ডিআরএস নিয়ে নিজেদের স্টান্স বদলাচ্ছে বিসিসিআই

বিসিসিআই-এর পক্ষ থেকে এখন যা ইঙ্গিত, তাতে খুব তাড়াতাড়ি ডিসিশন রিভিউ সিস্টেম ব্যবহার করতে চলেছে ভারতীয় ক্রিকেট দলও ৷

বিসিসিআই-এর পক্ষ থেকে এখন যা ইঙ্গিত, তাতে খুব তাড়াতাড়ি ডিসিশন রিভিউ সিস্টেম ব্যবহার করতে চলেছে ভারতীয় ক্রিকেট দলও ৷

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #মুম্বই: ডিআরএস নিয়ে নিজেদের স্টান্স বদলাচ্ছে বিসিসিআই ৷ এতদিন বিশ্বের অন্য দেশগুলি ডিআরএস ব্যবহার করলেও ভারত এই প্রযুক্তি ব্যবহারে একেবারেই রাজি ছিল না ৷কিন্তু এখন অন্যরকম চিন্তাভাবনা করছে বোর্ড ৷ বিসিসিআই-এর পক্ষ থেকে এখন যা ইঙ্গিত, তাতে খুব তাড়াতাড়ি ডিসিশন রিভিউ সিস্টেম ব্যবহার করতে চলেছে ভারতীয় ক্রিকেট দলও ৷তবে এখনও চার দিনের টেস্টে সম্মতি নেই ভারতীয় বোর্ডের ৷

    ডিআরএস ব্যবহার করলেও অবশ্য তা শর্তসাপেক্ষে ব্যবহারের ইঙ্গিত দিয়েছেন বোর্ড সভাপতি অনুরাগ ঠাকুর ৷শর্তটা হল, এলবিডব্লিউ-র সিদ্ধান্তে হক আই ব্যবহার করা যাবে না। কারণ, এই প্রযুক্তি নিখুঁত নয় বলে যুক্তি বিসিসিআই-এর।

    ধোনিদের মার্কিন সফরের আগে অবশ্য ডিআরএস নিয়ে কোনওদিনই কোনও পজিটিভ কথা শোনা যায়নি ভারতীয় বোর্ড কর্তাদের মুখে ৷ বিসিসিআইয়ের বক্তব্য ছিল, এই প্রযুক্তি এখনও নির্ভুল নয় ৷ এর আরও উন্নতির প্রয়োজন ৷সম্প্রতি আইসিসি বোস্টনের ম্যাসাচুসেটস ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজির এক বিশেষজ্ঞ দলকে ডিআরএস নিয়ে আরও বিস্তারিত গবেষণার দায়িত্ব দিয়েছিল। সেই গবেষণার রিপোর্ট সম্প্রতি আইসিসি-কে দিয়েছেন তাঁরা। আর ভারতীয় দলের কোচ অনিল কুম্বলে যেহেতু আইসিসি-র ক্রিকেট কমিটিরও প্রধান, তাই সেই রিপোর্ট তিনিও পেয়েছেন। কুম্বলের পরামর্শেই এই অবস্থানে পৌঁছেছে বোর্ড।

    অনুরাগ ঠাকুরের বক্তব্য, ‘‘হক আই প্রযুক্তি ১০০ শতাংশ নিখুঁত কি না, সেই প্রশ্ন আমি আগেও তুলেছিলাম। মার্কিন বিশেষজ্ঞরাই যখন এই ব্যাপারে নিশ্চিত নন, তখন আমাদেরও কিছু বলার নেই। যে প্রযুক্তি ১০০ শতাংশ নিখুঁত নয়, সেই প্রযুক্তি ব্যবহার করে কোনও সিদ্ধান্ত নেওয়া যায় না কি? আমরা আংশিক ভাবে ডিআরএস ব্যবহার করতে পারি। তবে এলবিডব্লিউ-এর সিদ্ধান্ত এর মাধ্যমে নেওয়া যাবে না। হক আই-কে বাইরে রেখেই এটা করতে হবে। দেখা যাক, আইসিসি সম্মতি দেয় কি না।’’

    First published: