খেলা

corona virus btn
corona virus btn
Loading

আঙুলে চিড়, সাহসে নয়! প্রয়োজনে ইনজেকশন নিয়েও ব্যাট করতে রাজি জাদেজা

আঙুলে চিড়, সাহসে নয়! প্রয়োজনে ইনজেকশন নিয়েও ব্যাট করতে রাজি জাদেজা
photo/cricket country

চতুর্থ দিনের শেষে খুব একটা সুবিধাজনক জায়গায় নেই দল। তাই জাদেজা নিজেই ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন যদি এমন অবস্থায় ইনজেকশন নিয়ে খেলা সম্ভব হয় তিনি রাজি।

  • Share this:

#সিডনি: বল হাতে দুর্দান্ত চার উইকেট এবং একটা স্বপ্নের রান আউট। নিজের দক্ষতা আবার প্রমাণ করেছিলেন রবীন্দ্র জাদেজা। প্রথম ইনিংসে ব্যাট করার সময় মিচেল স্টার্কের একটা দ্রুতগতির বল গ্লাভসে আছড়ে পড়ে তাঁর। পরে জানা যায় রবীন্দ্র জাদেজার বুড়ো আঙুলে চিড় ধরেছে। দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে পারবেন না। শেষ টেস্টেও খেলা হবে না তাঁর। কিন্তু চতুর্থ দিনের শেষে খুব একটা সুবিধাজনক জায়গায় নেই দল। তাই জাদেজা নিজেই ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন যদি এমন অবস্থায় ইনজেকশন নিয়ে খেলা সম্ভব হয় তিনি রাজি। দলের ডাক্তার এবং ফিজিও আলোচনা করছেন। যদি জাদেজা ব্যাট করতে নামেন, তাহলে ইনজেকশনের জন্য ব্যথা অনুভব করতে পারবেন না। কিন্তু সেক্ষেত্রে তাঁর সুস্থ হয়ে উঠতে বেশি সময় লাগবে। প্রায় ছয় সপ্তাহ মাঠের বাইরে থাকতে হবে তাঁকে।

ঘরের মাঠে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে টেস্ট সিরিজের প্রথম দিকটা তাঁকে পাওয়া যাবে না সেক্ষেত্রে। কিন্তু ভারতীয় দল জানে সিডনিতে জয় অসম্ভব না হলেও বেশ কঠিন। তাছাড়া রোহিত বা গিল যদি আরও লম্বা ইনিংস খেলতে পারতেন তাহলে জয়ের জন্য অলআউট পর্যন্ত যাওয়া যেত। কিন্তু এখন চালিয়ে খেলতে গেলে হেরে যাওয়ার সম্ভাবনা বেশি। প্রথম টেস্টে লজ্জাজনক হারের পর মেলবোর্নে অস্ট্রেলিয়াকে আট উইকেটে হারিয়ে দুর্দান্ত কামব্যাক করেছিল ভারত। কিন্তু তৃতীয় টেস্টে চতুর্থ দিনের শেষে বলতেই হচ্ছে আর যাই হোক, জিতে ফেরা হচ্ছে না টিম ইন্ডিয়ার। পঞ্চম দিনে কোনও মতে ড্র রাখতে পারলেই অনেক। উইকেটে রয়েছেন অধিনায়ক রাহানে এবং পূজারা। সাত নম্বরে ব্যাট করতে নেমে জাদেজা ভরসা দিচ্ছিলেন দলকে।

মেলবোর্নে অর্ধশতরান করেছিলেন। অবশ্য এই অস্ট্রেলিয়া সফরেই ক্যানবেরায় হেলমেটে বল লেগে কনকাশান হয়েছিল তাঁর। কিন্তু ভারত হারুক, জিতুক বা ড্র করুক, জাদেজার সাহসকে কুর্নিশ করতেই হয়। চিড় ধরেছে বলে ব্যাট করা সম্ভব নয় বলতেই পারতেন, কিন্তু সামনে থেকে লড়তে জানেন, কঠিন পরিস্থিতিতেও চ্যালেঞ্জ নিতে পিছপা হন না। মহেন্দ্র সিং ধোনির ভাবশিষ্য এ সব শিখেছেন তাঁর গুরুকে দেখেই। তাই শেষপর্যন্ত যদি দলকে বাঁচাতে ব্যাট হাতে তিনি নামেন সেটা খুব কাছাকাছি থেকে যাবে অনিল কুম্বলের ভাঙা চোয়াল নিয়ে বল করার সেই লড়াকু মনোভাবের কাছাকাছি।

Published by: Rohan Chowdhury
First published: January 10, 2021, 8:14 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर