ফিল্ডিং করতে গিয়ে মাথায় আঘাত পেলেন সুদীপ ঘরামি

ফিল্ডিং করতে গিয়ে মাথায় আঘাত পেলেন সুদীপ ঘরামি

কেমন আছেন সুদীপ?

  • Share this:

#কলকাতা: সিএবি ক্লাব ক্রিকেট ম্যাচ খেলতে গিয়ে মাথায় আঘাত পেলেন সুদীপ ঘরামি। নিউরোসায়েন্স হাসপাতলে ভর্তি বড়িশা ক্লাবের গুরুত্বপূর্ণ এই ক্রিকেটার। বারাসতে আদিত্য একাডেমির মাঠে সিএবি প্রথম ডিভিশন এ গ্রুপের ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিল টাউন ও বড়িশা ক্লাব। সোমবার টাউনের ব্যাটসম্যান আজাজ আনসারী শট মাথায় লাগে সুদীপের। স্পিনারের বিরুদ্ধে ব্যাট করছিলেন টাউন ক্লাবের ব্যাটসম্যান আজাজ আনসারী। সেই সময় ফরওয়ার্ড শর্ট লেগে ফিল্ডিং করছিলেন সুদীপ ঘরামি। একটি বলে আনসারী সুইপ শট মারেন। বল সরাসরি গিয়ে লাগে সুদীপ ঘরামির মাথায়। হেলমেট পড়ে ফিল্ডিং করছিলেন সুদীপ। হেলমেটের উপর দিয়ে বল মাথায় লাগে। আঘাত পাওয়ার পর অস্বস্তি বোধ করতে শুরু করেন সুদীপ। তৎক্ষণাৎ সুদীপকে নিয়ে যাওয়া হয় মাঠের বাইরে।

বারাসতে স্থানীয় এক নার্সিংহোমে অনূর্ধ্ব  ২৩শের এই ক্রিকেটারকে নিয়ে যাওয়া হয়। স্ক্যান করা হয় সুদীপের। স্ক্যান রিপোর্টে সেরকম কিছু না মেলায় সেখান থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়। সুদীপ ঘরামি খেলার মাঠে ফিরে আসেন। তবে আর ফিল্ডিং করতে নামতে পারেননি তিনি। চিকিৎসকের পরামর্শে ব্যাট করতে নামেননি সুদীপ। মাঠে বসে থাকা অবস্থায় মাঝেমধ্যেই অস্বস্তিবোধ করছিলেন সুদীপ। তরুণ এই ব্যাটসম্যানের আরও উন্নত চিকিৎসার কথা মাথায় রেখে ক্লাব কথা যোগাযোগ করা হয় সিএবি সঙ্গে। ঠিক করা হয় সুদীপকে বারাসত থেকে নিয়ে আসা হবে কলকাতায়। গাড়ি করে সুদীপকে নিয়ে এসে দেখানো হয় মল্লিক বাজারের কাছে অবস্থিত বেসরকারি হাসপাতালে। চিকিৎসকরা প্রাথমিক চিকিৎসার পর সিদ্ধান্ত নেন সুদীপকে হাসপাতালে ভর্তি করার। ২৪ ঘন্টার জন্য অবজারভেশনের পরামর্শ দেন ডাক্তার।

ছেলের আঘাত লাগার খবর পেয়ে নৈহাটি থেকে তড়িঘড়ি ছুটে আসেন সুদীপ ঘরামির বাবা ও মা। হাসপাতালে ছেলের সঙ্গে দেখা করার পর সুদীপের মা জানান, "সকাল থেকে অনলাইনে ছেলের ম্যাচের স্কোর দেখছিলাম। সুদীপ ব্যাট করতে না নামাতেই আমার একটা কেমন সন্দেহ হয়। ওর বন্ধুদের ফোন করি। ম্যাচ চলছিল বলে কেউ ফোন ধরতে পারেননি। পরে সুদীপ নিজেই ফোন করে ঘটনাটি জানায়। খুব টেনশনে ছিলাম। তবে সুদীপের সঙ্গে সামনাসামনি কথা বলার পর কিছুটা আশ্বস্ত বোধ করছি।" সুদীপের বাবা ছেলের সঙ্গে দেখা করে স্বস্তি বোধ করেন। বড়িশা ক্লাব কর্তা গোপাল বোস জানান, "সিএবির তরফ থেকে সব রকম সহযোগিতা পেয়েছি আমরা। মাঠে অ্যাম্বুলেন্স ছিল। তবে আমরা তড়িঘড়ি নিজেদের গাড়ি ব্যবহার করেই সুদীপকে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে গিয়েছিলাম।" সিএবি সুদীপের সমস্ত খরচ বহন করা খুশি ক্লাব কর্তারা।

রাতের দিকে সুদীপ ঘরামি স্বাস্থ্যের খোঁজ নেন অভিষেক ডালমিয়া। বড়িশা ক্লাব কর্তারাও সৌরভকে জানান বিষয়টি। স্ক্যান রিপোর্ট কিছু না ধরা পড়ায় আশঙ্কা কাটে। মঙ্গলবার বিকেল পর্যন্ত হাসপাতালের ডাক্তারদের অবজারভেশন এই থাকবেন সুদীপ ঘরামি। চলতি মরসুমে অনূর্ধ্ব 23 বাংলা দলে দুরন্ত ফর্মে রয়েছেন এই ক্রিকেটার। রঞ্জিতে বাংলা সিনিয়র দলে ডাক পান সুদীপ। তবে এখনো রঞ্জি অভিষেক বিষয় হয়নি। কাজী জুনেইদ সিনিয়ার দলে সুযোগ পাওয়াতে সৌরাষ্ট্র এর বিরুদ্ধে সুদীপ ঘরামি অধিনায়কত্ব করেন। মঙ্গলবার অনূর্ধ্ব ২৩ এর দল নির্বাচন। এখন দেখার সুযোগ হল আমি সেই দলে সুযোগ পান কিনা।

First published: February 3, 2020, 11:31 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर