স্টোকস, জনিদের থামানোর উপায় ছিল না আজ মানছেন কোহলি

স্টোকস, জনিদের থামানোর উপায় ছিল না আজ মানছেন কোহলি

বোলারদের দোষ দিতে রাজি নন বিরাট

কোহলি মেনে নিয়েছেন দীর্ঘদিন তিনি এরকম পার্টনারশিপ দেখেননি। আজ যেন ওই দুজন যাই মারছিলেন, সবই সঠিক জায়গায় লেগে মাঠের বাইরে যাচ্ছিল

  • Share this:

    #পুনে: প্রায় সাড়ে ছয় ওভার বাকি থাকতেই ম্যাচ পকেটে পুরে নিল ইংল্যান্ড। তাও কিনা ৩৩৬ রান তাড়া করে। এমসিএ স্টেডিয়ামে এদিন ডানহাতি জনি বেয়ারস্টো এবং বাঁহাতি বেন স্টোকস যেন ধনুক ভাঙা পণ নিয়ে খেলতে নেমেছিলেন। হেরে গেলে এদিনই সিরিজের ফয়সালা হয়ে যেত। বেঁচে থাকতে গেলে ইংল্যান্ডকে জিততেই হত। ম্যাচ শেষে ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি মেনে নিলেন এত রান করেও হারতে হবে ভাবতে পারেননি। তবে বেন স্টোকস এবং জনি বেয়ারস্টো যে মারকাটারি ইনিংস উপহার দিয়েছেন তার প্রশংসা করতে পিছপা হননি বিরাট।

    ভারত অধিনায়ক জানিয়েছেন আজকের দিনটা তাঁদের ছিল না। এত রান তুলেও হারতে হয়েছে বলে বোলারদের দোষ দিতে চান না। বরং স্পোর্টসম্যান স্পিরিট দেখিয়ে বিপক্ষ দলের লড়াইকে কুর্নিশ জানালেন। বিরাট মনে করেন ক্রিকেটে এক একটা দিন এরকম যায় যখন শত চেষ্টা করেও সফল হওয়া যায় না। তবে ভারত অধিনায়ক মনে করিয়ে দিয়েছেন ইংল্যান্ড বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন। তাই প্রথম একদিনের ম্যাচ হেরে তাঁরা যে এরকম জবাব দিতে পারে সেটা মোটেও অসম্ভব ব্যাপার নয়।

    কোহলি মেনে নিয়েছেন দীর্ঘদিন তিনি এরকম পার্টনারশিপ দেখেননি। আজ যেন ওই দুজন যাই মারছিলেন, সবই সঠিক জায়গায় লেগে মাঠের বাইরে যাচ্ছিল। দুই স্পিনার কুলদীপ এবং ক্রুনালকে নিয়ে ছেলেখেলা করেন এই দুজন। দেখে মনে হচ্ছিল যেন তাড়াতাড়ি ম্যাচ শেষ করে ডিনার টেবিলে যেতে ইচ্ছুক 'বিগ বেন' এবং জনি।

    ক্রিকেট ভক্তদের উদ্দেশ্যে ভারত অধিনায়কের বার্তা," যা হয়েছে ভাল হয়েছে। রবিবার কার্যত ফাইনাল। টি টোয়েন্টিতেও কিন্তু শেষ ম্যাচে সিরিজ নির্ধারিত হয়েছিল। আমরা নিজেদের সেরাটা উজাড় করে দেব" । পাশাপাশি হার্দিক পান্ডিয়াকে বুঝে ব্যবহার করতে হবে বলেই তাঁকে বল করিয়ে অতিরিক্ত চাপে ফেলতে নারাজ বিরাট। ভারত অধিনায়ক মনে করেন এই হারের পর রবিবার দল মুখিয়ে থাকবে মাঠে জবাব দিতে।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published:

    লেটেস্ট খবর