Vamika: মেয়ের মুখ কবে দেখাবেন ভক্তদের, জানিয়ে দিলেন বিরাট কোহলি

এতদিন পর ভক্তদের কৌতুহল মেটালেন কোহলি।

এতদিন পর ভক্তদের কৌতুহল মেটালেন কোহলি।

  • Share this:

    #মুম্বাই: স্ত্রীর সঙ্গে সম্পর্কের সমীকরণ নিয়ে একের পর এক পোস্ট করেন তিনি। প্রেমিক ও স্বামী হিসেবে বিরাট কোহলির অ-আ-ক-খ ভক্তরা জানেন। কিন্তু বাবা হিসেবে কোহলির কিছুই তেমন প্রকাশ পায় না। আসলে মেয়ে ভামিকার ব্যাপারে কোহলি একেবারেই মুখচোরা। মেয়ের ব্যাপারে বিরাট-অনুষ্কা কেউই কিছু বলতে চান না। সোশ্যাল মিডিয়ায় মেয়ের সম্পর্কে কোনও কিছুই শেয়ার করেন না। এই নিয়ে বিরুষ্কার ভক্তদের আফসোসের শেষ নেই। এতদিন হয়ে গেল এখনও পর্যন্ত মেয়ের একটি ছবিও সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেননি বিরাট-অনুষ্কা। মেয়ের মুখ কি ভক্তদের দেখাবেন না বলেই ঠিক করে রেখেছেন তাঁরা! এই ব্যাপারে এতদিন পর ভক্তদের কৌতুহল মেটালেন কোহলি।

    সামনের মাসে ওয়ার্ল্ড টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ ফাইনাল খেলতে যাবে ভারতীয় দল। করোনা পরিস্থিতির জন্য বিদেশ সফরের আগে ভারতীয় দলের ক্রিকেটারদের বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টাইন-এ থাকতে হবে। মুম্বাইয়ের একটি হোটেলে ভারতীয় দলের ক্রিকেটারদের জন্য কোয়ারেন্টাইনে থাকার ব্যবস্থা করেছে বিসিসিআই। ওই হোটেলে জিম, ট্রেনিং চলছে ক্রিকেটারদের। ২ জুন ইংল্যান্ডের উদ্দেশ্যে রওনা দেবে ভারতীয় দল। তবে কোয়ারেন্টাইনে থাকায কতটা কঠিন তা আগেও জানিয়েছেন কোহলি। আর ঘরেবন্দি থাকার শাস্তি এখন তো দেশের সবাই ভোগ করে ফেলেছেন। কোয়ারেন্টাইনে সময় কাটানোর জন্য কোহলি তাঁর ভক্তদের সঙ্গে আড্ডায় জুড়লেন। ভারতীয় দলের অধিনায়ক ভক্তদের কাছে প্রস্তাব রেখেছিলেন, আপনারা প্রশ্ন করুন, আমি উত্তর দেব। ইনস্টাগ্রামে তাঁর সেই প্রশ্ন-উত্তর পর্ব জমল বেশ ভালই। এক ভক্ত আগ বাড়িয়ে প্রশ্ন করে ফেললেন, আপনি কি একবারের জন্য মেয়েকে দেখাবেন! ভামিকা নামের মানে কী, সেটাও জানতে চেয়েছিলেন ওই ভক্ত।

    এর পর বিরাট কোহলি জবাব দেন, দেবী দুর্গার আরেক নাম ভামিকা। তিনি আরও বলেন, ''দম্পতি হিসেবে আমি ও অনুষ্কা ঠিক করেছি, আমাদের মেয়ের ছবি আমরা এখনই সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করব না। যতদিন পর্যন্ত আমাদের মেয়ে নিজে থেকে সোশ্যাল মিডিয়ার অর্থ না বোঝে এবং সেখানে ছবি শেয়ার করার সিদ্ধান্ত নিজেই না নেয়, আমরা ওর ব্যাপারে কিছু শেয়ার করব না।'' চলতি বছরেই ১১ জানুয়ারি বিরাট-অনুষ্কা অভিভাবক হয়েছেন। এখনো পর্যন্ত মেয়ের কোনও ছবি তাঁরা সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেননি।

    Published by:Suman Majumder
    First published: