খেলা

corona virus btn
corona virus btn
Loading

অস্ট্রেলিয়ায় কোভিড বিধি ভাঙার অভিযোগ কোহলি-হার্দিকের বিরুদ্ধে,পাশে স্টোর মালিক !

অস্ট্রেলিয়ায় কোভিড বিধি ভাঙার অভিযোগ কোহলি-হার্দিকের বিরুদ্ধে,পাশে স্টোর মালিক !

ইতিমধ্যেই ভারতীয় দলের প্রত্যেকের করোনা টেস্ট নেগেটিভ এসেছে। আগামীকাল থেকে শুরু হচ্ছে সিডনি টেস্ট। তাই মেলবোর্ন থেকে সিডনির দিকে রওনা দিচ্ছেন তাঁরা। আপাতত, সে দিকে তাকিয়ে সবাই।

  • Share this:

#সিডনি: কোভিড বিধি লঙ্ঘণ নিয়ে ভারত ও অস্ট্রেলিয়া দুই দেশ এবং তাদের সংবাদমাধ্যমের মধ্যে উত্তেজনা ক্রমবর্ধমান। মেলবোর্নে রোহিত শর্মা (Rohit Sharma), শুভমন গিল (Shubman Gill) সহ কয়েকজনের বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ উঠেছিল। আদা-জল খেয়ে ভারতীয় ক্রিকেটারদের পিছু নিয়েছিলেন অস্ট্রেলিয়ার সংবাদমাধ্যম। এবার সেই বিতর্কে নাম জড়াল অধিনায়ক বিরাট কোহলি (Virayt Kohli) ও অলরাউন্ডার হার্দিক পাণ্ড্যর (Hardik Pandya)। এক বেবি স্টোরে কোহলি ও হার্দিকের মাস্কহীন ছবি নিয়ে চরম বিতর্ক তৈরি হয়েছে। তবে কোহলি ও হার্দিকের পাশে রয়েছেন স্টোরের মালিক।

বর্তমানে ভারতে রয়েছেন কোহলি ও হার্দিক। কিন্তু ডিসেম্বরের এক ছবি ঘিরেই বিতর্ক শুরু হয়েছে। ৭ ডিসেম্বরের ছবিতে দেখা যাচ্ছে, দোকানে কয়েকজন মহিলার সঙ্গে দাঁড়িয়ে আছেন তাঁরা। কিন্তু কারও মুখেই মাস্ক নেই। এরপরই একাধিক সংবাদ প্রকাশ্যে আসে। করোনা বিধিভঙ্গের অভিযোগ ওঠে দু'জনের বিরুদ্ধে।

তবে, এই বিতর্কিত পরিস্থিতিতে বিরাট ও হার্দিকের পাশে দাঁড়িয়েছেন বেবি ভিলেজের মালিক। ইন্ডিয়া টুডে-এর এক প্রতিবেদনে এ নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে। এক্ষেত্রে পুরো বিষয়টিকে অস্বীকার করেছেন সিডনির বেবি ভিলেজের মালিক নাথান পনগ্রাস। তাঁর কথায়, বিরাট কোহলি ও হার্দিক পাণ্ড্য সমস্ত নিয়ম মেনেছিলেন। বজায় রেখেছিলেন সামাজিক দূরত্ব। দোকানের কর্মীদের থেকেও দূরত্ব বজায় রেখেছিলেন।

বিষয়টি নিয়ে অযথা জল ঘোলা করা হচ্ছে বলে দাবি তাঁর। পনগ্রাসের কথায়, সাধারণভাবে ডিসেম্বরের প্রথম সপ্তাহের দিকে সংক্রমণ কম ছিল। নিউ সাউথ ওয়েলসে তখন সেভাবে কেউ মাস্কই ব্যবহার করতেন না। এমনকি সিডনিতে বেশ কয়েজন অন্তঃসত্ত্বাও মাস্ক ছাড়াই বাইরে বেরোতেন।

সেই সময়ে তেমন কোনও বিধিনিষেধ না থাকলেও কোহলি ও হার্দিক সমস্ত নিয়ম মেনেছেন। বিষয়টি খুব সাধারণ। কিন্তু মিডিয়া তাকে টেনে টেনে বাড়াচ্ছে। তিনি আরও জানান, সেদিন কোহলি ও হার্দিকের সঙ্গে বেশ কিছু ছবি তোলা হয়েছিল। ছবিগুলি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্টও করা হয়েছে। পুরো বিষয়টি নিয়ে তাঁরা গর্বিত। কোহলি ও হার্দিকের সঙ্গে একটা দারুণ অভিজ্ঞতা হয়েছিল। কিন্তু মিডিয়ায় এই নিয়ে যা হচ্ছে তা লজ্জার বিষয়।

ইতিমধ্যেই ভারতীয় দলের প্রত্যেকের করোনা টেস্ট নেগেটিভ এসেছে। আগামীকাল থেকে শুরু হচ্ছে সিডনি টেস্ট। তাই মেলবোর্ন থেকে সিডনির দিকে রওনা দিচ্ছেন তাঁরা। আপাতত, সে দিকে তাকিয়ে সবাই।

Published by: Piya Banerjee
First published: January 6, 2021, 5:04 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर