরু করেছে।

  • Last Updated :
  • Share this:

#নয়াদিল্লি: ৬৬টি শতরান, ৯৪টি অর্ধশতরানের সুবাদে মোট রান ২০,৩৯৬। এক দশক জুড়ে তাঁর একের পর এক দুরন্ত ইনিংসে সমৃদ্ধ হয়েছে ভারতীয় ক্রিকেট তথা বিশ্ব ক্রিকেট। বছর দশেক আগের ২২ গজের সেই সেই তরুণের আগ্রাসন সময়ের সঙ্গে ধীরে ধীরে কোথাও যেন দলের সিনিয়র প্লেয়ারের দায়বদ্ধতায় বদলেছে। চওড়া ব্যাটে গড়েছেন একের পর এক রেকর্ড। বিরাট কোহলি। ৩২ বছর বয়সী এই ক্রিকেটারই এখন এই গোটা একটা দশকের সেরা ক্রিকেটার। সম্প্রতি ICC মেল ক্রিকেটার অফ দা ডিকেড- এ সম্মানিত হয়েছেন তিনি। আর এই রকম একটি দিনে তাঁর দশ বছরের পুরনো একটি ট্যুইটে মজেছেন নেটিজেনরা।

ইতিমধ্যেই নিজের অফিসিয়াল ট্যুইট অ্যাকাউন্টে বিরাটের ছবি পোস্ট করে শুভেচ্ছা জানিয়েছে ICC।

https://twitter.com/ICC/status/1343477972624416768

তখন বিরাটের কেরিয়ার শুরুর দিকে। আজ থেকে ১০ বছর আগে অর্থাৎ ২০১০ সালের ১৬ মার্চ একবার এক ট্যুইটে বিরাট কোহলি লিখেছিলেন, "আমার দলের জন্য অনেক রান করতে চাই"।

https://twitter.com/imVkohli/status/10553861441

দশক পেরিয়ে সেই স্বপ্ন পূরণ। এখন তিনি ভারতীয় দলের রান মেশিন। বিশ্ব ক্রিকেটের এক অনবদ্য প্রতিভা। ICC নির্বাচিত এই দশকের সেরা পুরুষ ক্রিকেটার। সে দিনের সেই ট্যুইট আজ ফের ভাইরাল হতে শুরু করেছে। রি-ট্যুইট আর কমেন্ট জুড়ে শুধু শুভেচ্ছাবার্তা আর ভূরি ভূরি প্রশংসা।

https://twitter.com/Mittermaniac/status/1343507463757123584https://twitter.com/UtdSudin/status/1343499520403881984https://twitter.com/BaazAaJaoSaad/status/1343501833608822784https://twitter.com/khush_rhooo/status/1343499072708239361https://twitter.com/dessipinkman/status/1343504386492870661https://twitter.com/JonasTweetzss/status/1343492671516471298https://twitter.com/lelouchverebel/status/1343484924930637825https://twitter.com/DanishSait/status/1343511377130897408

সম্প্রতি BCCI.TV-কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এ নিয়ে কথা বলেন কিং কোহলি। ভারতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক জানান, এই সম্মান নিঃসন্দেহে অনেক বড় ব্যাপার। তবে দশ বছরে যে মুহূর্তগুলি হৃদয়ের সব চেয়ে কাছাকাছি রয়েছে, সেগুলি হল ২০১১ সালে বিশ্বকাপ জয়, ২০১৩ সালে চ্যাম্পিয়নস ট্রফি জয় এবং ২০১৮ সালে অস্ট্রেলিয়ায় সিরিজ জয়। তবে এগুলি ছাড়াও গত এক দশক ধরে বেশ কয়েকটি ম্যাচে ভারতীয় দলের পারফরম্যান্সও ব্যক্তিগত ভাবে তাঁর কাছেও স্মরণীয় হয়ে আছে। সে কথাও স্বীকার করে নিয়েছেন বিরাট।

কিন্তু ব্যক্তিগত ইনিংস নিয়ে সে ভাবে কথা বলতে চান না বিরাট। তাঁর কথায়, সে ক্ষেত্রে ইনিংসগুলিকে রেটিং করতে হবে। আর সেটা করার ইচ্ছে তাঁর নেই। কারণ টিমের জন্য খেলা প্রতিটি ইনিংসই অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

কোহলি জানান, শুধু মাত্র নিজের কনসিস্টেনসি নিয়ে ভাবেননি তিনি। মাঠে পা রাখার পর একটাই লক্ষ্য ছিল, যে কোনও মূল্যে দলের জয় সুনিশ্চিত করা। আর এই মাইন্ডসেট নিয়েই এগিয়ে গিয়েছেন তিনি। এই মাইন্ডসেটই নিজের সীমাবদ্ধতাগুলিকে অতিক্রম করে আরও ভালো পারফর্ম করতে সাহায্য করেছে। কোহলির বিশ্বাস, এই মাইন্ডসেটই ক্রিকেটের যে কোনও ফরম্যাটে দীর্ঘদিন পর্যন্ত টিঁকে থাকতে সাহায্য করবে।

প্রসঙ্গত, বিরাটের পাশাপাশি অস্ট্রেলিয়ার স্টিভ স্মিথ (Steve Smith) ICC টেস্ট ক্রিকেটার অফ দা ডিকেডের ( ICC Test Cricketer Of The Decade) সম্মান পেয়েছেন। অন্য দিকে, আফগানিস্তানের লেগ স্পিনার রশিদ খান (Rashid Khan) দশকের সেরা T20 আন্তর্জাতিক ক্রিকেটারের (T20I Cricketer Of The Decade) সম্মান পেয়েছেন। বলা বাহুল্য ICC স্পিরিট অফ ক্রিকেট সম্মান পেয়েছেন ভারতীয় দলের প্রাক্তন অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি (M S Dhoni )।

Published by:Rukmini Mazumder
First published:

Tags: Virat Kohli