পূজারাকে স্মিথ নামে ডাকলেন ওয়ার্ন, বর্ণবিদ্বেষী আঘাতে নতুন বিতর্ক

পূজারাকে স্মিথ নামে ডাকলেন ওয়ার্ন, বর্ণবিদ্বেষী আঘাতে নতুন বিতর্ক

Cheteshwar Pujara/ photo courtesy AFP

ওয়ার্নের এই মন্তব্য শোনার পর ছি ছি পড়ে গিয়েছে। এটা বর্ণবিদ্বেষের মত ব্যাপার বলেই মন্তব্য করেছেন অনেকে।

  • Share this:

    #অ্যাডিলেড: মাঠের ভেতর গালিগালাজ করা হোক, বা বাইরে একাধিক মহিলার সঙ্গে সম্পর্ক,শেন ওয়ার্ন ক্রিকেট বিশ্বের নটি বয় নামে পরিচিত। তিনি থাকবেন অথচ বিতর্ক থাকবে না, তা আবার হয় নাকি? এবার নতুন বিতর্কে জড়ালেন অস্ট্রেলিয়ান কিংবদন্তি।

    অ্যাডিলেড টেস্টে তখন ব্যাট করছেন চেতেশ্বর পূজারা। একটি চ্যানেলের হয়ে কমেন্ট্রি করছিলেন প্রাক্তন লেগ স্পিনার। হঠাৎ সরকারি কমেন্টেটর মার্ক ওয়ার সামনে বলে উঠলেন,"ছেলেটা খুব ভাল ব্যাটসম্যান। কিন্তু ওঁর নামটা উচ্চারণ করা খুব কঠিন। ওঁকে আমি স্মিথ নামেই ডাকব"।

    ওয়ার্নের এই মন্তব্য শোনার পর ছি ছি পড়ে গিয়েছে। এটা বর্ণবিদ্বেষের মত ব্যাপার বলেই মন্তব্য করেছেন অনেকে। এমনকি ভারতে আইপিএল খেলতে এসে প্রচুর অর্থ রোজগার করলেও ভারতীয় সংস্কৃতির প্রতি এখনও তাঁর কোনও শ্রদ্ধা জন্মায়নি বলে অনেকে আক্রমণ করেছেন তাঁকে। নিঃশর্ত ক্ষমা চাওয়ার দাবি উঠেছে। কিন্তু এত নাম থাকতে হঠাৎ এই নামেই কেন ডাকা ?

    চেতেশ্বর যখন ইংল্যান্ডের বিখ্যাত কাউন্টি ইয়র্কশায়ারে খেলতে যান, তখন সতীর্থরা তাঁকে স্টিভ নামে ডাকতেন। সেখান থেকেই ব্যাপারটা শুরু। কদিন আগে পাকিস্তানি বংশোদ্ভূত ক্রিকেটার আজিম রফিক দাবি করেছিলেন ওই ক্লাবে খেলার সময় তাঁকেও জাতিগতভাবে টার্গেট করা হয়েছিল। ওই ক্লাব প্রাতিষ্ঠানিক বর্ণবাদের কেন্দ্র হিসেবে পরিচিত ছিল এবং এতদিন পরেও কোন ও পরিবর্তন হয়নি। এশিয়ান ক্রিকেটারদের এখনও বিভিন্নভাবে অপমান করা হয়।

    ভারতীয় ব্যাটসম্যান নিজে অবশ্য ব্যাপারটা শুনেছেন কিনা জানা নেই। ভারতীয় বোর্ডের তরফ থেকেও কোন ও মন্তব্য করা হয়নি। সংশ্লিষ্ট চ্যানেল কর্তৃপক্ষ ওয়ার্নের বিরুদ্ধে কোনও পদক্ষেপ গ্রহণ করেন কিনা সেটাই দেখার। একটা জিনিস পরিষ্কার। মাঠে বর্ণবিদ্বেষের জায়গা নেই, মুখে বলা যতটা সহজ, কাজে কিন্তু ততটা নয়। এই ঘটনা আবার তা প্রমান করল।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published: