• Home
  • »
  • News
  • »
  • sports
  • »
  • SHARDUL AND DEBUTANT PRASIDH KRISHNA BRILLIANT SPELL GIVES INDIA VICTORY OVER ENGLAND RRC

India vs England: শার্দুল, প্রসিদ্ধের দুরন্ত বোলিংয়ে ম্যাচ জিতল ভারত

চাপে পড়লেও ম্য়াচ বের করে নিলেন বিরাটরা৷

প্রসিদ্ধ অভিষেক ম্যাচেই চার উইকেট তুলে নিলেন। শার্দুল পেলেন তিনটি।

  • Share this:

    ভারত - ৩১৭/৫

    ইংল্যান্ড - ২৫১

    ভারত  জয়ী ৬৬ রানে

    #পুণে: ভারতের ৩১৭ রানের জবাবে ব্যাট করতে নেমে ইংল্যান্ড যে এত দাপটে শুরু করবে ভাবা যায়নি। দুই ওপেনার বেয়ারস্টো এবং জেসন রয় ১৪০ রানের পার্টনারশিপ গড়লেন। মসৃণ গতিতে এগিয়ে চলেছে ইংল্যান্ড। অধিনায়ক বিরাট কোহলি কী করবেন বুঝে উঠতে পারছেন না। পরিষ্কার টেনশন চোখেমুখে। দেখে মনে হচ্ছিল সহজেই রান তাড়া করে ফেলবে ইংল্যান্ড। প্রসিদ্ধ কৃষ্ণ তুলে নিলেন রয়কে। ৪৬ করে সূর্যকুমারের হাতে ধরা পড়লেন রয়। কিন্তু থামানো যাচ্ছিল না বেয়ারস্টোকে।

    প্রসিদ্ধর একটি ওভারে ২০ রান তুললেন। তবে বেন স্টোকস ফিরে গেলেন ১ রান করে। প্রসিদ্ধর বলে রোহিত এর পরিবর্তে নামা ফিল্ডার শুভমন ক্যাচ নিলেন। বিধ্বংসী বেয়ারস্টো ৯৪ রানে ফিরলেন কুলদীপ যাদবের হাতে ক্যাচ দিয়ে। মর্গ্যান এবং বাটলারকে আউট করলেন শার্দুল। প্রসিদ্ধ অভিষেক ম্যাচেই চার উইকেট তুলে নিলেন। শার্দুল পেলেন তিনটি। মইন আলিকে ফিরিয়ে দিলেন ভুবনেশ্বর। চোট পেয়ে রোহিত এদিন ফিল্ডিং করতে পারেননি। শ্রেয়া স চোট পেলেন কাঁধে। কিন্তু ম্যাচটা দারুণ ভাবে ভারতের অনুকূলে ঘুরিয়ে দিলেন বোলাররা। এরপর আর কিছু করার ছিল না ইংল্যান্ডের। টম কারান একা কিছুটা চেষ্টা করলেন। কিন্তু ততক্ষণে নির্ধারিত হয়ে গিয়েছে ম্যাচের ভাগ্য।

    ভারতের জাতীয় দলের টুপি পাওয়ার পর আকাশের দিকে তাকিয়ে স্বর্গীয় বাবার উদ্দেশ্যে হাত নাড়তে দেখা গেল ক্রুনালকে। নিজের অর্ধশতরান পূর্ণ করলেন অভিষেক ম্যাচেই। দীর্ঘদিন পর রাহুল রানে ফিরলেন। বিরাট কোহলির চিন্তা অনেকটা কমবে। শিখরের রান পাওয়াটা দরকার ছিল ভারতীয় দলের প্রয়োজনে। তবে এদিন রশিদের বলে তাঁর সহজ ক্যাচ ফেলে দেন মঈন আলি। ধাওয়ান বুদ্ধি করে নিজের ইনিংস সাজালেন এদিন।

    লুজ বল বাউন্ডারির বাইরে পাঠালেন,ভাল বলকে সম্মান দিলেন। কিন্তু স্কোরবোর্ড চালু রাখলেন সব সময়। বিরাট কোহলি উডের বলে ৫৬ করে ফিরে গেলেন। কিন্তু ধাওয়ান দায়িত্বপূর্ণ ব্যাটিং জারি রাখলেন। প্রথম টি টোয়েন্টিতে খেলার পর আর সুযোগ পাননি। টেস্ট দলে তিনি নেই। তাই এদিন যেন আলাদা কিছু প্রমাণ করার ইচ্ছে নিয়ে শুরু করেছিলেন এই বাঁহাতি। কোহলি ফিরে যাওয়ার পর শুধু নিজের শতরান নয়, অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান হিসেবে তাঁর উইকেটে আরও বেশি সময় থাকা উচিত ছিল। সেই চেষ্টা করে গেলেন।

    বিরাট দুর্ধর্ষ ব্যাট করছিলেন। কিন্তু একটা ভুলে ফিরে যেতে হল। দুজনের ১০৫ রানের পার্টনারশিপ ভারতের ভিত মজবুত করল। ধাওয়ান এদিন যেমন কভার ড্রাইভ মারলেন, তেমনই অন সাইডে দেখার মত কিছু শট খেললেন। ক্রিকেটারদের নিয়ে আগাম ভবিষ্যৎবাণী চলে না। আক্ষেপ থাকবে মাত্র ২ রানের জন্য শতরান হাতছাড়া হওয়ায়।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published: